পল্লবীতে দগ্ধ হাসিন আরা খানম মারা গেছেন

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৯ মার্চ ২০১৮, ০৯:৪৬

রাজধানীর পল্লবীতে সেপটিক ট্যাংক পরিষ্কার করতে নেমে বিস্ফোরণে দগ্ধ পাঁচজনের মধ্যে হাসিন আরা খানম মারা গেছেন। বৃহস্পতিবার সকাল পৌনে নয়টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক বাচ্চু মিয়া হাসিন আরা খানমের মৃত্যুর বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন।
এর আগে গত মঙ্গলবার দিবাগত রাতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় তিন বছরের শিশু রুহি। এই নিয়ে পল্লবীর সেপটিক ট্যাংক পরিষ্কার করার সময়ে দগ্ধ পাঁচজনের মধ্যে মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়ালো দুইজনে।

গত মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে পল্লবীর ডি ব্লকের ১৯ নম্বর রোডের একটি বাড়িতে সেপটিক ট্যাংক পরিষ্কার করার সময় বিস্ফোরণে দগ্ধ হন পাঁচজন। এতে ভবনের মালিক ইয়াকুব আলী (৭০), তার স্ত্রী হাসিন আরা খানম (৬০), তাদের আত্মীয় ইয়াসমিন আক্তার (৩৫) এবং ইয়াসমিনের তিন বছরের মেয়ে রুহি এবং ওই বাড়ির কেয়ারটেকার হাসান (৩২) দগ্ধ হয়। পরে  প্রতিবেশীরা আহতদের উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করেন।

পুলিশ জানায়, ওই বাড়ির নিচতলায় সেপটিক ট্যাংক পরিষ্কার করার জন্য সকালে ঢাকনা খোলেন হাসান। এ সময় বাড়ির সদস্যরাও সেখানে ছিলেন।

মিরপুর ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার শেখ আহাদুজ্জামান জানান, ট্যাংক পরিষ্কার করার আগে গ্যাস জমেছে কি না পরীক্ষা করতে কাগজের টুকরোতে আগুন ধরিয়ে ট্যাংকের ভেতরে ফেললে সঙ্গে সঙ্গে বিস্ফোরণ ঘটে। এ সময় সেখানে থাকা পাঁচজন দগ্ধ হন।

(ঢাকাটাইমস/২৯মার্চ/এএ/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজধানী বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত