মার্চে ডিএমপিতে ভালো কাজের স্বীকৃতি পেলেন যারা

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৬ এপ্রিল ২০১৮, ১৮:২৩

ঢাকা মহানগরের আইন-শৃংখলা রক্ষা ও জননিরাপত্তা বিধানসহ মার্চ মাসের ভালো কাজের স্বীকৃতি হিসেবে বিভিন্ন পর্যায়ের পুলিশ সদস্যকে পুরস্কৃত করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)।

সোমবার ডিএমপির মাসিক অপরাধ পর্যালোচনা সভায় ভালো কাজের স্বীকৃতি হিসেবে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে বিজয়ীদের হাতে নগদ অর্থ পুরস্কার তুলে দেন ডিএমপির কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া বিপিএম (বার), পিপিএম।

মার্চ মাসে ডিএমপির শ্রেষ্ঠ বিভাগ নির্বাচিত হয়েছে লালবাগ বিভাগ। শ্রেষ্ঠ সহকারী পুলিশ কমিশনার ইফতেখায়রুল ইসলাম পিপিএম (ডেমরা জোন), শ্রেষ্ঠ পুলিশ পরিদর্শক (অফিসার ইনচার্জ) এম এ জলিল কদমতলী থানা, শ্রেষ্ঠ পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. সেন্টু মিয়া তেজগাঁও থানা, শ্রেষ্ঠ পুলিশ পরিদর্শক (অপারেশনস) মো. সাইফুল ইসলাম কদমতলী থানা, শ্রেষ্ঠ এসআই যৌথভাবে এসআই মোঃ ওমর ফারুক যাত্রাবাড়ী থানা ও এসআই  মোঃ ইব্রাহীম খান নয়ন চকবাজার মডেল থানা। শ্রেষ্ঠ এএসআই যৌথভাবে এএসআই মোঃ হেলাল উদ্দিন মতিঝিল থানা ও এএসআই  মোঃ শহিদুল ইসলাম কোতয়ালী থানা।

শ্রেষ্ঠ ওয়ারেন্ট তামিলকারী অফিসার এএসআই মোঃ হেলাল উদ্দিন (মতিঝিল থানা), শ্রেষ্ঠ অস্ত্র উদ্ধারকারী অফিসার এসআই যৌথভাবে মোঃ শামীম হাসান (ভাটারা থানা) ও মোঃ শফিউল আলম (দক্ষিণখান থানা)। শ্রেষ্ঠ বিস্ফোরক উদ্ধারকারী অফিসার এএসআই ইউসুফ আলী কোতয়ালী থানা, শ্রেষ্ঠ মাদকদ্রব্য উদ্ধারকারী অফিসার এসআই মোঃ ওমর ফারুক (যাত্রাবাড়ী থানা) এবং শ্রেষ্ঠ চোরাই গাড়ী উদ্ধারকারী অফিসার এসআই মোহাম্মদ আলী হাসান (ভাটারা থানা)।

গোয়েন্দা ও অপরাধতথ্য বিভাগের শ্রেষ্ঠ বিভাগ হয়েছে ডিবি-পশ্চিম বিভাগ। শ্রেষ্ঠ সহকারী পুলিশ কমিশনার হয়েছেন সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার নাজমুল হাসান ফিরোজ বিপিএম, পিপিএম (ডেমরা জোনাল টিম), চোরাই গাড়ি উদ্ধারে পুরস্কৃত হয়েছেন অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার মাহমুদ নাসের জনি (গাড়ী চুরি উদ্ধার টিম ডিবি পশ্চিম), মাদকদ্রব্য উদ্ধারে পুরস্কৃত হয়েছেন সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার নাজমুল হাসান ফিরোজ বিপিএম, পিপিএম (ডেমরা জোনাল টিম)।

অস্ত্র উদ্ধারে পুরস্কৃত হয়েছেন সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার মোঃ শাহাদত হোসেন সুমা (পল্লবী জোনাল টিম), অজ্ঞান ও মলম পার্টি গ্রেপ্তারে যৌথভাবে পুরস্কৃত হয়েছেন সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার রাহুল পাটওয়ারী (গাড়ি চুরি প্রতিরোধ টিম, ডিবি-পশ্চিম)ও মোঃ শামসুল আরেফিন সহকারী পুলিশ কমিশনার (অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার টিম, ডিবি দক্ষিণ), বিস্ফোরক দ্রব্য উদ্ধারে পুরস্কৃত হয়েছেন সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ আলাউদ্দিন (শুটিং ইনসিডেন্ট ইনভেস্টিগেশন টিম)।

ট্রাফিকের শ্রেষ্ঠ বিভাগ নির্বাচিত হয়েছে ট্রাফিক-পূর্ব বিভাগ। শ্রেষ্ঠ সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার এসএম মুক্তারুজ্জামান (রামপুরা ট্রাফিক জোন), শ্রেষ্ঠ ট্রাফিক ইন্সপেক্টর- বিপ্লব ভৌমিক (রামপুরা ট্রাফিক জোন), শ্রেষ্ঠ টিএসআই/সার্জেন্ট যৌথভাবে হয়েছেন সার্জেন্ট মোঃ মাজেদুল হক (ট্রাফিক দক্ষিণ বিভাগ) ও সার্জেন্ট মোঃ মেহেদী হাসান (এয়ারপোর্ট ট্রাফিক জোন)।

ট্রাফিক সচেতনতামূলক কর্মসূচীর জন্য পুরস্কৃত হয়েছেন ট্রাফিক পূর্বের মতিঝিল জোনের অতিঃ উপ-পুলিশ কমিশনার নাজমুন নাহার ও মতিঝিল জোনের সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার মুহাম্মদ সরোওয়ার হোসেন।

বিট পুলিশিং কার্যক্রমে পুরস্কৃত হয়েছেন ধানমন্ডি জোনের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার মোঃ আব্দুল্লাহীল কাফি, ডেমরা জোনের সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার ইফতেখায়রুল ইসলাম, কামরাঙ্গীরচর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ শাহীন ফকির বিপিএম, গেন্ডারিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ কাজী মিজানুর রহমান পিপিএম, আদাবর থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ শাহিনুর রহমান।

এছাড়া বিশেষ পুরস্কারে পুরস্কৃতরা হয়েছেন- জঙ্গি গ্রেপ্তারে অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (সিটি) মোঃ জাহিদুল হক তালুকদার পিপিএম (বার), প্রশ্নপত্র ফাঁস চক্র গ্রেপ্তারে পুরস্কৃত হয়েছেন মোঃ নাজমুল ইসলাম বিপিএম (অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার সাইবার সিকিউরিটি), ফেন্সিডিল উদ্ধারে পুরস্কৃত হয়েছেন মোঃ গোলাম সাকলায়েন (অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার ডিবি-উত্তর), ১০০ বস্তা চাউলসহ আসামী গ্রেপ্তারে পুরস্কৃত হয়েছেন অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার নিশাত রহমান মিথুন (ডিবি-উত্তর), নিখোঁজ তিনটি শিশু উদ্ধারে পুরস্কৃত হয়েছেন মোঃ আশরাফুল করিম (সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার বাড্ডা জোন, গুলশান বিভাগ), হত্যা মামলার আসামী গ্রেপ্তার ও রহস্য উদঘাটনে সম্মিলিতভাবে পুরস্কৃত হয়েছেন মোঃ ফয়সাল মাহমুদ (সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার, শ্যামপুর জোন ওয়ারী বিভাগ), আহসানুজ্জামান (সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার, কোতয়ালী জোনাল টিম ডিবি-দক্ষিণ), খন্দকার রবিউল আরাফাত (সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার, অবৈধ মাদক দ্রব্য উদ্ধার ও প্রতিরোধ টিম ডিবি-দক্ষিণ)  ও এসআই  মোঃ জোবায়ের (দারুস সালাম থানা)।

পাঁচ মাসের অপহৃত শিশু উদ্ধারে পুরস্কৃত হয়েছেন এসআই ফায়জুল হক (দক্ষিণখান থানা), ডাকাতি মামলার আসামী গ্রেপ্তারে এসআই মোঃ আজহারুল ইসলাম (কদমতলী থানা), মামলার গুরুত্বপূর্ণ তথ্য উদঘাটনে আতিকুল ইসলাম (সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার, মতিঝিল জোনাল টিম ডিবি-পূর্ব), ভিকটিম উদ্ধার ও হত্যা মামলার রহস্য উদঘাটনে নাজমুল হাসান ফিরোজ বিপিএম, পিপিএম (সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার, ডেমরা জোনাল টিম), চুরি যাওয়া পিস্তল, গুলি উদ্ধার ও ইন্সপেক্টর জালাল উদ্দীন হত্যা মামলার আসামী গ্রেপ্তারে পুরস্কৃত হয়েছেন সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার মোঃ শাহাদত হোসেন সুমা (পল্লবী জোনাল টিম), ফেসবুকের মাধ্যমে আসামী গ্রেপ্তারে যৌথভাবে সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার শফিকুল ইসলাম, (অবৈধ মাদক দ্রব্য উদ্ধার টিম ডিবি-পশ্চিম) ও  সহকারী পুলিশ কমিশনার ইশতিয়াক আহমেদ (সাইবার সিকিউরিটি এন্ড ক্রাইম ইউনিট)।

বিকাশের মাধ্যমে প্রতারণা চক্র গ্রেপ্তারে আজহারুল ইসলাম মুকুর (সিনিয়র সহকারী পুলিশ, কমিশনার সাইবার সিকিউরিটি টিম), গুরুত্বপূর্ণ তথ্য প্রদান করায় সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার মোঃ মতিউর রহমান (আইএডি), ইয়াবা উদ্ধারে মোঃ শাহীন ফকির বিপিএম (অফিসার, ইনচার্জ কামরাঙ্গীরচর থানা), বিয়ার উদ্ধারে সার্জেন্ট দেবপ্রিয় বড়ুয়া (বাড্ডা ট্রাফিক জোন) ও সার্জেন্ট বিজন কুমার সরকার (ডেমরা ট্রাফিক জোন)।

ছিনতাইকারী গ্রেপ্তারে সম্মিলিতভাবে পুরস্কৃত হয়েছেন সহকারী পুলিশ কমিশনার মোঃ রাকিবুল হাসান (সবুজবাগ ট্রাফিক জোন), এসআই থোয়াই চন্দ্র মারমা (মতিঝিল থানা), সার্জেন্ট নোমান খান (বাড্ডা ট্রাফিক জোন), সার্জেন্ট সাগর কুমার ঘোষ (বাড্ডা ট্রাফিক জোন), সার্জেন্ট জহুরুল ইসলাম (ডেমরা ট্রাফিক জোন), সার্জেন্ট মোঃ মাহবুব শিকদার (মতিঝিল ট্রাফিক জোন), সার্জেন্ট মাহমুদুল হাসান (শিল্পাঞ্চল ট্রাফিক জোন), এএসআই রফিকুল ইসলাম (কোতয়ালী ট্রাফিক জোন) ও কনস্টেবল মোঃ শাহ আলম (গুলশান ট্রাফিক জোন)।

চুরি যাওয়া মালামাল ও ডেবিট কার্ড উদ্ধারে এসআই শরীফ হোসেন (উত্তরা পশ্চিম থানা), ডলার বিক্রয়ের নামে প্রতারক চক্র গ্রেপ্তারে এসআই আব্দুল্লাহ আল মামুন ফরাজী (আইএডি)।

এছাড়া বিশেষ ক্যাটাগরিতে পুরস্কারপ্রাপ্তরা হলেন- অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ক্রাইম এন্ড অপস), যুগ্ম পুলিশ কমিশনার (সদর দপ্তর ও প্রশাসন), উপ-পুলিশ কমিশনার (পিওএম-উত্তর, পিওএম-দক্ষিণ, মতিঝিল, রমনা, অর্থ, প্রটেকশন, সাইবার সিকিউরিটি, সদর সপ্তর ও প্রশাসন, সিটি, স্পেশাল এ্যাকশন গ্রুপ, ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম, ডিপ্লোমেটিক সিকিউরিটি) ও সিস্টেম এ্যানালিস্ট।

(ঢাকাটাইমস/১৬এপ্রিল/বিইউ/ডিএম)

সংবাদটি শেয়ার করুন

প্রশাসন বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত