কুমার নদ খননকাজের উদ্বোধন করলেন এলজিআরডি মন্ত্রী

ফরিদপুর প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২১ এপ্রিল ২০১৮, ২০:৪৪

ফরিদপুরে কুমার নদ খনন প্রকল্পের কাজের উদ্বোধন করেছেন স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেন।

শনিবার বিকাল সোয়া পাঁচটার দিকে শহরতলীর অম্বিকাপুর ইউনিয়নের গোবিন্দপুর গ্রামে জসীম উদ্যানে এ উপলক্ষে অনুষ্ঠানের আয়োজন করে জেলা প্রশাসন ও পানি উন্নয়ন বোর্ড।

খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, ‘বর্তমান সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকেই নদী খননের দিকে অধিক জোর দিয়েছে। নদীমাতৃক বাংলাদেশের নদীই প্রাণ। বাংলার প্রাণ বাঁচাতে তাই এ খননের উদ্যোগ।’

নদীর পাড়ের বাসিন্দাদের আশ্বস্ত করে মন্ত্রী বলেন, অপনাদের ভয় পাওয়ার কোনো কারণ নেই, আপনাদের এক ইঞ্চি জমিও খননের আওতায় আনা হবে না। এ কাজ তদারকিতে একটি কমিটি করা হবে। তারাই আপনাদের সমস্যাগুলো দেখবে।

কুমার নদ খনন হলে এলাকার আর্থসামজিক অবস্থার কী কী উন্নতি হবে এর বিবরণ দিয়ে খন্দকার মোশাররফ বলেন, ‘আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলে দেশের উন্নয়ন হয়- এই নদী খননই প্রমাণ করে বর্তমান সরকার উন্নয়নের ব্যাপারে কতটা আন্তরিক।’

ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক উম্মে সালমা তানজিয়ার সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন নৌবাহিনীর কমন্ডোর শেখ আরিফ মাহমুদ। সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান খন্দকার মোহতেশাম হোসেন ওরফে বাবর, পাউবোর প্রধান প্রকৌশলী (পশ্চিমাঞ্চল) এ কে এম ওয়াহেদউদ্দীন চৌধুরী, পাউবোর নির্বাহী প্রকৌশলী সুলতান মাহমুদ প্রমুখ।

জেলা পানি উন্নয়ন বোর্ড সূত্রে  জানা গেছে, ২৫০ কোটি ৮১ লাখ টাকা ব্যয়ে ২০১৬-২০১৭ ও ২০১৭-২০১৮ অর্থবছরের মধ্যে এ প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হবে। প্রকল্প অনুযায়ী ৫৪.৫১ কিলোমিটার ড্রেজার দিয়ে এবং ৯২.২১ কিলোমিটার এসকেভেটর দিয়ে খনন করে ২৩ হাজার ৫৪০ হেক্টর এলাকার পানি নিষ্কাশন ব্যবস্থার উন্নয়ন, বন্যা নিয়ন্ত্রণ এবং নাব্য ব্যবস্থার উন্নয়ন করা। এর ফলে বন্যার প্রকোপ কমানো, শস্য ও সম্পদ হানি রোধ এবং মানুষের ভোগান্তি হ্রাস হবে। নৌবাহিনীর তত্ত্বাবধানে এ প্রকল্প বাস্তবায়িত হবে।

(ঢাকাটাইমস/২১এপ্রিল/প্রতিনিধি/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত