সেভিয়াকে হারিয়ে টানা চতুর্থ শিরোপা জিতলো বার্সা

ক্রীড়া প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২২ এপ্রিল ২০১৮, ০৮:১৯ | প্রকাশিত : ২২ এপ্রিল ২০১৮, ০৭:৫৭

কোপা দেল রে তে শনিবার সেভিয়াকে হারিয়ে টানা চতুর্থ বারের মত শিরোপা জয় করলো বার্সেলোনা। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টার থেকে বাদ পড়ে মানসিকভাবে কিছুটা পিছিয়েই ছিল বার্সেলোনা। রোমার কাছে সেই হারের ক্ষত ভুলে মৌসুমের প্রথম শিরোপাটাই ঘরে তুললো ভালভার্দের শীষ্যরা।

গতকাল রাতে ফাইনালে ৫-০ গোলের বিশাল ব্যবধানে সেভিয়াকে উড়িয়ে দেয় মেসি-সুয়ারেজরা। দলের পক্ষে জোড়া গোল করেন লুইস সুয়ারেজ, এক বার জালে বল পাঠানোর পাশাপাশি সতীর্থদের গোলে অবদান রাখেন দলের সেরা তারকা লিওনেল মেসি। আর বাকি দুইটি গোল করেন আন্দ্রেস ইনিয়েস্তা ও ফিলিপে কৌতিনহো।

এদিন ম্যাচের শুরু থেকেই দারুণ ছন্দে ছিল বার্সেলোনা। প্রথমার্ধেই অনেকটা জয় নিশ্চিত করে ফেলে তারা। ম্যাচের ১৪তম মিনিটে সুয়ারেজের গোলে প্রথমেই এগিয়ে যায় কাতালান ক্লাবটি। ফিলিপে কৌতিনিয়োর গোলমুখে বাড়ানো বল ডি-বক্সের ডান দিকে পেয়ে আলতো করে জালে ঠেলে দেন সুয়ারেজ।

৩১তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুন করেন মেসি। জর্দি আলবার পাশ পেয়ে প্রথম ছোঁয়াই বল জালে পাঠান এই তারকা। তার নয় মিনিট পরেই নিজের দ্বিতীয় গোল করেন সুয়ারেজ। মেসির থেকে পাশ পেয়ে ডি-বক্সে ঢুকেই সুযোগ হাত ছাড়া না করে বল জালে পাঠান এই তারকা।

দ্বিতীয়ার্ধের আগেই বেশ চাপে পড়ে যায় সেভিয়া। এই সুযোগ কাজে লাগিয়ে একচেটিয়া জয় তুলে নেয় ক্যাম্প ন্যু ক্লাবটি। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই গোলের আনন্দে যোগ দেয় ইনিয়েস্তা। ৫২তম মিনিটে মেসির সঙ্গে বল দেওয়া নেওয়ার মাঝে জোরালো শটে গোলটি করেন এই মিডফিল্ডার।

আর ৬৯তম মিনিটে জয় সূচক গোলটি করেন ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার কৌতিনিয়ো। স্পট কিকে বলকে ঠিকানায় পাঠান তিনি। বার্সার জার্সিতে প্রথম ফাইনালেই গোল করেন কিছুদিন আগে লিভারপুল থেকে খেলতে আসা ব্রাজিলিয়ান ফিলিপ কৌতিনহো।

এই জয়ের ফলে শেষ দশ বছরে ছয়বারই কোপার শিরোপা জিতলো বার্সেলোনা। আর সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে সেভিয়াকে মোট আটটি ফাইনালে হারায় কাতালান ক্লাবটি। এইদিকে লা লিগায়ও আগামী পাঁচ ম্যাচের একটিতে জয় পেলে ডাবল শিরোপা জয়ের আনন্দে ভাসবে মেসি-সুয়ারেজরা।

(ঢাকাটাইমস/২২ এপ্রিল/এইচএ)

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত