প্রধানমন্ত্রীর সংবর্ধনায় দর্শক সারিতে সর্ব ইউরোপিয়ান আ.লীগের দুই নেতা

কমরেড খোন্দকার, ইউরোপ ব্যুরো
 | প্রকাশিত : ২২ এপ্রিল ২০১৮, ১৫:৪৪

প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা যে উদ্দেশ্য ও প্রত্যাশা নিয়ে ২০০১ সালে সর্ব ইউরোপিয়ান আ.লীগ গঠন করছিলেন, তার সে প্রত্যাশা পূরণে ব্যর্থ হয়েছেন সংগঠনের নেতারা। দলের সভাপতি শ্রী অনিল দাশ গুপ্ত ও সাধারণ সম্পাদক এম এ গনির ব্যক্তিগত দ্বন্দ্বে সংগঠনটির কার্যক্রম নেই বললেই চলে। মূলত প্রধানমন্ত্রীর ইউরোপ সফরের সময় তাদের বেশ ফুরফুরে মেজাজে দেখা যায়। বাকি সময়টা তাদের খুঁজেও পাননি বিভিন্ন দেশের নেতাকর্মীরা। এছাড়া এখন পর্যন্ত ইউরোপ আওয়ামী লীগের কোন কর্মী সভা হয়নি।

সর্বশেষ বর্ধিত সভা হয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শামীম হকের নেতৃত্বে ২০০৬ সালে হল্যান্ডে।

অন্যদিকে দলের সভাপতি অনিল দাশ গুপ্ত সাংগঠনিক কাজে সময় না দেয়ায় এর সুযোগ নিচ্ছেন সাধারণ সম্পাদক এম এ গনি। তিনি বিভিন্ন দেশে একটি বৈধ কমিটি থাকার পরও হাইব্রিডদের দিয়ে একেক দেশে পাল্টা কমিটি দিয়ে দলের মধ্যে বিভাজন সৃষ্টি করছেন বলে অভিযোগ রয়েছে। অবমূল্যায়ন করা হচ্ছে ইউরোপে দলের ত্যাগী নেতাদের।

অনেকেই মন্তব্য করেন, সর্ব ইউরোপীয় আওয়ামী লীগের অবস্থা হ-য-ব-র-ল। 

বিভিন্ন দেশের নেতারা অভিযোগ করেন, ইউরোপীয় আওয়ামী লীগের কার্যক্রম শুধু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কোন দেশে এলে একটি গণসংবর্ধনা করার মধ্যেই সীমাবদ্ধ। কিন্তু এবার সে সুয়োগও পেলেন না শ্রী অনিল দাস গুপ্ত এবং এম এ গনি। প্রধানমন্ত্রীর সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে গত কয়েকবার স্টেজে অতিথিদের সাথে সভাপতি শ্রী অনিল দাশ গুপ্ত স্থান পেলেও স্থান হয়নি সাধারণ সম্পাদক এম এ গনির। কিন্তু শনিবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের দেয়া সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে দুজনকেই দর্শক সারিতে বসে থাকতে দেখা যায়। এ দেখে অনেক নেতাকর্মীই মন্তব্য করেন- তাহলে কি সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগে অনিল-গনি যুগের অবসান হচ্ছে?

(ঢাকাটাইমস/২২এপ্রিল/ব্যুরো প্রধান/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

প্রবাসের খবর বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত