নৌকা-ধানের শীষের প্রচার যুদ্ধ আজ

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৪ এপ্রিল ২০১৮, ১০:২৪
ফাইল ছবি

খুলনা ও গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের মধ্যে আজ প্রতীক বরাদ্দ দেবে নির্বাচন কমিশন। প্রতীক পাওয়ার পরই প্রার্থীরা প্রচারে নামতে পারবেন। অবশ্য আনুষ্ঠানিক প্রচারের আগেই নানাভাবে ভোটারদের কাছে যাচ্ছেন সম্ভাব্য প্রার্থীরা।

আগামী ১৫ মে এই দুই সিটিতে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। আওয়ামী লীগ, বিএনপি প্রার্থীরা যথাক্রমে নৌকা, ধানের শীষ পাবেন। একইভাবে নিবন্ধিত অন্যান্য দলের প্রার্থীরাও তাদের দলীয় প্রতীক পাবেন। আর স্বতন্ত্র প্রার্থীরা বেছে নিতে পারবেন তাদের পছন্দমত প্রতীক।

সকাল ১০টার দিকে জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হবে।

প্রতীক বরাদ্দের আগেই এই দুই সিটিতে দেখা দিয়েছে উৎসবের আমেজ। প্রার্থী ও তাদের নেতা-কর্মীদের উচ্ছ্বাস-আনন্দে মুখরিত হয়ে উঠেছে দুই নগরী। প্রচারের আগেই ছড়িয়ে পড়েছে নির্বাচনী উত্তাপ, বেড়েছে ভোটারদের কদর।

নির্বাচন দলীয় প্রতীকে হওয়ায় চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছে দেশের বড় দুই দল আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন ১৪ দলীয় জোট ও বিএনপি’র নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোট।

মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন সোমবার খুলনা সিটিতে ৩৯জন কাউন্সিলর প্রার্থী মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেছেন। এর মধ্যে ৩৪ জন সাধারণ কাউন্সিলর এবং পাঁচজন সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর প্রার্থী ছিলেন।

মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের পর এই সিটির ৩১টি ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে ১৪৮ জন এবং সংরক্ষিত ১০টি ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে ৩৮ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন।

তবে কোনো মেয়র প্রার্থী মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেননি। মেয়র পদে যে পাঁচজন প্রার্থী রয়েছেন তারা হলেন, আওয়ামী লীগের মহানগর সভাপতি তালুকদার আব্দুল খালেক, বিএনপির মহানগর সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জু, জাতীয় পার্টির মহানগর সদস্য সচিব এস এম শফিকুর রহমান, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মহানগর সভাপতি মাওলানা মুজাম্মিল হক, সিপিবির মহানগর সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান বাবু।

অন্যদিকে গাজীপুর সিটি নির্বাচনে ৩১জন কাউন্সিলর, সংরক্ষিত ওয়ার্ডে তিনজন নারী কাউন্সিলর এবং মেয়র পদে দুইজন মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেছেন।

মেয়র পদ থেকে গাজীপুর মহানগর জামায়াতে ইসলামীর আমীর ও স্বতন্ত্র প্রার্থী এসএম সানাউল্লা, গাজীপুর মহানগর জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ-ইনু)-এর সভাপতি রাশেদুল হাসান রানা তাদের মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেছেন।

গাজীপুর সিটি নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগ ও বিএনপিসহ মোট সাত প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। এছাড়া সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ৮৪ এবং সাধারণ সদস্য পদে ২৫৬ জন প্রার্থী ১৫মের নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন।

মেয়র প্রার্থীরা হলেন, আওয়ামী লীগ মনোনীত মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম, বিএনপির মো. হাসান উদ্দিন সরকার, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির কাজী রুহুল আমীন, ইসলামী ঐক্যজোটের ফজলুর রহমান, স্বতন্ত্র ফরিদ আহমেদ, বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের মো. জালাল উদ্দিন এবং ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মনোনীত মো. নাসির উদ্দিন।

(ঢাকাটাইমস/২৪এপ্রিল/এমআর)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত