কোটা সংস্কার

‘প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী প্রজ্ঞাপন না হলে ফের আন্দোলন’

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২৬ এপ্রিল ২০১৮, ২২:৪৫ | প্রকাশিত : ২৬ এপ্রিল ২০১৮, ১৫:২৫

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতীয় সংসদে সরকারি চাকরিতে বিদ্যমান কোটা বাতিলের যে ঘোষণা দিয়েছেন তা এ মাসের মধ্যে প্রজ্ঞাপন না হলে আগামী মাস থেকে ফের আন্দোলনে যাবে বলে ঘোষণা দিয়েছে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ।

বৃহস্পতিবার সকালে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ হুঁশিয়ারি দেয় কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেতৃত্ব দেওয়া শিক্ষার্থীদের এ সংগঠন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

এ সময় সংগঠনটির নেতারা শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে হয়রানিমূলক অজ্ঞাতনামা মামলা অবিলম্বে প্রত্যাহারের দাবি জানায়। একইসঙ্গে ২১ এপ্রিল দৈনিক জনকণ্ঠ পত্রিকায় আন্দোলনকারীদের নিয়ে প্রকাশিত প্রতিবদেনকে `সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন ও বানোয়াট’ দাবি করে এর তীব্র নিন্দা জানান তারা। বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টার মধ্যে প্রকাশিত সংবাদের জন্য ক্ষমা না চাইলে ছাত্রসমাজ জনকণ্ঠ পত্রিকা বর্জন করবে বলেও ঘোষণা দেয় সংগঠনের যুগ্ম-আহ্বায়ক বিন ইয়ামিন।

সংবাদ সম্মেলনে সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম-আহ্বায়ক ফারুক হোসেন বলেন, ‘নিয়মানুযায়ী সংসদে প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণার দুই-তিনদিনের মধ্যে প্রজ্ঞাপন জারি হওয়ার কথা। আমরা বিশ্বাস করি প্রধানমন্ত্রীর ব্যস্ততার কারণে সেটি একটু দেরি হচ্ছে। তবে চলতি মাসের মধ্যে এই প্রজ্ঞাপন জারি করা না হলে আগামী মাস থেকে সারা দেশের ছাত্রসমাজ আবারও আন্দোলনে নামবে।’

ঢাবির উপাচার্যের বাসভবনে যারা হামলা চালিয়েছে তাদের বিরুদ্ধে প্রশাসনকে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়ে য্গ্মু-আহ্বায়ক নুরুল হক নূর বলেন, ভিসির বাসভবনে হামলাকারীরা বহিরাগত। তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী নয়। সাধারণ শিক্ষার্থীদের যৌক্তিক আন্দোলনকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে এ হামলা চালানো হয়েছে।’

আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার জন্য ছাত্র-শিক্ষকদের নিয়ে ৩০ এপ্রিল সকল বিশ্ববিদ্যালয়-কলেজে আলোচনা ও মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হবে বলেও ঘোষণা দেন তিনি।

আরেক যুগ্ম-আহ্বায়ক বিন ইয়ামিন বলেন, ২১ এপ্রিল জনকণ্ঠ পত্রিকা ‘টার্গেট সরকার পতন, গুলি চালিয়ে মৃত্যুর গুজব’ শিরোনামে সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন, বানোয়াট প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। এটি আমাদের আন্দোলনকে ভিন্নখাতে নেওয়ার অপচেষ্টা। এর তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। যদি বিকাল ৫টার মধ্যে জনকণ্ঠ ক্ষমা প্রার্থনা না করে তাহলে ছাত্র সমাজ তাদের বর্জন করবে।’

অজ্ঞাতনামা মামলা দিয়ে সাধারণ শিক্ষার্থীদের যেন হয়রানি না করা হয় সে বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের প্রতি দাবিও জানান এ ঢাবি শিক্ষার্থী।

(ঢাকাটাইমস/২৬এপ্রিল/ডিএম)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত