আমৃত্যু মানুষের সেবা করব: দোলন

আলফাডাঙ্গা (ফরিদপুর) প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ০২ মে ২০১৮, ২২:৫৯ | প্রকাশিত : ০২ মে ২০১৮, ২১:৫৯

আমৃত্যু মানুষের সেবা করার অঙ্গীকার করেছেন কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি ও ফরিদপুর-১ আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশী আরিফুর রহমান দোলন।

বুধবার সন্ধ্যায় ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার ডোবরা দরবার শরিফে এক আয়োজনে এ কথা বলেন জেলা আওয়ামী লীগের কার্য নির্বাহী কমিটির সদস্য দোলন।

দাদা হুজুর কেবলা আব্দুল গফুর (রহ.) পীর সাহেবের ওফাত দিবস উপলক্ষে দরবার শরিফ জামে মসজিদে দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথি হয়ে যান দোলন।

আরিফুর রহমান বলেন, ‘আমি আপনাদের কাছে দোয়া চাই। আমি যেন মানুষের সেবায় আমৃত্যু যেন নিজেকে নিয়োজিত রাখতে পারি।’

বরাবর ভালো কাজ করার অঙ্গীকার করে দোলন বলেন, ‘দুনিয়াতে যা ভালো কাজ করব, মৃত্যুর পরে তার ভালো ফল পাব। দুনিয়াতে যা খারাপ করলে, মৃত্যুর পরে তার শাস্তিও পাব।’

‘হাতের পাঁচ আঙ্গুল যেমন সমান নয়, তেমনই সব মানুষও এক রকম নয়। কিন্তু এক জায়গায় আমাদের এক হতে হবে। ভালো কাজে। আমরা যদি ভালো কাজ করি, সত্য কথা বলি, মানুষের ক্ষতি না করি, তাহলে সমাজ এগিয়ে যাবে।’

‘মানুষেরকেউ ধনী, কেউ গরিব। কিন্তু ভালো কাজগুলোতে সবাই এক। এ ভালো কাজগুলোই আমাদের একত্রিত ও ঐক্যবদ্ধ করতে পারে। সবাই মিলে মিশে ভালো কাজ করি, তাহলে আমাদের এ সমাজকে আরো ভালোভাবে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া সম্ভব।’

এই মাদ্রাসাভবনে মোট ২৫টি কক্ষ তৈরি হবে। এর ২২টি এখনও বাকি। এই উন্নয়ন কাজে নিজেকে সম্পৃক্ত করারও ঘোষণা দেন দোলন। বলেন, ‘আমি এখানের উন্নয়নে শরিক হয়েছি। এটা কিন্তু শুরু। ভবিষ্যতেও পাশে থাকব। এই ভালো কাজে যারা শরিক হব, আমি মনে করি তারা সব ভাবেই তার সুফল পাব।’

প্রতিনিধিদেরকে জনগণের ‘চাকর’ হওয়া উচিত বলে মনে করেন এই রাজনীতিক। বলেন, ‘জনপ্রতিনিধি তারা যদি নিজেকে চাকর মনে করে কাজ করতে পারেন, তাহলে জনগণ প্রকৃত সেবা পাবে। কিন্তু, জনপ্রতিনিধিরা যদি নিজেকে মনিব ভাবতে থাকেন, তাহলে জনগণের দুঃখ দুর্দশা দূর হবে না।’

‘আমি যেন এ অঞ্চলের, বিশেষ করে ফরিদপুর-১ এ অঞ্চলের মানুষের সেবা করতে চাই।… এরপর যদি আল্লাহ আমাকে তওফিক দেন, আমি গোটা দেশের সেবা করতে চাই।’

এই ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে বারবার আসার ঘোষণা দিয়ে দোলন বলেন, ‘এটিসহ আরো যেসব ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান আছে, যেগুলোর উন্নয়নে আমি নিজে ব্যক্তিগতভাবে ও সরকারের তহবিল থেকে বরাদ্দ আনার চেষ্টা করব।’

‘বর্তমান সরকার ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নে অর্থ বরাদ্দ করেছে। সে অর্থগুলো তো নিয়ে আসতে হবে। নিয়ে আসতে গেলে দেন দরবারের দরকার আছে।’

‘জনপ্রতিনিধিরা যদি দেন দরবার করে বরাদ্দ না আনেন, তাহলে আমরা সেগুলো আনব। আমাদের সে সুযোগ রয়েছে।’

মাহফিলে উপস্থিত ছিলেন- ফরিদপুর জেলা পরিষদ সদস্য ও জেলা কৃষকলীগের সদস্য সচিব শেখ শহীদুল ইসলাম শহীদ, বোয়ালমারী উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা মনিরুজ্জামান মৃধা লিটন, ডোবরা দরবার শরিফের গদিনসিন পীর শাহ্ মুহাম্মাদ খালিদ বিন নাছের, পীরজাদা মাওলানা মো. তিবিয়ান সিদ্দিকী প্রমুখ।

এর আগে আরিফুর রহমান দোলন দরবার শরিফে কবর জেয়ারত করেন।

ঢাকাটাইমস/০২মে/প্রতিনিধি/ইএস/ডব্লিউবি

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজপাট বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত