খাদ্যের চেয়ে প্রিয় গাছের পাতা!

শফিকুল ইসলাম জীবন
| আপডেট : ২১ মে ২০১৮, ১৮:১৩ | প্রকাশিত : ২১ মে ২০১৮, ১৭:১২

তাদের জীবন জুড়ে আছে কাত বা খাত নামের একটি গাছের পাতা। এটি এমনই জনপ্রিয় যে, খাবারের মেন্যুতে এই পাতার ব্যবস্থা না থাকলে বিয়েবাড়িতে অতিথি আসে না, বরযাত্রায় পাওয়া যায় না কাউকে। মজাদার খাবারের চেয়েও প্রিয় এই কাত পাতা।

বিদেশে পড়াশোনা বিষয়ক একটি পরামর্শক প্রতিষ্ঠানের সিইও শফিকুল ইসলাম জীবনের ফেসবুক স্ট্যাটাস থেকে এমনটাই জানা গেল। চলুন স্ট্যাটাসটি পড়ে নিই-

‘ইয়েমেন! মধ্যপ্রাচ্যের বুকে অত্যন্ত দরিদ্র এবং যুদ্ধবিধস্ত দেশ। চলছে গৃহযুদ্ধ। তার ওপর আছে মার্কিন মদদপুষ্ট সৌদি আগ্রাসন। দেশটি সম্পর্কে জানতে গিয়ে দেখলাম, সেখানকার ৯০ ভাগ মানুষ ‘কাত’ বা ‘খাত’ নামক একটি গাছের পাতা না চিবিয়ে একটা মুহূর্ত থাকতে পারে না।

কোমরের এক পাশে থাকে ড্যাগার। আরেক পাশের থলিতে বা হাতে মুঠোভরা সেই পাতা। মুখের এক পাশ ছাগলের মতো টম মেরে থাকে। খাদ্যের চেয়ে পাতাই তাদের বেশি প্রিয়।

বিয়েবাড়ির মেন্যুর প্রধান আকর্ষণ থাকে এই পাতা। অতিথিদের সামনে বেশ যত্ন করে পাতা ছড়িয়ে-ছিটিয়ে রাখা হয়। অতিথিরা কারও বিয়ের অনুষ্ঠানে যোগ দেয়ার আগে খোঁজ নেন, কাত পাতার সরবরাহ ঠিক আছে কি না। যদি সেটা না থাকে, ভাড়া করেও বরযাত্রী পাওয়া যাবে না। বিয়েতে যাতে আত্মীয়স্বজন ঠিকমতো আসেন এবং সময়মতো উপস্থিত থাকেন, সে জন্য পাত্র-পাত্রীর পক্ষ থেকে আগেই প্রচার করা হয় পর্যাপ্ত পাতার ব্যবস্থা আছে।

শ্বশুর-শাশুড়ি কাঁধে এক ঝাড় পাতা না নিয়ে জামাইয়ের বাড়ির কথা ভাবতেই পারেন না। মিষ্টির প্যাকেটের পরিবর্তে আত্মীয়রা মাথায় বস্তা ভর্তি আনেন সেই পাতা।

এই পাতার চাহিদার কারণে ইয়েমেনের কৃষকরা শতকরা নিরাব্বই ভাগই এখন কাত পাতার চাষে মগ্ন। তাদের জীবন-জীবিকার প্রধান উৎস হলো কাতপাতা। বাজারগুলোতে যেকোনো ফল ও শাকসব্জির চেয়ে কয়েক গুণ বেশি দামে বিক্রি হয় কাতপাতা।...

(একজনের কমেন্টের জবাব) এটাকে ইদানীং ড্রাগ বলা হচ্ছে। তবে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলেছে, এটা মানবদেহের জন্য তেমন ক্ষতিকর নয়। তবে ইয়েমেনের মানুষের দাবি, এটা খেলে তারা মানসিকভাবে প্রফুল্ল থাকে। মন-মেজাজ ফুরফুরে থাকে এবং কাজে-কর্মে বল পাওয়া যায়। পুরুষরা কেউ কেউ মনে করেন, এটা মুখে পুরে রাখলে অনেক নারী তাদের পছন্দ করে এবং পুরুষদের দেখতে সুন্দর লাগে। কোমরে ড্যাগার আর মুখের এক পাশ কাতপাতা ভরে ফুলিয়ে রাখলে নাকি বীর পুরুষই মনে হয় তাদের।’

(ঢাকাটাইমস/২১মে/মোআ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

নির্বাচিত খবর বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত