বেশি দামে বিক্রির দায়ে জরিমানা

ফরিদপুর প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২১ মে ২০১৮, ২৩:২৮ | প্রকাশিত : ২১ মে ২০১৮, ১৮:২৪
ফরিদপুরের ভ্রাম্যমাণ আদালতের ভেজালবিরোধী অভিযান (ফাইল ছবি)

ফরিদপুরে বেশি দামে সবজি ও ফল বিক্রির দায়ে দুই ব্যবসায়ীকে জরিমানা করেছেন আদালত। এছাড়া মূলের লেবেল না থাকা ও পচা দুধ রাখার দায়ে দুই মুদী ব্যবসায়ীসহ সর্বমোট চার ব্যবসায়ীকে ছয় হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

সোমবার বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত ফরিদপুর শহরের অলীমাজ্জামান সেতু এলাকা, ময়ড়া পট্টি ও তিতুমীর বাজার দুই নম্বর গেট সংলগ্ন ফলপট্টি এলাকায় পরিচালিত এ অভিযানে নেতৃত্ব দেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর ফরিদপুর জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. নাজমুল হাসান।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, আলীমুজ্জামান সেতু সংলগ্ন কাঁচা সবজি বিক্রেতা মো. জামান অতিরিক্ত দামে বেগুন বিক্রি করায় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনে ওই ব্যবসায়ীকে দুই হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

এ আদালতের অন্যতম সদস্য জেলা বাজার কর্মকর্তা সাহাদাত হোসেন জানান, ওই বিক্রেতা গোল বেগুন পাইকারি ৬০ টাকা কেজি দরে কিনে ৮০ টাকা কেজি দরে বিক্রি করছিলেন। তিনি বলেন, ২০১৫ সালের কৃষি বিপণন অধিপ্তরের যৌক্তিক মূল্য অনুযায়ী কোন খুচরো বিক্রেতা বেগুন, শশা জাতীয় কোন কাঁচা সবজি ২০ থেকে ২৫ ভাগ এর বেশি মূল্য নিতে পারেন না। সে ক্ষেত্রে ওই ব্যবসায়ী ৬০ টাকা কেজি দরে বেগুন কিনলে তা ৭৫ টাকা কেজি দরের বেশ বিক্রি করার কথা নয়। এজন্য ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনের ৪০ ধারায় তাকে জরিমানা করা হয়।

আদালত তীতুমীর বাজার দুই নম্বর গেট সংলগ্ন ফল বিক্রেতা মেসার্স মাস্টার ফল ভান্ডারের মালিক মুরাদ খানকে এক হাজার টাকা জরিমানা করেন। মুরাদ খান দোকানে সংরক্ষিত মূল্য তালিকার চেয়ে বেশি দামে ফল বিক্রি করায় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ ধারায় এ জরিমানা করেন।

এছাড়া আদালত ঘি এর কৌটার গায়ে লেবেল না থাকায় ময়ড়া পট্টি এলাকার মুদী ব্যাবসায়ী মসার্স রিয়া স্টোরের সত্ত্বাধিকারী সিদ্দিকুর রহমানকে এক হাজার টাকা জরিমানা করেন।

একই এলাকার মুদী ব্যবসায়ী মেসার্স লিংক এন্টার প্রাইজের সত্ত্বাধিকারীকে বৈদ্যুতিক সংযোগ বিহিন ফ্রিজে ৪০ কেজি গাভীর দুধ রাখায় ভোক্তা অধিকার আইনের ৫১ ধারায় দুই হাজার টাকা জরিমানা করেন। পরে ওই ৪০ কেজি দুধ পাশের কুমার নদে ফেলে দেয়া হয়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর ফরিদপুর জেলা কার্যালয় এর সহকারী পরিচালক মো. নাজমুল হাসান বলেন, রমজান মাসের পবিত্রতা রক্ষার জন্য খোলা বাজারে ভেজাল ও দ্রব্যমূল্য বিরোধী এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

এ সময় জেলা ক্যাবের সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হাসান ভ্রাম্যমাণ দলের সদস্য হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

(ঢাকাটাইমস/২১মে/প্রতিনিধি/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
Close