দীনেশ, প্রাণভরা আশীর্বাদ

মনদীপ ঘরাই
 | প্রকাশিত : ২৫ মে ২০১৮, ১৬:৩৫

জীবনটা বড় অদ্ভুত। আজ এই লেখাটা যখন লিখছি, তখনও কি জীবনের সাথে চাওয়া-পাওয়ার হিসেবটা মিটেছে? মেটে নি। মেটে না কখনও। আমাদের তুষ্ট হবার ভাগটা কম। হতাশাটাই বেশি। কি না পেলাম ভাবতে ভাবতেই একদিন হারাবার পথ রওনা হতে হয়।

চলার পথে তাই খুঁজি প্রেরণা বা ইংরেজিতে বললে মোটিভেশন। কারোর মুখের কথায় যখন মোটিভেশন খুঁজছি জীবন সংগ্রামে উতরে যাবার জন্য, তখন এই নগরীতেই কোনো এক মেসের ছোট্ট রুমে বসে জীবনের দিকে তাকিয়ে হাসছে দীনেশ।

পরশু রাতে ছোট ভাই জিসানের মেসেঞ্জারে নক “দাদা, দিনেশ…”

আজ সকালে ওর অপেক্ষাতেই ছিলাম অফিসে। আর পাঁচটা কলেজের ছাত্রের মতই আধো পরিণত ভাব। নটরডেম কলেজে পড়ে।

দীনেশ ত্রিপুরা। বাবা জোতির্ময় ত্রিপুরা অটো চালান নিজভূম খাগড়াছড়িতে। ওখানেই দীনেশের বেড়ে ওঠা। ক্লাস সেভেনে বঙ্গবন্ধু বৃত্তিও পেয়েছিল ছেলেটি। তারপর গাজীপুরে একটা মিশন স্কুলে। সনাতন ধর্ম ছেড়ে খ্রিষ্টান। বড় পরিবর্তন বটে। তবে এ তো কেবল শুরু।

প্রশ্ন আসে নি মনে? তিন ভাইবোনের লেখাপড়ার খরচ কিভাবে চালাতেন বাবা? পেড়ে ওঠেননি বলেই ক্লাস এইট থেকে মাঠে গরু চড়াতে হতো দীনেশকে। পড়াশোনার পাশাপাশি। একটা-দুটো নয়, ছয়টা গরু। এভাবেই কাটে ক্লাস টেন পর্যন্ত। তারপর দায়িত্ব হয় স্কুলের ঘন্টা বাজানোর। ভোর সাড়ে পাঁচটা থেকে শুরু। সন্ধ্যা পর্যন্ত চলতো এ কাজ।

হাড়ভাঙ্গা খাটুনি বা অর্থকষ্টের পরেও থামে নি দীনেশ। এসএসসিতে ৪.২৭। তারপর নটরডেমে চান্স। এবার সেকেন্ড ইয়ারে উঠেছে ও।

জীবনের খেলার ধরণই তো এই। রোজ রোজ নতুন চ্যালেঞ্জ। এ মাসে পড়ার খরচটা চালাতে কষ্টই হচ্ছিল বেশ। জিসান রাতে সে কথাই জানিয়েছিল ম্যাসেঞ্জারে। নিজের সাধ্যমতো পাশে থেকেছি।একদিনের বেতনের সমান অর্থের বেশি সাধ্য আমার নেই। তবে, দ্ব্যর্থহীনভাবে জানিয়েছি, ঠিকভাবে পড়াশোনা করলেই কেবল পাশে পাবে আমাকে।

দীনেশ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার স্বপ্ন দেখে। আজ থেকে সে স্বপ্নটা আমারও। ভাগ্যিস, স্বপ্ন কেনা যায় না। অর্জন করে নিতে হয়। না হলে এমন সংগ্রামী স্বপ্নের বিকিকিনি হয়ে যেত অনেক আগেই।

প্রাণভরা আশীর্বাদ অনুজ দীনেশ। আর জিসানের প্রতি রইলো শুভাশীষ।

মনের মধ্যে দীনেশের দু’বছর আগের বাজানো ঘন্টাটা ক্ষণে ক্ষণেই বেজে চলছে। ছুটির ঘন্টা।

মনদীপ ঘরাই: সিনিয়র সহকারী সচিব, বাংলাদেশ সরকার

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

ফেসবুক কর্নার বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত