ভালো লিচু পেতে আরো তিন-চার সপ্তাহ অপেক্ষা

মানিক হোসেন, চিরিরবন্দর (দিনাজপুর)
 | প্রকাশিত : ২৭ মে ২০১৮, ১৮:২১

মধু মাস গ্রীষ্মকালে লিচু বাগানে গাছে গাছে লিচুর ব্যাপক সমারোহ ও পাকা লিচুর গন্ধে দিনাজপুরের চিরিরবন্দর এখন মুখরিত। মৌমাছিরা লিচুর ঘ্রাণ নিতে বাগানে ভোঁ ভোঁ শব্দে লিচু গাছের এ ডাল থেকে ও ডালে উড়ছে। এ অঞ্চলের সুস্বাদু বেদেনা লিচু জ্যৈষ্ঠ মাসেই বাজারে উঠবে। বর্তমানে দেশি প্রজাতির মাদ্রাজি লিচু বাজারে উঠছে। দেশি প্রজাতির বোম্বে ও অন্যান্য লিচু বাজারে উঠার অপেক্ষায় রয়েছে।

এবারে চিরিরবন্দরে গড়ে উঠেছে প্রায় ১২শত লিচু বাগান। বাগানগুলোতে প্রতি বছর খরচ হয় না এবং অল্প পরিচর্যায় প্রতি বছর মোটা অঙ্কের অর্থ আয় হয় বলে অনেকেই লিচুর বাগান করেছেন।

চলতি বছর চিরিরবন্দর উপজেলায় ৫ শত ১০ হেক্টর জমিতে লিচুর চাষ করা হয়েছে।

এই মুহূর্তে উপজেলার লিচু বাগানগুলোতে লিচু পাকতে শুরু করেছে। বাগানগুলোতে লেগেছে লাল-সবুজের রঙ্গিন ছোঁয়া। এই অপরূপ দৃশ্যে দেখে সকলেরই প্রাণ জুড়িয়ে যায়। আগামী ৩-৪ সপ্তাহের মধ্যেই  ধুম পড়বে লিচু তোলা। সেই সাথে বাজারে আসবে টসটসে মিষ্টি স্বাদের লোভনীয় লিচু।

লিচু ব্যবসায়ী আব্বাস আলী জানান, সামান্য পরিমাণে মাদ্রাজি লিচু এখন বাজারে পাওয়া গেলেও আগামী ৩-৪ সপ্তাহের মধ্যে পুরো দমে বাজারে আসতে শুরু করবে লিচু। এবারে ভাল ফলনের আশাবাদী তিনি।

তিনি আরো জানান, কয়েক দিনের বৃষ্টিতে সামান্য ক্ষতি হলেও বড় ধরনের প্রাকৃতিক দুর্যোগ না হলে মুনাফা ভাল হবে। শুরুতেই প্রতিশ লিচু ২০০ থেকে ৪০০ টাকা পযন্ত বিক্রি হতে পারে। তবে বেদনা ও চাইনা থ্রি জাতের লিচু গতবারের তুলানায় দাম বেশি হবে বলে তিনি জানান। যা বাজারে আসতে আরো খানিকটা সময় লাগবে।

পাইকাররা প্রতি বছর এখান থেকে লিচু কিনে ঢাকা, চট্টগ্রাম ও সিলেটসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় বাজারজাত করে থাকে। অন্যান্য এলাকার লিচুর দিনাজপুরের লিচুর স্বাদ আলাদা হওয়ায় দেশের বিভিন্ন এলাকার লোকজন এসে ভিড় জমায় লিচু কেনার জন্য। গাছে মুকুল আসার আগেই গাছের মালিককে অগ্রিম টাকা দিয়ে লিচু গাছ কিনে নিয়ে যায় স্থানীয় ব্যাপারীরা।

(ঢাকাটাইমস/২৭মে/প্রতিনিধি/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত