ফোনেই প্রফেশনাল ক্যামেরা

বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১২ জুন ২০১৮, ১৩:১০

সম্প্রতি বাজারে এসেছে চীনের হ্যান্ডসেট নির্মাতা প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ের নতুন ফোন। হুয়াওযে পি ২০ লাইট মডেলের এই ফোনটি মিডরেঞ্জ ঘরানার ফোন।

হুয়াওয়ের এই ফোনটি তৈরিতে বডি ও বিল্ট কোয়ালিটিতে আপোস করেনি। ফ্রেমে অ্যালুমিলিয়ামের মতো প্রিমিয়াম মেটালের ব্যবহার এই ফোনের সৌন্দর্য অনেকটাই বাড়িয়ে দিয়েছে। যদিও যেখানে ফ্রন্ট ও ব্যাক প্যানেলটি মিশেছে সেখানে অ্যালুমিনিয়াম ফ্রেমের ফলে ফোনটি ধরতে একটু অসুবিধা হচ্ছে। বিশেষ করে আঙ্গুল দিয়ে স্ক্রিনের অপর প্রান্তে পৌঁছাতে সমস্যা হচ্ছে এই কারণেই।

পি ২০ লাইটে থাকছে ৩.৫ মিমি হেডফোন জ্যাক। এছাড়াও এতে আছে আছে মাইক্রো এসডি কার্ড সাপোর্ট। এই দুটি ফিচারই আজকাল অনেক দামি ফোনেও দেখা যায় না। এতে প্রিলোডেড থাকবে অ্যানড্রয়েড ওরিও। যদিও এর উপরেই চলবে কোম্পানির নিজস্ব ইএমইউআই ৮.০। ফলে আপনি যদি স্টক অ্যানড্রয়েড ব্যবহারে অভ্যস্ত হন তবে এই ফোনের সঙ্গে মানিয়ে নিতে কিছুদিন সময় লেগে যাবে।

ডিসপ্লে
পি ২০ লাইটে রয়েছে একটি ৫.৮৪ ইঞ্চির আইপিএস এলসিডি ডিসপ্লে। ডিসপ্লের উপরে মাঝে রয়েছে একটি কালো নচ। এই নচের মধ্যেই রয়েছে কথা স্পিকার, ফ্রন্ট ক্যামেরা আর প্রক্সিমিটি সেন্সর। আপনি যদি অ্যামোলেড স্ক্রিনের ব্যবহারে অভ্যস্ত হোন হবে হবে পি ২০ লাইট হতাশ করবে আপনাকে।

প্রসেসর
পি ২০ লাইটে আছে মিডরেঞ্জ কিরিন ৬৫৯ প্রসেরর। প্রায় এক বছরের পুরনো এই প্রসেসর। এই প্রসেসর স্যাপড্রাগন ৬৩০ এর সমতুল্য। যদিও স্ন্যাপড্রাগনের পার্ফমেন্স কিরিনের প্রসেসরের থেকে ভালো। তবে প্রতিদিনের ব্যবহারে খুব একটা তফাত বোঝা যাবে না প্রসেসিং পাওয়ারে।

ক্যামেরা
ফোনটিতে রয়েছে ডুয়েল রিয়ার ক্যামেরা। ১৬ মেগাপিক্সেল সেন্সর ও ২ মেগাপিক্সেল সেকেন্ডারি সেন্সর দিয়ে তৈরি এই ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরা সেট আপ। এই সেকেন্ডারি ক্যামেরাটি ছবির ডেপথ মাপার কাজে ব্যাবহার হয়। ফলে এই ক্যামেরায় পাওয়া যাবে ডিএসএলআর এর মতো ব্যাকগ্রাউন্ড ব্লার। যদিও ফোরকে রেকডিংয়ের ব্যবস্থা নেই নতুন পি ২০ লাইটে। ফুল এইচডি ভিডিও তোলা যাবে এই ক্যামেরা দিয়ে। লেইকা লেন্সের কারনণ ছবির গুণগত মান অবশ্যই ভালো এবং অপটিকাল জুম ব্যবহার করা যাবে এই ফোনের ক্যামেরায়।

এছাড়াও এই ফোনের সামনে রয়েছে ১৬ মেগাপিক্সেল ফেলফি ক্যামেরা। লো লাইটে দারুন ছবি তোলা সম্ভব এই সেলফি ক্যামেরা দিয়ে।

ব্যাটারি
পি ২০ লাইটে আছে ৩০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার আওয়ারের ব্যাটারি। যা ফোনে সাধারণ মাপের ব্যাক আপ দিতে সক্ষম। খুব ভালো ব্যাটারি ব্যাক আপ আশা করলে পি ২০ লাইট হতাশ করবে আপনাকে। সাধারণ ব্যাবহারে মাত্র ৯ ঘন্টা ব্যাক আপ পাওয়া গেছে এই ফোনে। কুইক চার্জিং এর সাপোর্ট নেই এই ফোনে। ফোনটি ফুল চার্জ হতে সময় লেগে যায় ২ ঘন্টা ৪০ মিনিট।

(ঢাকাটাইমস/১২জুন/এজেড)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত