নিহত নয় তরুণের দাফন, নীলফামারীতে শোকের মাতম

নীলফামারী প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৮ জুন ২০১৮, ১৭:১১

সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত নীলফামারীর নয়জনকে দাফন করা হয়েছে নিজ নিজ এলাকায়। সোমবার দুপুরে জানাজা শেষে তাদের দাফন করা হয়।নিহতরা সবাই নীলফামারী সদর উপজেলার চওড়া বড়গাছা ইউনিয়নের নতিবাড়ি ও আরাজি দলুয়া এবং গোড়গ্রাম ইউনিয়নের।

তারা হলেন- চওড়া বড়গাছা ইউনিয়নের নতিবাড়ি কাঞ্চনপাড়া গ্রামের রুবেল হোসেন (২৮), কোবাদ আলীর ছেলে শামীম হোসেন (২২), আনারুল ইসলামের ছেলে রাব্বী (১৪), নতিবাড়ি ধোপাডাঙ্গা এলাকার অভিয়ার রহমানের ছেলে খায়রুল ইসলাম (১৯), আরাজি দলুয়া এলাকার আব্দুল হান্নানের ছেলে ময়নুল হোসেন (২০), আব্দুর রশিদের ছেলে ডালিম (১৯) ও হাফিজুল ইসলামের ছেলে মাজেদুল ইসলাম (১৪) এবং মিজানুর রহমান।

চওড়া বড়গাছা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন জানান, ঈদের আনন্দ উপভোগের জন্য পিকআপ ভাড়া করে ২৮ জন তরুণ দিনাজপুর জেলার বিনোদন কেন্দ্র স্বপ্নপুরিতে যায়।

রাতে ফেরার পথে সৈয়দপুরের বাইপাস সড়কের ধলাগাছ এলাকায় বিপরীত দিক থেকে আসা ঢাকাগামী নৈশকোচ পিকআপটিকে ধাক্কা দিলে ঘটনাস্থলে আটজন এবং হাসপাতালে নেয়ার পথে আরো একজন মারা যায়। এছাড়া আহত হয় ১৪ জন। তাদের মধ্যে ৮ জনকে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়।

তিনি জানান, নিহতদের মধ্যে চওড়া বড়গাছা ইউনিয়নেরই সাতজন। বাকি একজন গোড়গ্রাম এবং অপরজনের পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

প্রত্যক্ষদর্শী চওড়া বড়গাছা ইউনিয়নের নতিবাড়ি কাঞ্চনপাড়া গ্রামের তরিকুল ইসলাম জানান, আমরা ছয় হাজার টাকায় পিকআপটি ভাড়া নিয়ে স্বপ্নপুরিতে গিয়েছিলাম। সন্ধ্যার পর বাড়ি ফেরার পথে ঘটনাস্থলে নৈশকোচের সাথে সংঘর্ষ হলে হতাহতের ঘটনা ঘটে। ভাগ্যক্রমে আমি বেঁচে  যাই। যারা মারা গেছেন তারা সবাই ১৫-২০ বছরের। ছাত্র কিংবা কৃষি কাজ করে।

পুলিশ সুপার মুহাম্মদ আশরাফ হোসেন জানান, ঘটনাস্থলে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী ও ফায়ার সার্ভিস সিভিল ডিফেন্সের সদস্যরা হতাহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়।

গুরুত্বর আহত আটজনকে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

সোমবার ভোরে পুলিশ নিহতদের মৃতদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করে। সকাল থেকে দাফনের প্রক্রিয়া শুরু করেন স্থানীয়রা। মৃতদেহ পৌঁছানো হলে সেখানে শোকের মাতম শুরু হয়।

জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ খালেদ রহীম জানান, নিহত ও আহতদের জন্য সরকারিভাবে সহায়তার উদ্যোগ নেয়া হবে। পরিবারের কাছে সহায়তা পৌঁছে দেয়া হবে।

মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে তিনি বলেন, আগামীতে যাতে এরকম দুর্ঘটনা না ঘটে সেজন্য প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে।

(ঢাকাটাইমস/১৮জুন/প্রতিনিধি/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত