জেনেভা ক্যাম্পে মাদকবিরোধী অভিযানে আটক ৫১

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২০ জুন ২০১৮, ১৪:১৪ | প্রকাশিত : ২০ জুন ২০১৮, ১৪:০৬

রাজধানীর মোহাম্মদপুর জেনেভা ক্যাম্পে আবারও মাদকবিরোধী অভিযান চালিয়েছে পুলিশ। প্রায় আড়াই ঘণ্টার অভিযানে সন্দেহভাজন ৫১ জনকে আটক করা হয়েছে। তবে মাদকের সঙ্গে জড়িত ‘রাঘববোয়ালরা’ এবারও ফসকে গেছে বলে অভিযোগ স্থানীয়দের।

বুধবার সকালে এই অভিযান চালায় ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)। মোহাম্মদপুর জোনের এডিসি ওয়াহিদুল ইসলামের নেতৃত্বে অভিযানে অংশ নেন মোহাম্মদপুর, আদাবর থানা পুলিশসহ বিপুল পরিমাণ পুলিশ সদস্য। মহানগর গোয়ান্দা পুলিশ (ডিবি) ও কে-৯ ডগ স্কোয়াডের একাধিক দলও অভিযানে অংশ নেয়।

সকাল সাড়ে দশটা থেকে শুরু হওয়া অভিযান চলে দুপুর একটা পর্যন্ত। আড়াই ঘণ্টার অভিযানে পুলিশ জেনেভা ক্যাম্প থেকে উদ্ধার করেছে বিপুল পরিমাণ ইয়াবা। পুলিশের তেজগাঁও বিভাগের মোহাম্মদপুর জোনের এডিসি ওয়াহিদুজ্জামান সাংবাদিকদের বলেন, ‘মাদকবিরোধী অব্যাহত অভিযানের অংশ হিসেবে আমরা এই অভিযান পরিচালনা করেছি। অভিযানে আমরা ৫১ জনকে সন্দেহভাজন হিসেবে আটক করেছি। পরবর্তী যাচাই বাছাই শেষে এদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এছাড়াও আমরা ৭০০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করেছি।’

স্থানীয়দের অভিযোগ, অভিযানের আগেই জেনেভা ক্যাম্পের মাদক বিক্রেতাদের তা জানিয়ে দেয়া হয়। অভিযানের আগাম বার্তা পেয়ে মাদক কারবারিরা পালিয়েছে এবং পুলিশ যাদের গ্রেপ্তার করেছে, তাদের বেশির ভাগই মাদকের সঙ্গে সম্পৃক্ত নয়। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এডিসি বলেন, ‘এভাবে কাউকে কিছু জানানো হয়, এমন কিছু হতে পারে না। কারণ, অভিযানের বিষয়ে আমরাও আগে থেকে কিছু জানতাম না।’

জেনেভা ক্যাম্প সূত্র জানায়, মোহাম্মদপুর থানা থেকে একটি পুলিশ কমিটি করা হয়েছে জেনেভা ক্যাম্পে। কমিটির সদস্যরাও ইয়াবা বিক্রির সঙ্গে জড়িত। এই কমিটির সদস্যরাই অন্যান্য ইয়াবা কারবারিদের আগে থেকেই অভিযানের তথ্য দিয়ে থাকেন।

অভিযানের সময় একটি তিন তলা ভবনের তালা ভেঙে বাড়িতে তল্লাশি চালায় পুলিশ। স্থানীয়রা জানায়, বাড়ির মালিক রাজু। অভিযানের আগাম তথ্য পেয়ে গতকাল রাতেই বাসা ছেড়ে গেছেন তিনি।

স্থানীয় সূত্র আরও জানায়, রাজু জেনেভা ক্যাম্পের অন্যতম ইয়াবা বিক্রেতা ইশতিয়াকের ভাই। অভিযানে গ্রেপ্তার হওয়া আলী আজগর, শাহাজাদা, মানিক, সুমনদের পরিবার ঢাকাটাইমসকে অভিযোগ করে, তাদের বিনা কারণে আটক করা হয়েছে।

সুমনের মা ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘আমার ছেলে সিএনজি ঠিক করে। ঘুমাইয়া ছিল। ঘুম থেকে উঠাইয়া নিয়া গেছে। আমার ছেলে খায়ও না, বেচেও না।’

এর আগে রমজানে জেনেভা ক্যাম্পে র‌্যাব একটি মাদকবিরোধী অভিযান চালায়। অভিযানে গ্রেপ্তার হয় বেশ কয়েকজন মাদক বিক্রেতা। উদ্ধার করা হয় বিপুল পরিমাণ ইয়াবা। তবে স্থানীয়দের অভিযোগ, তখনও হাত ফসকে বেরিয়ে যায় জেনেভা ক্যাম্পের মাদকের রাঘব বোয়ালরা।

(ঢাকাটাইমস/২০জুন/কারই/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজধানী বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত