বগুড়া পৌরসভার কাউন্সিলর মোস্তাকিম বরখাস্ত

বগুড়া প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২০ জুন ২০১৮, ২১:১১

বগুড়া পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর, যুবলীগ নেতা মোস্তাকিম রহমানকে কাউন্সিলর পদ থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে। গত ১৪ জুন স্থানীয় সরকার বিভাগের পৌর-১ শাখার উপ-সচিব আব্দুর রউফ মিয়া স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে কাউন্সিলর মোস্তাকিম রহমানকে সাময়িক বরখাস্তের কথা জানানো হয়।

বগুড়া পৌরসভার সচিব ইমরোজ মুজিব বরখাস্তের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। বুধবার তারা প্রজ্ঞাপনটি হাতে পেয়েছেন বলে জানান তিনি।

বরখাস্তের আদেশ সংক্রান্ত সরকারি ওই প্রজ্ঞাপনে ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোস্তাকিম রহমানের বিরুদ্ধে একাধিক মামলার কথা উল্লেখ করা হয়েছে। এর মধ্যে হত্যা এবং অস্ত্র আইনের দুটি মামলার তথ্য দিয়ে বলা হয়েছে, উভয় মামলারই অভিযোগপত্র আদালতে গৃহীত হয়েছে এবং একটি মামলা সাক্ষ্যগ্রহণের পর্যায়ে রয়েছে। প্রজ্ঞাপনে তাকে বরখাস্তের কারণ ব্যাখ্যা করতে গিয়ে বলা হয়েছে, ‘মামলার আসামি মোস্তাকিম রহমান ওয়ার্ড কাউন্সিলর হিসেবে দায়িত্ব পালন করলে পৌরসভায় কর্মরত কর্মকর্তা ও কর্মচারী এবং পৌরসভার সেবা গ্রহণকারী সাধারণ নাগরিকদের মধ্যে আতঙ্ক ও ভীতির সঞ্চার হতে পারে এবং গুরুত্বপূর্ণ সাক্ষীদের সাক্ষ্য প্রভাবিত হওয়ার যৌক্তিক আশঙ্কা রয়েছে। এ প্রেক্ষিতে তার ক্ষমতা প্রয়োগ পৌরসভার স্বার্থের পরিপন্থি এবং জনপ্রতিনিধি হিসেবে জনসেবায় নিয়োজিত থাকা প্রশাসনিক দৃষ্টিকোণে সমীচীন নয়, তাই জনস্বার্থ বিবেচনায় তাকে কাউন্সিলরের পদ থেকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা প্রয়োজন।’

যুবলীগ বগুড়া শহর কমিটির দপ্তর সম্পাদক এবং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোস্তাকিম রহমানের বিরুদ্ধে সর্বশেষ চলতি বছরের ২৯ মার্চ বগুড়া পাসপোর্ট অফিসের তৎকালীন সহকারী পরিচালক সাহজাহান কবিরকে হত্যার চেষ্টা চালানোর অভিযোগে মামলা হয়। সরকারি কর্মকর্তার ওপর সশস্ত্র হামলার ওই ঘটনায় পুরো জেলাজুড়ে তোলপাড় সৃষ্টি হয়। বিভিন্ন দপ্তরে কর্মরত সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীরা বিক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন এবং তারা ওই ঘটনার বিচার চেয়ে সে সময় কালো ব্যাজও ধারণ করেছিলেন। তবে ওই হামলার পরপরই অভিযুক্ত ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোস্তাকিম রহমান ভারতে পালানোর চেষ্টা চালান। অবশ্য সীমান্ত পাড়ি দেবার আগেই পুলিশ গত ৩০ মার্চ তাকে চার সহযোগীসহ দিনাজপুরের হিলি সীমান্ত থেকে গ্রেপ্তার করে। এর পরপরই স্থানীয় সরকার বিভাগ থেকে তাকে বরখাস্তের উদ্যোগ নেয়া হয়।

এজন্য জেলা প্রশাসকের দপ্তর থেকে মোস্তাকিম রহমানের বিরুদ্ধে চলমান সবগুলো মামলার হালনাগাদ তথ্য চাওয়া হয়। তথ্যগুলো পাওয়ার পর চলতি বছরের এপ্রিলের শেষ দিকে তাকে স্থানীয় সরকার বিভাগ থেকে কারণদর্শানো নোটিশ জারি করা হয়। চাঞ্চল্যকর ওই মামলায় বেশ কিছুদিন কারাগারে আটক থাকার পর বর্তমানে তিনি জামিনে মুক্ত রয়েছেন।

বগুড়া পৌরসভার মেয়র অ্যাডভোকেট একেএম মাহবুবর রহমান প্রজ্ঞাপন পাওয়ার কথা স্বীকার করে বলেন, প্রজ্ঞাপনটি জারির দিন থেকেই ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোস্তাকিম রহমানের সাময়িক বরখাস্তের আদেশ কার্যকর হয়েছে।

(ঢাকাটাইমস/২০জুন/প্রতিনিধি/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত