তথ্য লুকোচুরিতে চীন সফর বাতিল মমতার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৩ জুন ২০১৮, ১০:৩৭

নির্ধারিত সময়ের কয়েক ঘন্টা আগে চীন সফর বাতিল করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী। শুক্রবার রাতে চীন সফরে যাওয়ার কথা ছিলো মমতার। কিন্তু বিকেলে সংবাদ সম্মেলন করে রাজ্য সরকারের অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র ও মুখ্যসচিব মলয় দে মুখ্যমন্ত্রীর সফর বাতিলের বিবৃতি পড়ে শোনান।

বিবৃতিতে মমতা বলেন, 'গত মার্চে বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ আমাকে একটি প্রতিনিধি দল নিয়ে চীন যাওয়ার প্রস্তাব দেন। আমি তা গ্রহণ করেছিলাম। শেষ পর্যায়ে এসে বেইজিংয়ে রাজনৈতিক বৈঠকগুলি যথাযথ স্তরে হওয়ার ব্যাপারে চীন সরকারের তরফে কোনও নিশ্চয়তা মেলেনি। এমন পরিস্থিতিতে সফরের কোনও মানেই হয় না।'

অমিত মিত্র বলেন, 'আমাদেরও একটা মান-মর্যাদা আছে। সেটাই সর্বাগ্রে মাথায় রাখা হয়েছে।'

শুক্রবার রাতে চীনের কলকাতাস্থিত উপদূতাবাসের তরফে এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, 'মুখ্যমন্ত্রীর সফরসূচি চূড়ান্ত করতে চীন আপ্রাণ চেষ্টা করছিল। যে সময় এই সফর বাতিলের কথা ঘোষিত হয়েছে, তখনও গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকগুলির ব্যাপারে চীনের চেষ্টায় খামতি ছিল না। ভারতীয় দূতাবাসের সঙ্গে যোগাযোগও রাখা হচ্ছিল।'

তবে চীনের এই বিবৃতির পর বিস্মিত হয়েছে মমতার প্রশাসনের উর্ধ্বতন ব্যক্তিরা। তাদের বক্তব্য, মুখ্যমন্ত্রী বিমানে ওঠার কয়েক ঘণ্টা আগেও বৈঠকসূচি চূড়ান্ত করার ব্যাপারে 'চেষ্টা' করা অর্থহীন। কারণ, এই ধরনের সফরের পুঙ্খানুপুঙ্খ অনেক আগেই ঠিক হয়ে যাওয়ার কথা।

অমিত জানান, বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজকে বিষয়টি জানাতে ফোন করা হয়েছিল। তিনি মঙ্গোলিয়ায় রয়েছেন। বিদেশসচিবের সঙ্গেও কথা হয়েছে বলে জানান তিনি।

বিদেশমন্ত্রীর প্রস্তাবে ২ এপ্রিল সম্মতি দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। সেই মতো জুনের শেষে ৯ দিনের সফরসূচি তৈরি হয়েছিল। কলকাতার চিনের উপরাষ্ট্রদূত মা ঝানউ এক সাংবাদিক বৈঠকে জানিয়েছিলেন, 'দেশের শীর্ষ নেতৃত্ব ও কুনমিংয়ের মেয়র বেইজিংয়ে গিয়ে মু্খ্যমন্ত্রী মমতার সঙ্গে দেখা করবেন।'

মমতার বিবৃতিতে বলা হয়েছে, 'বৃহস্পতিবার পর্যন্ত সব কিছু ঠিকঠাকই চলছিল। দুর্ভাগ্যজনক ভাবে চীনের তরফে রাজনৈতিক বৈঠকগুলি যথাযথ স্তরে হবে, এমন কথা নিশ্চিত ভাবে বলা হয়নি। বেইজিংয়ে ভারতীয় রাষ্ট্রদূত শুক্রবার বেলা ১২টার মধ্যে চীনের কাছ থেকে এ নিয়ে নিশ্চয়তা চান। তা পাওয়া যায়নি। ফলে সফর বাতিল করা ছাড়া উপায় ছিল না।'

সরকারি সূত্রের খবর, ভারতীয় দূতাবাসের তরফে প্রাথমিক ভাবে বলা হয়েছিল চীনের ভাইস প্রেসিডেন্ট বা প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রীর বৈঠক হতে পারে। শেষ পর্যন্ত দূতাবাস সেই বৈঠক করাতে পারেনি।

ঢাকাটাইমস/২৩জুন/একে

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত