নেতাকর্মীদের মনোবল চাঙার চেষ্টায় হাসান

নিজস্ব প্রতিবেদক, টঙ্গী (গাজীপুর)
| আপডেট : ২৪ জুন ২০১৮, ২৩:৩৬ | প্রকাশিত : ২৪ জুন ২০১৮, ২১:৪৫

গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনের প্রচারের শেষ দিনে ধানের শীষ প্রতীকের মেয়র প্রার্থী হাসান উদ্দিন সরকার একদিকে প্রচার এবং অন্যদিকে পুলিশি হয়রানির শিকার দলীয় নেতাকর্মীদের খোঁজখবর নিতে ব্যস্ত সময় কাটান। নগরীর বিভিন্ন এলাকা থেকে অসংখ্য অভিযোগ নিয়ে আসা নেতাকর্মীদের তিনি সকাল সাড়ে ১০টা পর্যন্ত নিজ বাসভবনে এবং বেলা ১টা থেকে আড়াইটা পর্যন্ত গাজীপুর জেলা বিএনপি অফিসে সময় দেন।

এসময় তিনি নেতাকর্মীদের অভিযোগ শুনেন এবং পুলিশ ও সরকারি দলের সব ভয়ভীতি উপেক্ষা করে ঐক্যবদ্ধ হয়ে নির্বাচনের দিন কেন্দ্র পাহারা দেওয়ার জন্য আহ্বান জানান।

পরে তিনি ৫৭ নম্বর ওয়ার্ডের টঙ্গী বাজারসহ আশপাশের এলাকায় গণসংযোগ করেন। এসব গণসংযোগে জেলা ও টঙ্গী থানা বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতারা তার সঙ্গে ছিলেন।

পথসভায় হাসান উদ্দিন সরকার বলেন, ‘নির্যাতিত মজলুম গণমানুষের বদদোয়ায় ও অভিশাপে এবার নৌকা তলিয়ে যাবে। ন্যূনতম সুষ্ঠু ভোট হলে ধানের শীষের বিজয় সুনিশ্চিত বলেও তিনি দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

রোদ-বৃষ্টি, ঝড় ও সব ভয়ভীত উপেক্ষা করে মঙ্গলবার যথাসময়ে সবাইকে ভোটকেন্দ্রে গিয়ে ধানের শীষে সিল মারার জন্য তিনি অনুরোধ জানান।

এদিকে পার্শ্ববর্তী জেলা-উপজেলা থেকে নৌকার পক্ষে জাল ভোট দেওয়ার জন্য আওয়ামী লীগের ক্যাডার বাহিনী ও দাগি সন্ত্রাসীদের ভাড়া করে গাজীপুরে এনে জড়ো করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন বিএনপি প্রার্থী। বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতারা যথারীতি নির্বাচনী এলাকা ত্যাগ করলেও আওয়ামী লীগের বহিরাগত কেন্দ্রীয় নেতা ও ক্যাডাররা এখনো এলাকায় প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে বলে অভিযোগ তার।

প্রচারে শেষ দিনে রবিবার ধানের শীষের মিছিলে মিছিলে মুখরিত ছিল নগরীর পাড়া মহল্লা। নগরীর প্রতিটি ওয়ার্ডে ধানের শীষের পক্ষে আলাদা মিছিল বের হয়। সব ভয়ভীতি উপেক্ষা করে উৎসবমুখর পরিবেশে এসব মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। গাজীপুর জেলা ছাত্রদলের সভাপতি সরাফত হোসেনের নেতৃত্বে ৫৬ নম্বর ওয়ার্ড থেকে রবিবার ধানের শীষের পক্ষে একটি বিশাল মিছিল বের হয়।

(ঢাকাটাইমস/২৪জুন/আইআর/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত