মাদকাসক্ত বড় ভাইকে গলাকেটে হত্যা

কুমিল্লা প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৪ জুন ২০১৮, ২২:২৫

কুমিল্লার দেবিদ্বারে মাদকাসক্ত বড় ভাইকে গলাকেটে হত্যার অভিযোগে মেহেদী হাসান (২৩) নামে এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ।

রবিবার ভোরে এ হত্যাকা- ঘটে। নিহতের নাম সোলেহ মিয়া (২৮)। ঘটনার প্রায় চার ঘণ্টা পর মেহেদীকে আটক করে পুলিশ।

সোহেল মিয়া ও আটক ছোট ভাই মেহেদী হাসান দেবিদ্বার পৌর এলাকার মরিচাকান্দা পূর্ব পাড়া চর্তাকান্দি গ্রামের মৃত ইউনুছ মিয়ার ছেলে। আটক মেহেদী হাসান পুলিশের কাছে বড় ভাই সোহেল মিয়াকে হত্যার দায় স্বীকার করে প্রাথমিক জবানবন্দি দিয়েছেন।

জবানবন্দীতে মেহেদী হাসান জানায়, বড় ভাই সোহেল মিয়া নেশার টাকার জন্য বিভিন্ন সময় তাদেরকে নির্যাতন ও ঘর বাড়ি ভাঙচুরসহ বিভিন্ন সময় উৎপাত করতো। নেশার টাকা দিতে না পারায় ২০১৫ সালের ১ অক্টোবর প্রকাশ্যে দা দিয়ে কুপিয়ে নিজের পিতা মো. ইউনুছ মিয়াকে হত্যা করেছিলো বড় ভাই সোহেল মিয়া।

পরে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে আদালতে সোপর্দ করলে পিতা হত্যার দায় স্বীকারোক্তি দেয় এবং প্রায় ১৩ মাস কারাভোগ করার পর প্রায় ১ বছর আগে জেল হাজত থেকে জামিনে মুক্তি পায়। মুক্তির পর সোহেল পুনরায় বেপরোয়া হয়ে উঠে। মরিচাকান্দা মসজিদ মার্কেটে ডেকোরেটর ব্যবসার আড়ালে মাদক কেনাবেচা ও সেবনে সক্রিয় হয়ে উঠে। তার বিরুদ্ধে দেবিদ্বার থানায় হত্যা ও মাদকসহ একাধিক মামলা রয়েছে।

এ ব্যাপারে থানার ওসি মিজানুর রহমান জানান, রাতে কোন এক সময় মেহেদী হাসান সোহেল মিয়াকে গলাকেটে হত্যা করে বাগানে ফেলে যায়। লাশ উদ্ধারের স্থান থেকে মাদক সেবনের আলামত পাওয়া গেছে। মেহেদী হাসান পুলিশের কাছে বড় ভাই সোহেল মিয়াকে হত্যার দায় স্বীকার করে প্রাথমিক জবানবন্দি দিয়েছেন।

ঢাকাটাইমস/২৪জুন/প্রতিনিধি/ ইএস

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত