জাহাঙ্গীরের বাড়িতে ‘নৌকা পাগল’ দুই বন্ধু

ইফতেখার রায়হান, টঙ্গী (গাজীপুর)
 | প্রকাশিত : ২৫ জুন ২০১৮, ১৯:৫৬

রাত পোহালেই রাজধানীর নিকটবর্তী দেশের সবচেয়ে বড় সিটি করপোররেশন গাজীপুরে ভোট উৎসব। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নগরীজুড়ে একদিকে যেমন বিরাজ করছে উৎসবের আমেজ, অন্যদিকে রবিবার রাত ১২টার পর থেকে সবধরনের প্রচার-প্রচারণা বন্ধ হয়ে যাওয়ায় সর্বত্র নীরবতা লক্ষ্য করা গেছে। তবে প্রধান দুই দলের মেয়র প্রার্থীর বাসার চিত্র কিছুটা ভিন্ন। বিভিন্ন ওয়ার্ড থেকে দলীয় নেতাকর্মীরা জড়ো হচ্ছেন তাদের বাসভবনে।

সোমবার দুপুরে আওয়ামী লীগ প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলমের বাসায় গিয়ে দেখা যায় বিভিন্ন ওয়ার্ড থেকে আগত বিপুলসংখ্যক নেতাকর্মীর উপস্থিতি। মূল ফটকের সামনে জটলা দেখে একটু এগিয়ে গিয়ে দেখা গেল অন্যরকম এক দৃশ্য। পঞ্চাশোর্ধ দুই ব্যক্তিকে ঘিরে সৃষ্টি হয়েছে উৎসুক নেতাকর্মীদের এই জটলা। তাদের দুজনের মাথার চুল ছেটে আঁকা হয়েছে আওয়ামী লীগের প্রতীক নৌকা মার্কা। উপস্থিত নেতাকর্মীরা মাথায় নৌকা খচিত ওই দুই ব্যক্তির সঙ্গে সেলফি তুলতে ব্যস্ত।

সাংবাদিক পরিচয় দিতেই হাসি মুখে নিজেদের চুল ও নৌকার প্রতি ভালোবাসার বর্ণনা দেওয়া শুরু করলেন তারা। নিজেদেরকে ‘নৌকা পাগল’ বলে পরিচয় দিতেই বেশি পছন্দ করেন এরা। নৌকা পাগল এই দুই ব্যক্তি হলেন ভৈরবের চন্ডিবের দক্ষিণপাড়া গ্রামের রংমিস্ত্রি শেখ নুরুল ইসলাম ও ভৈরবের মানিকদি নয়াহাটি গ্রামের দিনমজুর মো. আছির মিয়া।

২০০৬ সাল থেকে ‘নৌকা পাগল’ এই দুজনের মধ্যে বন্ধুত্বের সম্পর্ক সৃষ্টি হয়। যেকোনো জায়গায় নৌকার মিছিল সমাবেশ হলেই বিভিন্ন সাজে সজ্জিত হয়ে সেখানে উপস্থিত হন নৌকার এই দুই ভক্ত।

নৌকার প্রতি তাদের এই ভালোবাসা কীভাবে সৃষ্টি হলো জানতে চাইলে রংমিস্ত্রি শেখ নুরুল ইসলাম ঢাকাটাইমসকে বলেন, ছোটবেলায় বঙ্গবন্ধুর ছয় দফা আন্দোলনে রাজপথে নেমেছিলাম। তখন থেকেই বঙ্গবন্ধুর প্রতি এক অকৃত্রিম ভালোবাসার সৃষ্টি হয়। ফাঁসির মঞ্চে দাঁড়িয়ে যে মহান নেতা জনগণের অধিকার আদায়ের জন্য সংগ্রাম করতে পারেন তার জন্য নিজের জীবনবাজি রাখতে সর্বদা প্রস্তুত রয়েছি।

মাথার চুল ছেঁটে নৌকা প্রতীক আঁকা সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘নৌকা বঙ্গবন্ধুর প্রতীক, শেখ হাসিনার প্রতীক, উন্নয়নের প্রতীক। প্রতি মাসে দুই'শ টাকা খরচ হয় চুল ছাঁটাইয়ের পেছনে। অভাবের সংসার থাকা সত্ত্বেও প্রতি সপ্তাহে ৫০ টাকা দিয়ে নৌকার প্রতি ভালোবাসা প্রকাশের জন্য চুলের এই ব্যতিক্রম স্টাইল দিয়ে থাকি। ২০০৬ সাল থেকে এই স্টাইল ছাড়া অন্য কোনো স্টাইলে চুল কাটিনি।’

আরেক নৌকা ভক্ত মো. আছির মিয়া ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘গাজীপুরে ভোট উৎসব শুরু হওয়ায় ঘরে বসে থাকতে পারিনি। নৌকার প্রতি ভালোবাসার টানে সোমবার সকালে ভৈরব থেকে ছুটে এসেছি। এর আগে নারায়ণগঞ্জ ও কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনের সময় সেখানে সাত দিন ছিলাম। এবারও গাজীপুর সিটি নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলমকে বিজয়ের মালা পরিয়ে বাড়ি ফিরবো ইনশাআল্লাহ।’

অভাবের সংসার থাকার পরও নৌকার প্রতি এমন ভালোবাসায় মুগ্ধ ভৈরবের মানুষ। ‘নৌকা পাগল’ এই দুই ব্যক্তিকে দেখতে আশপাশের বিভিন্ন গ্রামের মানুষ তাদের বাড়িতে ভিড় জমায়। প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমানের ছেলে ভৈরবের সংসদ সদস্য নাজমুল হাসান পাপন প্রতি বছরে চেকের মাধ্যমে কিছু অনুদান দেন বলে জানান ‘নৌকা পাগল’ এই দুই ব্যক্তি।

(ঢাকাটাইমস/২৫জুন/আইআর/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত