কোটালীপাড়ায় গৃহবধূকে শ্বাসরোধে হত্যার অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক, গোপালগঞ্জ
 | প্রকাশিত : ০৯ জুলাই ২০১৮, ১২:২৯

গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় মাহফুজা খানম (২০) নামে এক গৃহবধূকে শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। যৌতুক দাবিতে তাকে হত্যা করে গলায় ফাঁস লাগিয়ে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে বলে নিহত গৃহবধূর পিতা জুলফিকার শেখ অভিযোগ করেছেন।

রবিবার সন্ধ্যায় কোটালীপাড়া উপজেলার বর্ষাপাড়া গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে সোমবার সকালে ময়নাতদন্তের জন্য গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।

এদিকে অভিযুক্ত স্বামী শাহিন ফকির ও তার পরিবার  ঘটনার পর পালিয়ে গেছে।  এ ঘটনায় তাদের বাড়িতে হামলা ও ভাংচুরের  ঘটনা ঘটেছে।

কোটালীপাড়া উপজেলার লোহারংক গ্রামের বাসিন্দা ও নিহতের পিতা জুলফিকার শেখ জানান, তিন বছর আগে একই উপজেলার বর্ষাপাড়া গ্রামের বেলাল ফকিরের ছেলে শাহিন ফকিরের সঙ্গে মাহফুজা খানমের  বিয়ে হয়। তাদের দেড় বছর বয়সী একটি পুত্র সন্তান রযেছে। বিয়ের পর থেকেই যৌতুকের দাবিতে তার স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকজন মাহফুজাকে নির্যাতন করে আসছিলেন।

কিছু দিন আগে মাহফুজাকে বাবার বাড়ি থেকে এক লাখ টাকার জন্য চাপ দেন তারা। টাকা এনে দিতে না পারায় মাহফুজাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে লাশ ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে।

এ ব্যাপারে কোটালীপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ কামরুল ফারুক বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থলে যাওয়ার আগেই লাশ নামিয়ে ফেলা হয়েছে। লাশের চেহারা দেখে আমাদের সন্দেহ হওয়ায় লাশ ময়নাতদন্তের জন্য গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এটি হত্যা নাকি আত্মহত্যা তা ময়নাতদন্তের পরই জানা যাবে।

অভিযুক্তরা পলাতক রয়েছেন। তাদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চালানো হচ্ছে।

(ঢাকাটাইমস/০৯জুলাই/প্রতিনিধি/ওআর)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত