বেসরকারি হাসপাতালে ধর্মঘট প্রচারে ‘সরকারি ইমেইল’

দিদার মালেকী, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১০ জুলাই ২০১৮, ১৪:৪৯ | প্রকাশিত : ১০ জুলাই ২০১৮, ০৯:৪১

চট্টগ্রামে রবিবার দুপুর থেকে সোমবার দুপুর পর্যন্ত বেসরকারি হাসপাতালে যে ধর্মঘট করা হয়েছে তার প্রচারে ব্যবহার করা হয়েছে একটি সরকারি ইমেইল আইডি।

গণমাধ্যমে প্রচারের জন্য যে বিজ্ঞপ্তিতে ধর্মঘটের ঘোষণা দেয়া হয়েছে সেটি পাঠানো হয়েছে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের সরকারি ইমেইল অ্যাড্রেস থেকে।

ফলে একে সরকারি ইমেইল হিসেবেই ধরা যেতে পারে। অথচ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের অধ্যক্ষ এ বিষয়ে কিছুই জানেন না। কে এই কাজটি করেছেন সেটি জানেন না যার নামে ইমেইল পাঠানো হয়েছে সেই বেসরকারি বেসরকারি চিকিৎসা প্রতিষ্ঠান সমিতির সভাপতি চিকিৎসক আবুল কাশেম। তবে একজন আইনজীবী বলেছেন, এটি শাস্তিযোগ্য অপরাধ।

সরকারি চিকিৎসকদের বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কাজ করার সুযোগ আছে। তবে তারা সরকারি কোনো অবকাঠামো ব্যবহার করতে পারবেন এমন নয়। তবু ব্যবহার করেছেন। বেসরকারি চিকিৎসা প্রতিষ্ঠান সমিতির সভাপতি আবুল কাশেম এই কাজটি করেছেন।

রবিবার (৮ জুলাই) বিকাল পাঁচটা চার মিনিটের দিকে গণমাধ্যমে ধর্মঘট ডাকার বিষয়ে গণমাধ্যমে প্রেস বিজ্ঞপ্তি পাঠায় বেসরকারি চিকিৎসা সমিতি। তাতে দেখা দেখা যায় যে ইমেইল অ্যাড্রেসটি ব্যবহার করা হয়েছে সেটি চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের- [email protected]

সেন্ডারের নামের জায়গায় রয়েছে- Chittagong medical college। আর বিষয়ের জায়গায় লেখা- বেসরকারি চিকিৎসা প্রতিষ্ঠান সমিতির বিজ্ঞপ্তি। আর ইমেইলের একেবারে নিচের দিকে বার্তাপ্রেরক হিসেবে ডা. আবুল কাশেমের নাম রয়েছে। যিনি বেসরকারি চিকিৎসা প্রতিষ্ঠান সমিতির সভাপতি।

এ ব্যাপারে জানতে চাওয়া হলে আবুল কাশেম তার দায় অস্বীকার করেছেন। ঢাকাটাইমসকে তিনি বলেন, তাদের সমিতির নির্ধারিত প্যাডে লিখে প্রেস বিজ্ঞপ্তিটি দিয়ে এসেছিলেন বিএমএর কাছে। তাদেরই কেউ হয়তো এই ইমেইল থেকে পাঠিয়ে থাকতে পারেন।

কিন্তু এটি আইনসম্মত কি না, আর এর জন্য কোনো ধরনের জবাবদিহিতা করতে হবে কি না- এমন প্রশ্নে দুঃখপ্রকাশ করে বিষয়টি কে করেছে দেখবেন বলে জানান চিকিৎসক কাশেম।

জানতে চাইলে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ সেলিম মো. জাহাঙ্গীর ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘ওই সময় আমি রাঙ্গামাটিতে পরীক্ষার কাছে ব্যস্ত ছিলাম। অন্যজন কলেজের দায়িত্বে ছিলেন। রাঙ্গামাটি থেকে ফিরে দায়িত্বরত অপারেটর ও জড়িত ব্যক্তিকে এ ব্যাপারে শোকজ করব।’

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী অমিত দাশগুপ্ত ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘রাষ্ট্রীয় যে কোনও প্রতিষ্ঠানের ইমেইল হ‌চ্ছে সরকারি সম্প‌ত্তি। কোনও সরকা‌রি কর্মকর্তা রাষ্ট্রীয় ইমেইল তার ব্য‌ক্তিগত কা‌জে ব্যবহার কর‌তে পা‌রেন না। য‌দি কোনও সরকা‌রি কর্মকর্তা রাষ্ট্রীয় ইমেইল তার ব্যক্তিগত কা‌জে ব্যবহার ক‌রেন, তাহলে তিনি চাক‌রির বি‌ধিমালা ভঙ্গ কর‌বেন এবং তার শপথ ভঙ্গ কর‌বেন।’

চট্টগ্রামের ম্যাক্স হাসপাতালে চিকিৎসকের অবহেলায় শিশু মৃত্যুর অভিযোগের প্রমাণ পেয়ে তিন ডাক্তারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার সুপারিশের পর রবিবার মহানগরে পাঁচটি বেসরকারি হাসপাতালে অভিযান চালায় র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। প্রতিটি হাসপাতালেই নানা অনিয়ম ও ভাওতাবাজির প্রমাণ পাওয়া যায় আর এ জন্য তাদের বিরুদ্ধ শাস্তিমূলক নানা ব্যবস্থা নেয়া হয়।

আর এরপর বেসরকারি হাসপাতালে রোগী দেখা, রোগ পরীক্ষা বন্ধ করে দেয়ার মতো কর্মসূচি দেন হাসপাতাল মালিকরা যাদের বেশিরভাগই চিকিৎসক। এদের একটি বড় অংশই আবার সরকারি চাকরি করেন।

২৪ ঘণ্টার মতো তীব্র রোগী ভোগান্তির পর সোমবার অবশ্য সেই কর্মসূচি প্রত্যাহার করে নেয়া হয়। আর একই দিন হাইকোর্ট অন্য একটি রিটের শুনানি করতে গিয়ে চিকিৎসকদের এই আচরণে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

সর্বোচ্চ আদালত থেকে এমন মন্তব্যও করা হয়েছে যে চিকিৎসা পেশায় দুর্বৃত্ত ঢুকেছে। আর নিজেদের ভুল ঢাকতে ধর্মঘট করা আরও অন্যায় হয়েছে।

ঢাকাটাইমস/১০জুলাই/ডিএম/ডব্লিউবি

সংবাদটি শেয়ার করুন

বিশেষ প্রতিবেদন বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত