রোহিঙ্গাদের নিয়ে শঙ্কিত স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৭ জুলাই ২০১৮, ১৫:৫০ | প্রকাশিত : ১৭ জুলাই ২০১৮, ১৫:৩৯

দ্রুত রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান করতে না পারলে আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসী সংগঠন তাদের লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত করতে পারে বলে আশঙ্কা করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল।

মঙ্গলবার দুপুরে ঢাকা রিপোর্টাস ইউনিটিতে সমসাময়িক বিষয় নিয়ে মিট দ্য প্রেসে এই ধারণার উল্লেখ করেন মন্ত্রী। তবে রোহিঙ্গাদের নিয়ে এই শঙ্কার বিষয়ে বিস্তারিত আর কিছু বলেননি তিনি।

মিয়ানমারের বাস্তুচ্যূত রোহিঙ্গারা আশির দশক থেকেই বাংলাদেশের দিকে নানা সময় ছুটে এসেছে প্রাণ বাঁচাতে। তবে রাখাইন রাজ্যে বসবাসকারী মুসলিম এই জনগোষ্ঠীর নাগরিকত্ব বাতিলের পর থেকে সেনাবাহিনীর অভিযানের মুখে সবচেয়ে বড় অনুপ্রবেশের ঘটনাটি শুরু হয় গত আগস্টে।

এখন বাংলাদেশে ১১ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা বসবাস করছে যাদের আশ্রয় হয়েছে কক্সবাজারের বিভিন্ন শরণার্থী শিবিরে। মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের মধ্যে কাজ করছে আরাকান সালভেশন আর্মি বা আরসা নামে একটি সশস্ত্র সংগঠন। আর বিভিন্ন জঙ্গিগোষ্ঠীও রোহিঙ্গাদেরকে দলে ভেরানোর চেষ্টা করছে বলে নানা সময় বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ এসেছে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মিয়ানমারের প্রতিও বিরক্তি প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, ‘মিয়ানমার বারবার আশ্বাস দিয়েও রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিচ্ছে না।’

‘তবে তাদের সাথে যুদ্ধ নয়, আলোচনার মাধ্যমে এ সমস্যার সমাধান করতে হবে’-এমনটিও উল্লেখ করেন মন্ত্রী।

রোহিঙ্গাদের প্রায় একলাখ পাসপোর্ট নিয়েছে, অনেকে বিদেশে চলেও গেছে- সাংবাদিকের এমন প্রশ্নে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘যে অঞ্চলটিতে রোহিঙ্গারা আছে সেখানে নাফ নদী পার হলেই মিয়ানমার। সেই মিয়ানমারের জনগোষ্ঠী অনেক আগে থেকেই আমাদের বাংলাদেশে আসছে। শুধু এই রোহিঙ্গারা না, পটুয়াখালীতে রাখাইন পল্লী আছে। কয়েকশ বছর ধরে তারা এখানে বসবাস করছে। কক্সবাজারে দেখেছেন বার্মিজ মার্কেট, এরাও কিন্তু ওইখান থেকে আসছে। তাদের আসা যাওয়াটা কিন্তু আজকের নয়, বহু বছর আগে থেকে তারা এ দেশে আসছে।’

‘কাজেই তাদের আত্মীয় স্বজন থাকতেই পারে আমাদের দেশে, তারা সেল্টার দিতেই পারে। তারা যদি সেল্টার দিয়ে তাদের আত্মীয় বানিয়ে পরিচয় দিয়ে পাসপোর্ট বানিয়ে দেয়, সেটা আমাদের জন্য মুশকিল হয়ে যায়। আমরা এ ধরনের তথ্য পেলেই সেসব পাসপোর্ট বাতিল করা হচ্ছে।’

ঢাকাটাইমস/১৭জুলাই/জিএম/ডিএম

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত