চাইলে অনেক কিছু করতে পারি কিন্তু করি না: আইভী

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৮ জুলাই ২০১৮, ১৯:৪৫

নারায়ণগঞ্জে ফুটপাত দখলমুক্ত করতে গিয়ে হামলার শিকার হওয়ার কথা স্মরণ করে মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী বলেছেন, হামলাকারীরা এখন বুক ফুলিয়ে ঘুরে বেড়ায়। তিনি চাইলে অনেক কিছু করতে পারেন কিন্তু করেন না।

আজ বুধবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জ নগর ভবন প্রাঙ্গণে বাজেট ঘোষণা অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন মেয়র।

নারায়ণগঞ্জ শহরের ফুটপাত থেকে হকার উচ্ছেদ করতে গিয়ে বাধার মুখে পড়ে সিটি করপোরেশন। হকারদের পক্ষে ছিলেন স্থানীয় সাংসদ ও নারায়ণগঞ্জের আলোচিত রাজনীতিক শামীম ওসমান।

এ নিয়ে উত্তেজনাকর পরিস্থিতিতে গত ১৬ জানুয়ারি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে আইভীর সমর্থক ও শামীম ওসমানের সমর্থকদের মধ্যে। এ সময় হামলার শিকার হন মেয়র আইভী।

আইভী বলেন, ‘সেদিন আমাকে ও আমার সঙ্গে থাকা লোকজনদের কীভাবে মারা হয়েছে। কিন্তু সবার দোয়ায় আমরা সেদিন বেঁচে গেছি। যারা হামলা করেছে তারাই এখন শহরে বুক ফুলিয়ে হাঁটে। চাইলে অনেক কিছু করতে পারি, কিন্তু করি না।’
প্রশাসনের কতিপয় লোকের জন্য হকাররা ফুটপাত দখলের সুযোগ পায়  অভিযোগ করে মেয়র আইভী সুশীল সমাজের উদ্দেশে অনুরোধ করেন ফুটপাত দখলের বিরুদ্ধে আবার আন্দোলনে নামতে। তিনি বলেন, মূলত সমষ্টিগত কারণেই ফুটপাত দখলমুক্ত হচ্ছে না। যে সরকার আসে সেই সরকারের আমলেই ফুটপাত দখল করে রাখা হয়।

নগরীর খাল দখলমুক্ত করা নিয়ে আইভী বলেন, ইতোমধ্যে ১৬৬ কোটি টাকার প্রজেক্ট হাতে নেয়া হয়েছে। খালগুলো দখলমুক্ত করে পুনঃখনন করে সৌন্দর্যম-িত করা হবে।

নগরীতে পলিথিন বর্জ্যরে সমস্যা নিরসনেও প্রকল্প আসছে বলে জানান মেয়র। তার ভাষ্য, ইতোমধ্যে জালকুড়িতে বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদনের একটি প্রকল্প চুক্তি হয়েছে। জমি বুঝিয়ে দেওয়ার পরই কাজ শুরু হবে। এ প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে নগরীতে পলিথিনের সমস্যা থাকবে না।

চাষাঢ়া শহীদ মিনারের নিরাপত্তা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করে মেয়র বলেন, ‘প্রভাবশালী লোকের কারণে শহীদ মিনারের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা যাবে কি না এ ব্যাপারে ভয় হয়। কারণ সেখানে সাংস্কৃতিক কর্মীদের ওপর কয়েকবার হামলা হয়েছে। আমি একজন দারোয়ান রাখার চেষ্টা করব।’

নতুন করে কোনো কর আরোপ ছাড়াই ২০১৮-২০১৯ অর্থবছরের জন্য ৭১৫ কোটি ৫১ লাখ ২১ হাজার ৩৭৭ টাকার বাজেট ঘোষণা করেছে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন।

এবারের বাজেটে দারিদ্র্য বিমোচন, তথ্যপ্রযুক্তি, শিক্ষা, স্বাস্থ্য এবং অবকাঠামোগত উন্নয়ন যথা রাস্তা, ড্রেন, ব্রিজ, কালভার্ট নির্মাণ ও পুনর্নির্মাণ, শীতলক্ষ্যা নদীর ওপর কদমরসুল সেতু নির্মাণ, জলাবদ্ধতা দূরীকরণ, খাল উদ্ধার, জলাশয় সংরক্ষণ, বর্জ্য ব্যবস্থাপনার সংস্কার, খেলাধুলার মানোন্নয়ন ও রাস্তার বাতি স্থাপনে বিশেষ বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। বাজেট বক্তৃতায় ৫, ১০ ও ২০ বছর মেয়াদি বিভিন্ন প্রকল্পের বিষয় তুলে ধরা হয়।

বাজেট অনুষ্ঠান শেষে উপস্থিত জনতার মুখোমুখি হন মেয়র আইভী। শ্রোতা-দর্শকদের বিভিন্ন প্রশ্নে জবাব দেন তিনি।
বাজে অনুষ্ঠানে মঞ্চে আরও উপস্থিত ছিলেন সংরক্ষিত নারী সংসদ সদস্য হোসনে আরা বাবলী, নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হাই, সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী এহতেশামুল হক, প্যানেল মেয়র আফসানা আফরোজ বিভা।
এ ছাড়া অনুষ্ঠানে সিটি করপোরেশনের কাউন্সিলরসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

(ঢাকাটাইমস/১৮জুলাই/মোআ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত