নাটোরে ৩ জেএমবি সদস্য আটক

নাটোর প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৯ জুলাই ২০১৮, ১২:৪২

নাটোরে গোপন বৈঠকের সময় জেহাদি বইসহ নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন জামাআতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশের (জেএমবি)তিন সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাব-৫। বুধবার রাতে সদর উপজেলার রুইয়েরভাগ এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়।

আটক তিনজন হলেন, নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলার মহারাজপুর গ্রামের সাইফুল ইসলামের ছেলে জাহিদুল ইসলাম (৩০), বড়াইগ্রাম উপজেলার গুনাইহাটি গ্রামের আমির হোসেনের ছেলে আমজাদ হোসেন (৪২) ও লালপুর উপজেলার চৌধুডাঙ্গা গ্রামের মৃত গাজিউর রহমানের ছেলে জহির উদ্দিন (৪০)।

র‌্যাব-৫ এর নাটোর ক্যাম্পের কোম্পানি কমাণ্ডার মেজর শিবলী মোস্তফা বলেন, নিষিদ্ধ জেএমবির কিছু সদস্য রাজশাহী, নাটোর ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ ও নওগাঁসহ বিভিন্ন এলাকায় সংগঠনের প্রচার কাজ চালাচ্ছে। এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বুধবার রাতে র‌্যাবের গোয়েন্দা বিভাগের সদস্যদের একটি দল সদর উপজেলার রুইয়েরভাগ এলাকায় অভিযান চালায়। অভিযানকালে গোপন মিটিং করার সময় জাহিদুল, আমজাদ ও জহির উদ্দিন নামে জেএমবির ওই তিন সদস্যকে  আটক করা হয়। এ সময় আরও অন্তত ১০-১২ জন পালিয়ে যায়।

মেজর শিবলী মোস্তফা আরও বলেন, আটককৃতরা কারাগারে  গ্রেপ্তার জেএমবি নেতা জাহাঙ্গীর অনুপ্রেরণায় ও দীক্ষা পেয়ে জেএমবিতে যোগ দেয়। তারা কারাগারে গ্রেপ্তার অপর জেএমবি নেতা আমির হামজার নেতৃত্বে সংগঠনকে শক্তিশালী করার লক্ষ্যে ইয়ানতের টাকা উত্তোলনসহ নতুন সদস্য সংগ্রহে দাওয়াত প্রচারে নিয়োজিত ছিলেন।

তারা কারাগারে আটক জেএমবি নেতা আমির হামজার সাথে নিয়মিত দেখা করে তার পরামর্শে নাটোর অঞ্চলে সংগঠনর প্রচার কাজে নিয়োজিত। তারা সংগঠনের মিটিং, উগ্রবাদি জেহাদি বই বিতরণ, জিহাদী দাওয়াতসহ বিভিন্ন কর্মকান্ডে স্বত:স্ফুর্ত অংশগ্রহণ করে এবং ইসলামী শাসন প্রতিষ্ঠার দাওয়াত দিয়ে আলোচনা করতেন।

আটক আমজাদ ও জহির দলের পক্ষে সদস্যদের কাছে থেকে ইয়ানতের টাকা আদায় করতেন।  আদায়কৃত এসব অর্থ সংগঠনের বিভিন্ন কর্মকাণ্ডে ব্যয় হতো। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা এসব বিষয়ে স্বীকারোক্তি দিয়েছে বলে জানান তিনি।

(ঢাকাটাইমস/১৯জুলাই/প্রতিনিধি/ওআর)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত