উন্নয়নে এক নম্বর হবে ফরিদপুর-১: দোলন

আলফাডাঙ্গা (ফরিদপুর) প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৯ জুলাই ২০১৮, ২৩:২৩ | প্রকাশিত : ১৯ জুলাই ২০১৮, ২১:৫৭

প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ যেমন বিশ্বের রোল মডেল হয়ে উঠেছে, তেমনি ফরিদপুর-১ আসনকে উন্নয়নে দেশের এক নম্বর হিসেবে দেখতে চান আওয়ামী লীগের মনোনয়ন-প্রত্যাশী কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির অন্যতম সহ-সভাপতি আরিফুর রহমান দোলন।

আজ বৃহস্পতিবার বিকাল পাঁচটায় ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার বাইখির চৌরাস্তায় আল আমিরাহ কমিউনিটি সেন্টারে বাংলাদেশ কৃষক লীগ, চতুল ইউনিয়ন শাখার ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথি বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি।

আগামী জাতীয় নির্বাচনকে বাংলাদেশের ইতিহাসে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে বর্ণনা করে ফরিদপুর জেলা আওয়ামী লীগের কার‌্যনির্বাহী সদস্য দোলন বলেন, ‘এই নির্বাচন হবে উন্নয়নের ধারাবাহিকতা থাকবে কি থাকবে না,  বাংলাদেশ থেকে জঙ্গিবাদ সমূলে নির্মূল হবে কি হবে না, সেটি প্রমাণের নির্বাচন। এই নির্বাচন হবে একাত্তরের যুদ্ধাপরাধীরা আর কোনো দিন মাথা উচুঁ করে দাঁড়াতে পারবে না, সেটি নিশ্চিত করার নির্বাচন।’ সেই নির্বাচনে আওয়ামী লীগ তথা নৌকার বিজয় নিশ্চিত করার বিকল্প নেই বলে মন্তব্য করেন তিনি।

তাই আগামী নির্বাচনে দলের প্রার্থী মনোনয়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিচার-বিশ্লেষণ করে এগোচ্ছেন বলে জানান দোলন। তিনি বলেন, ‘কে ভালো কাজ করেছে, কে খারাপ কাজ করেছে এই আমলনামা নেত্রী শেখ হাসিনার কাছে আছে। নেত্রী বলেছেন, আগামী নির্বাচনে সেই নেতাকে তিনি মনোনয়ন দেবেন, যিনি জনগণের কাছে সবচেয়ে গ্রহণযোগ্য। বাংলাদেশে ৩০০ আসনে তিনি মনোনয়ন তাদেরই দেবেন, যেই নেতা টাকার বিনিময়ে কাজ করেন না।’

নেত্রী যেমন জানেন তেমনি এলাকাবাসীও তাদের স্থানীয় নেতা ও জনপ্রতিনিধিদের বিষয়ে জানেন উল্লেখ করে দোলন তাদের উদ্দেশে বলেন, ‘আপনারা এখানে যে ইতিবাচক পরিবর্তন আশা করছেন, আমি চাই সেই পরিবর্তনের হাতিয়ার হতে। আপনারা যদি রাজি থাকেন, আপনারা যদি খুশি থাকেন, আপনারা যদি পরিবর্তন চান, আমি সেই পরিবর্তনের হাতিয়ার হিসেবে নিজেকে তৈরি করছি। আপনাদের আশীর্বাদ নিয়ে শেখ হাসিনাকে এই আসন উপহার দিতে চাই।’

‘বঙ্গবন্ধু এই দেশের স্বাধীনতা এনে দিয়েছেন, আর তার কন্যা শেখ হাসিনা এই দেশকে অর্থনৈতিক মুক্তি দেয়ার জন্য কাজ করছেন।’ দোলন বলেন, ‘ইতিমধ্যে বাংলাদেশের অগ্রযাত্রা বিশ্বকে তাক লাগিয়ে দিয়েছে। যে বিশ্বব্যাংক একসময় পদ্মা সেতুর জন্য ঋণ দিতে চায়নি, সেই বিশ্বব্যাংক বলছে বাংলাদেশের এই উন্নতি গোটা বিশ্বের জন্য রোল মডেল।’

বিশ্বের দরবারে বাংলাদেশের মুখ উজ্জ্বল হোক এটা যেমন চান, তেমনি ফরিদপুর-১ আসন এই দেশের রোল মডেল হোক এটা এ এলাকার মানুষ চায় বলে মনে করেন দোলন। তিনি বলেন, ‘আমরা চাই ফরিদপুর-১ আসন উন্নয়নে এক নম্বর হবে। আমরা চাই ফরিদপুর-১ আসনের জনগণ জনপ্রতিনিধির কাছে সর্বোচ্চ সম্মান পাবে। আমরা চাই, এই আসনের যারা জনপ্রতিনিধি হবেন তিনি টাকার বিনিময়ে কাজ করবেন না।’

সমবেতদের উদ্দেশে ফরিদপুর-১ আসনের মনোনয়ন-প্রত্যাশী দোলন বলেন, ‘আশা করি আপনারা এমন প্রতিনিধি বেছে নেবেন যার মধ্যে কোনো লোভ-লালসা থাকবে না। যিনি আমাদের সতিকার অর্থে অনন্য একটি মর‌্যাদায় নিয়ে যেতে পারেন। এই আসনের মানুষ যেন সর্বোচ্চ মর‌্যাদা পায়, তারা যেন জনপ্রতিনিধির কাছে গিয়ে অসম্মানিত না হয়। কৃষকরা যেন তাদের ফসলের ন্যায্যমূল্য পায়।’

বাংলাদেশকে দারিদ্র্যমুক্ত করা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নীতি- এ কথা উল্লেখ করে কৃষক লীগের সহসভাপতি বলেন, ‘সেই নীতি যদি বাস্তবাযন না হয়, তাহলে তো আমি বলব, যারা এর বাইরে কাজ করছে, তারা বাংলাদেশের বিরুদ্ধে কাজ করছেন। আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে কাজ করছেন। তারা আওয়ামী লীগের শত্রু, তাদের বয়কট করতে হবে।’

গণভবনে আওয়ামী লীগের সাম্প্রতিক বর্ধিত সভায় দলের সভাপতি শেখ হাসিনার  বক্তব্য উদ্ধৃত করে কৃষক লীগের সহ-সভাপতি বলেন, ‘যারা জনগণের কাছ থেকে টাকা নিয়ে কাজ করবেন তারা জনগণের কাছে গ্রহণযোগ্য হবেন না বলে শেখ হাসিনা চাইছেন তাদের মনোনয়ন দেবেন না তিনি। তার কাছে সবার আমলনামা আছে। আজকের আমলনামা, কালকের আমলনামা- সব আমলনামা নেত্রীর কাছে জমা আছে।’

দেশের উন্নয়ন যেটুকু বাকি আছে, সেটি শেষ করতে আওয়ামী লীগ যেন আবার ক্ষমতায় আসতে পারে, সেজন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে আহ্বান জানান ফরিদপুর-১ আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন-প্রত্যাশী দোলন।

ফরিদপুর জেলা আওয়ামী লীগের কার‌্যনির্বাহী সদস্য দোলন বলেন, ‘আমরা বিভেদ চাই না। আমরা বঙ্গবন্ধুর আদর্শের কথা, শেখ হাসিনার  সরকারের উন্নয়নের কথা মানুষের কাছে বিস্তারিত তুলে ধরছি। কারো যদি ভালো না লাগে বুঝতে হবে তারা এই সরকারের বিপক্ষে, শেখ হাসিনার বিপক্ষে।’

ঢাকাটাইমস সম্পাদক বলেন, ‘জনগণ যাকে চায়, তিনিই মনোনয়ন পাবেন। শেখ হাসিনা যাকে মনোনয়ন দেবেন তিনি জনগণের ভালোবাসায় সিক্ত হয়ে সংসদে যাবেন।’ কিন্তু যারা বঙ্গবন্ধুর থেকে নিজেকে বড় মনে করছেন, তাদের সেসব আমলনামাও শেখ হাসিনার কাছে আছে বলে সতর্ক করেন দোলন।

এই আসনে অন্য মনোনয়ন-প্রত্যাশীদের উদ্দেশে দোলন বলেন, ‘আমরা যারা আওয়ামী লীগের মনোনয়নের জন্য কাজ করছি, যদি আমরা কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করি, আওয়ামী লীগের হাত শক্তিশালী হবে, শেখ হাসিনার হাত শক্তিশালী হবে। শেখ হাসিনা আবার বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী হবেন এটি আমরা বেশি করে চাই, যাতে উন্নয়নের ধারা কোনোভাবে ব্যাহত না হয়।’

এই উন্নয়নধারায় নিজেকে শামিল করতে চান ফরিদপুরের সমাজসেবা প্রতিষ্ঠান কাঞ্চন মুন্সী ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান আরিফুর রহমান দোলন। নিজেকে এলাকার ভৃত্য হিসেবে মনে করেন জানিয়ে দোলন বলেন, ‘সারা জীবন আপনাদের সেবা দিতে পারি এই ব্রত নিয়ে আপনাদের কাছে হাজির হয়েছি। এমপি নির্বাচিত হই আর না হই, মনোনয়ন পাই আর না পাই, আপনাদের সেবায় নিজেকে আমৃত্যু নিয়োজিত রাখব।’

বোয়ালমারী উপজেলা কৃষক লীগের আহ্বায়ক ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান সৈয়দ আব্দুর রহমান বাশারের সভাপতিত্বে সম্মেলনে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন বোয়ালমারী আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি গোলাম ছরোয়ার মৃধা, জেলা কৃষক লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট প্রদীপ কুমার দাস, উপজেলা শিক্ষক সমিতির সভাপতি মো. মনির হোসেন প্রমুখ।

সম্মেলন উদ্বোধন করেন ফরিদপুর জেলা পরিষদ সদস্য ও জেলা কৃষক লীগের সদস্যসচিব শেখ শহীদুল ইসলাম শহীদ।

এ সময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বোয়ালমারী উপজেলা কৃষক লীগের সদস্যসচিব মনিরুজ্জামান মৃধা লিটন, বোয়ালমারী পৌর কৃষক লীগের আহ্বায়ক রোকন উদ্দীন মোল্যা, উপজেলা কৃষক লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক শরীফ শাহীনুল আলম।

এ ছাড়া আরও উপস্থিত ছিলেন আলফাডাঙ্গা পৌর কৃষক লীগের আহ্বায়ক আওয়াল ফকির, সদস্যসচিব রফিকুল ইসলাম রাজিবসহ উপজেলার কৃষক লীগ, আওয়ামী লীগের অঙ্গসংগঠনের বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মীরা।

সম্মেলনে উপস্থাপনা করেন গাজী সামসুজ্জামান খোকন।

(ঢাকাটাইমস/১৯জুলাই/জিএম/মোআ) 

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজপাট বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত