‘ইস্যু খুঁজে না পেয়ে কোটা আন্দোলনে ভর করেছে বিএনপি’

দিনাজপুর প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৯ জুলাই ২০১৮, ২১:৫৯

কোনো ইস্যু খুঁজে না পেয়ে বিএনপি কোটা আন্দোলনের উপর ভর করেছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী।

খালিদ বলেন, ‘যারা ক্ষমতায় থেকে রাজাকার আল বদরদের মন্ত্রী এমপি বানিয়েছিল, সেই তারাই পঁচাত্তরের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যা করে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের ভিক্ষুক বানানোর ষড়যন্ত্র করেছিল। তারা চায়না যে, এদেশের বীরমুক্তিযোদ্ধা ও তাদের পরিবার সম্মানের সঙ্গে আত্মমর্যাদা নিয়ে বেঁচে থাকুক। তাঁরা সবসময় বীরমুক্তিযোদ্ধা, শহীদ, বীরঙ্গণাসহ ৭১-এর মহান মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসকে কলঙ্কিত করার চেষ্টা করেছে। কিন্তু জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসার পর বীর মুক্তিযোদ্ধা তাদের পরিবারকে সম্মানিত করেছে এবং মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসকে উজ্জীবিত করছে।’

বৃহস্পতিবার দুপুরে বিরল উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা মৎস্য দপ্তর কর্তৃক আয়োজিত জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ/১৮ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

খালিদ মাহমুদ বলেন, বাঙালি জাতি হাজার বছর বঙ্গবন্ধুর মতো নেতৃত্ব পেয়েছিল বলেই বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছিল। আজকে শেখ হাসিনার মতো নেতৃত্ব পাওয়ার কারণেই দেশ উন্নয়নের বিশ্বরোডে উঠতে পেরেছে। চূড়ান্ত বিজয়ের জন্য শেখ হাসিনার নেতৃত্বের বিকল্প নেই।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ব্যাংকের ভল্টে রাখা সোনা হারায়নি বলে জানান তিনি। খালিদ বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের ভল্টে রাখা সোনা হারায়নি। পরিবর্তনও হয়নি। মির্জা ফখরুলের মায়াকান্না দেখে মনে হচ্ছে ফখরুলের সোনা হারিয়েছে। সোনা হারিয়ে মির্জা ফখরুল মায়াকান্না করে শান্ত পরিবেশ ভারি করার চেষ্টা করছে।

খালিদ বলেন, বিএনপি নেতাদের মায়া কান্না বাংলাদেশের মানুষ আর বিশ্বাস করেনা বলেই মানুষ তাদের দিক থেকে দৃষ্টি ফিরিয়ে নিয়েছে। আওয়ামী লীগ লুটপাটের রাজনীতি করে না। লুটপাট করে বিএনপি। বিএনপি’র নেত্রী এতিমদের টাকা খেয়ে আজকে জেল খাটছে। তার ছেলে তারেক জিয়া দেশের কোটি কোটি টাকা হাওয়া ভবন সৃষ্টির মাধ্যমে বিদেশে পাচার করেছে। কর্নেল অলি ও নাজমুল হুদা পদত্যাগ করে বিএনপি’র সব লুটপাটের কথা স্বীকার করেছে। বিএনপি’র মায়াকান্না করে কোন লাভ নেই। সব লুটপাট ও দুর্নীতির বিচার এদেশের মাটিতেই হবে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এ বি এম রওশন কবীরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন, উপজেলা মৎস্য অফিসার কৃষিবিদ পূরবী রানী রায়। মৎস্যচাষীদের মধ্যে থেকে বক্তব্য রাখেন, নারী উদ্যোক্তা সাবিনা ইয়াসমিন।

উপস্থিত ছিলেন বিরল উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এ কে এম মোস্তাফিজুর রহমান বাবু, সহ-সভাপতি অধ্যাপক রিয়াজুল ইসলাম. বিরল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এটিএম গোলাম রসুল, জেলা পরিষদের সদস্য ও মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ সুফিয়া নাহার মঞ্জু, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আফজালালুল আনাম, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ফিরোজা বেগম, সফল মৎস্য চাষী ও ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুস শুকুর ও রাণীপুকুর ইউপি চেয়ারম্যান ফারুক আজম প্রমুখ। একই অনুষ্ঠানে খালিদ মাহমুদ চৌধুরী সফল মৎস্যচাসীদের মাঝে পুরস্কার তুলে দেন এবং ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্টির ৩০০ ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে শিক্ষাবৃত্তি, কৃষকদের মাঝে কৃষি উপকরণ ও দুঃস্থ মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে এডিপি ফান্ডের শিক্ষা বৃত্তি বিতরণ করেন এবং পরে তিনি বোচাগঞ্জ উপজেলা প্রশাসন ও মৎস্য দপ্তর কর্তৃক আয়োজিত জাতীয় মৎস্য পোনা অবমুক্ত ও হলরুমে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন।

ঢাকাটাইমস/১৯জুলাই/টিএ/এমআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত