পাল্টা হামলায় ছাত্রলীগ নেতাকে পিটুনি

ঢাবি প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২২ জুলাই ২০১৮, ২১:১২

সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনকারীদের কর্মসূচিতে হামলার পর পাল্টা হামলায় ছাত্রলীগের এক নেতা আহত হয়েছেন।

হামলার এক পর্যায়ের পাল্টা এই হামলার ঘটনা ঘটেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় লাগোয়া সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে।

গত ৩০ জুন থেকে কোটা আন্দোলনকারীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলা ও পিটুনির মধ্যে এই প্রথম পাল্টা হামলার কোনো ঘটনা ঘটেছে।

রবিবার বিকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে সমাবেশ ও মানববন্ধনের আয়োজন করে আন্দোলনকারীরা। কর্মসূচি শেষে সেখানে হয় হামলা।

মিনিট দশেক হামলার পর ছত্রভঙ্গ হয়ে যায় আন্দোলনকারীরা। এরপর সেখান থেকে ছাত্র লীগের বেশিরভাগ নেতা-কর্মী চলে আসে।

অন্যদিকে এখানে ধাওয়ার মুখে আন্দোলনকারীদের একটি অংশ চলে যায় সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে। সেখানেও ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতা-কর্মী ধাওয়া দিতে যায়। কিন্তু পাল্টা হামলার শিকার হয়।

উদ্যানে ছাত্রলীগের একটি দলকে দেখে ছত্রভঙ্গ হয়ে যাওয়া আন্দোদলনকারীরা এক হতে শুরু করে আর তারা জিয়াউর রহমান হল ছাত্রলীগের কর্মসূচি ও পরিকল্পনা বিষয়ক সম্পাদক হাসিবুল হোসেন শান্তকে ধরে ফেলে পিটুনি দেয়। 

আন্দোলনকারীদের একজন বলেন, ‘ছাত্রলীগের নেতাকর্মী এক আন্দোলনকারীকে ধাওয়া দিয়ে উদ্যান ভেতরে নিয়ে যায় এবং মারতে থাকে। এমন সময় আমরা সেখানে গিয়ে উপস্থিত হই এবং দেখি শান্ত আমাদের একজনকে মারছে। তখন আমরা তাকে ধাওয়া দেই।’

ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা আন্দোলনকারীদের ওপর আরেক দফা হামলা করে এলিফেন্ট রোডে। সেখান থেকে কোটা আন্দোলনের দুই নেতা বিন ইয়ামিন ও সোহরাব হোসেনকে তুলে নেয়ার অভিযোগ উঠে। এই দুই জনই কোটা নিয়ে আন্দোলনকারী সংগঠন বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক।

 

গত ২৭ জুন কোটা আন্দোলনের নেতা রাশেদ খাঁন ফেসবুক লাইভে এসে আবার আন্দোলনে নামার তাগাদা দেন। পাশাপাশি ‘মনে হয় তার বাপের দেশ’-এই জাতীয় একটি বক্তব্য দিয়ে পরিস্থিতি উত্তপ্ত করে ফেলেন।

এই কটূক্তি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে করা হয়েছে অভিযোগ করে রাশেদ খাঁনের বিরুদ্ধে মামলা করেন এক ছাত্রলীগ নেতা।

পাশাপাশি ৩০ জন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কোটা আন্দোলনকারীদের ওপর হামলা হয়। এরপর ২ জুলাই কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের পাশাপাশি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়েও ছাত্রদের পেটানো হয়। একজনকে সেখানে হাতুড়িপেটা করে পায়ের হাড় ভেঙে ফেলা হয়।

এরপর ১৫ জুলাই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদের ওপর আবার হামলার পাশাপাশি শিক্ষকদের একটি কর্মসূচিকেও ঘিরে রাখে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা।

গত শনিবার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে দেয়া সংবর্ধনায় প্রধানমন্ত্রী ছাত্রলীগ নেতাদেরকে বাড়াবাড়ি না করতে নির্দেশ দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

ঢাকাটাইমস/২২জুলাই/এনএইচএস/ডব্লিউবি

সংবাদটি শেয়ার করুন

শিক্ষা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত