জুলাই মাসে ডিএমপিতে শ্রেষ্ঠ হলেন যারা

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১২ আগস্ট ২০১৮, ২১:২৭

ঢাকা মহানগরের আইনশৃঙ্খলা রক্ষা ও জননিরাপত্তা বিধানসহ ভালো কাজের স্বীকৃতি হিসেবে ডিএমপির বিভিন্ন পর্যায়ের পুলিশ সদস্যদের নগদ অর্থ দিয়ে পুরস্কৃত করছেন ডিএমপির কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া।

রবিবার বেলা ১১টার দিকে ডিএমপি সদর দপ্তরে জুলাই মাসের মাসিক অপরাধ পর্যালোচনা সভায় বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার দেয়া হয়।

জুলাই মাসে ঢাকা মহানগর পুলিশের শ্রেষ্ঠ বিভাগ নির্বাচিত হয়েছে লালবাগ বিভাগ। শ্রেষ্ঠ সহকারী পুলিশ কমিশনার পল্লবী জোনের জ্যেষ্ঠ সহকারী কমিশনার এবিএম জাকির হোসেন।

শ্রেষ্ঠ পুলিশ পরিদর্শক হয়েছেন কামরাঙ্গীরচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. শাহীন ফকির। শ্রেষ্ঠ পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) বাড্ডা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) কাজী আবুল কালাম, শ্রেষ্ঠ পুলিশ পরিদর্শক (অপারেশনস) কদমতলী থানার  মো. মাহবুব আলম, শ্রেষ্ঠ উপপরিদর্শক এসআই যৌথভাবে এসআই কৃষ্ণ পদ মজুমদার (কোতয়ালি থানা) ও এসআই রুহুল আমিন হাওলাদার (ভাষাণটেক থানা)।

শ্রেষ্ঠ সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) যৌথভাবে এএসআই হাসানুর রহমান (রূপনগর থানা) ও এএসআই  মো. হেলাল উদ্দিন (মতিঝিল থানা)। শ্রেষ্ঠ ওয়ারেন্ট তামিলকারী অফিসার এএসআই মো. হেলাল উদ্দিন (মতিঝিল থানা), শ্রেষ্ঠ অস্ত্র উদ্ধারকারী অফিসার এসআই টিএম ফরিদুল আলম (বনানী থানা), শ্রেষ্ঠ বিস্ফোরক উদ্ধারকারী অফিসার এসআই কৃষ্ণ পদ মজুমদার (কোতয়ালি থানা), শ্রেষ্ঠ মাদকদ্রব্য উদ্ধারকারী অফিসার এসআই এসআই কৃষ্ণ পদ মজুমদার (কোতয়ালি থানা)।

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের শ্রেষ্ঠ বিভাগ হয়েছে ডিবি-পশ্চিম বিভাগ। ডিবির শ্রেষ্ঠ সহকারী পুলিশ কমিশনার হয়েছেন জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ কমিশনার রাহুল পাটওয়ারী গাড়ি চুরি প্রতিরোধ টিম ডিবি-পশ্চিম, চোরাই গাড়ি উদ্ধারে পুরস্কৃত হয়েছেন জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ কমিশনার মো. রফিকুল আলম  গাড়ি চুরি প্রতিরোধ টিম ডিবি-দক্ষিণ, মাদকদ্রব্য উদ্ধারে পুরস্কৃত হয়েছেন জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ কমিশনার রাহুল পাটওয়ারী গাড়ি চুরি প্রতিরোধ টিম ডিবি-পশ্চিম।

অস্ত্র উদ্ধারে পুরস্কৃত হয়েছেন অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার গোলাম সাকলায়েন ক্যান্টনমেন্ট জোনাল টিম ডিবি-উত্তর, অজ্ঞানপার্টি ও মলমপার্টি গ্রেপ্তারে পুরস্কৃত হয়েছেন জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ কমিশনার এ জেড এম তৈমুর রহমান অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার ও প্রতিরোধ টিম ডিবি-দক্ষিণ।

ট্রাফিকের শ্রেষ্ঠ বিভাগ নির্বাচিত হয়েছে ট্রাফিক-পূর্ব বিভাগ। শ্রেষ্ঠ জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ কমিশনার মো. জিন্নাত আলী মোল্লা উত্তরা ট্রাফিক জোন, শ্রেষ্ঠ ট্রাফিক পরিদর্শক বিপ্লব ভৌমিক রামপুরা ট্রাফিক জোন, শ্রেষ্ঠ টিএসআই সার্জেন্ট যৌথভাবে হয়েছেন সার্জেন্ট মো. মাজেদুল হক ও সার্জেন্ট জুবরিয়া লালবাগ ট্রাফিক জোন ট্রাফিক-দক্ষিণ বিভাগ।

ট্রাফিক সচেতনতামূলক কর্মসূচির জন্য পুরস্কৃত হয়েছেন ট্রাফিক পূর্ব বিভাগের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার নাজমুন নাহার ও ট্রাফিক পূর্ব বিভাগের ওয়ারী জোনের জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ কমিশনার এসএম বজলুর রশিদ।

বিট পুলিশিং কার্যক্রমে পুরস্কৃত হয়েছেন রমনা বিভাগের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার মো. আব্দুল্লাহহিল কাফি, লালবাগ বিভাগের কোতয়ালি জোনের জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ কমিশনার মো. বদরুল হাসান, কামরাঙ্গীরচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. শাহীন ফকির, মোহাম্মদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. জামাল উদ্দিন মীর ও হাজারিবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. ইকরাম আলী।

হত্যা মামলার রহস্য উদঘাটন ও আসামি গ্রেপ্তারে সম্মিলিতভাবে বিশেষ পুরস্কার পেয়েছেন উত্তরা বিভাগের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার মো. কামরুজ্জামান সরদার, অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার মো. শাহজাহান ডিবি-উত্তর, অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার গোলাম সাকলায়েন ডিবি-উত্তর, জ্যেষ্ঠ সহাকরী পুলিশ কমিশনার ইমতিয়াজ মাহবুব খিলগাঁও জোনাল টিম ডিবি-পূর্ব বিভাগ, জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ কমিশনার মো. শাহাদত হোসেন সুমা পল্লবী জোনাল টিম, জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ কমিশনার তহিদুল ইসলাম কাউন্টার টেরোরিজম বিভাগ, এসআই রেদওয়ান খান যাত্রাবাড়ী থানা ও এসআই সজিব দে খিলগাঁও থানা।

ছিনতাইকারী গ্রেপ্তারে সম্মিলিতভাবে পুরস্কৃত হয়েছেন- সার্জেন্ট মো. নুরতাজুল ইসলাম সবুজবাগ ট্রাফিক জোন, এএসআই এসএম রাসেল গুলশান পুলিশ ফাঁড়ি ও এএসআই মো. আবু বক্কর সিদ্দিক শাহবাগ ট্রাফিক জোন।

ডাকাত গ্রেপ্তারে যৌথভাবে পুরস্কৃত হয়েছেন জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ কমিশনার আহসানুজ্জামান কোতয়ালি জোনাল টিম ডিবি-দক্ষিণ ও এসআই মো. আব্দুল্লাহ বিশ্বাস পল্টন মডেল থানা। জাল টাকাসহ আসামি গ্রেপ্তারে অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার মো. শফিকুল ইসলাম ডিবি-পশ্চিম, প্রতারণার সাথে জড়িত ৫ নাইজেরিয়ান গ্রেপ্তারে জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ কমিশনার আজহারুল ইসলাম মুকুল সাইবার সিকিউরিটি ইউনিট।

ফেসবুকের মাধ্যমে অপরাধ করায় অপরাধী গ্রেপ্তারের সম্মিলিতভাবে পুরস্কৃত হয়েছেন সাইবার সিকিউরিটি ইউনিটের জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ কমিশনার সাইদ নাসিরুল্লাহ, সহকারী পুলিশ কমিশনার ইশতিয়াক আহমেদ ও পুলিশ পরিদর্শক মো. রফিকুল ইসলাম। অপহৃত ভিকটিম উদ্ধার ও আসামি গ্রেপ্তারে যৌথভাবে পুরস্কৃত হয়েছেন এসআই মো. সাজ্জাদুর রহমান গেন্ডারিয়া থানা ও এসআই মোছা. পারভিন আক্তার।

চুরি মামলার আসামি গ্রেপ্তারে সার্জেন্ট সাদিক মাশরুর কোতয়ালি ট্রাফিক জোন, ইয়াবা উদ্ধার সার্জেন্ট মো. কায়সার আহমেদ ডেমরা ট্রাফিক জোন, ভূয়া পুলিশ গ্রেপ্তারে সার্জেন্ট হাসনাত মিরপুর ট্রাফিক জোন ও গুরুত্বপূর্ণ মামলার চার্জশিট দেয়ায় পুলিশ পরিদর্শক মো. আরিফুল হক সিরিয়াস ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন বিভাগ পুরস্কৃত হয়েছেন।

এছাড়া বিশেষ ক্যাটাগরিতে পুরস্কারপ্রাপ্তরা হলেন, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ক্রাইম অ্যান্ড অপস), উপ-পুলিশ কমিশনার (সাইবার সিকিউরিটি, স্পেশাল অ্যাকশন গ্রুপ), আইএডি, অপরাধ বিভাগ, মিডিয়া, রমনা, প্রটেকশন, প্রসিকিউশন) ও সিস্টেম অ্যানালিস্ট ডিএমপি।

ঢাকাটাইমস/১২আগস্ট/এএ/এমআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

প্রশাসন বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত