‘বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নপূরণে শেখ হাসিনাকে আবার প্রধানমন্ত্রী চাই’

আলফাডাঙ্গা প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৫ আগস্ট ২০১৮, ২৩:১১ | প্রকাশিত : ১৫ আগস্ট ২০১৮, ২৩:০৭

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন বাস্তবায়নে শেখ হাসিনাকে আবার প্রধানমন্ত্রী করার কোনো বিকল্প নেই বলে মনে করেন বাংলাদেশ কৃষক লীগের সহসভাপতি এবং ফরিদপুর জেলা আওয়ামী লীগের নির্বাহী কমিটির সদস্য আরিফুর রহমান দোলন। এজন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে দেশ ও জনগণের স্বার্থে আওয়ামী লীগকে আবার বিজয়ী করার আহ্বান জানান তিনি।

নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে দোলন বলেন, ‘আপনারা প্রস্তুত থাকুন, তৈরি থাকুন। আগামীতে শেখ হাসিনাকে আবারও প্রধানমন্ত্রী করতে হবে। কারণ বঙ্গবন্ধুর অনেক স্বপ্ন এখনও বাস্তবায়ন হয়নি। সেটি বাস্তবায়ন করতে হলে বঙ্গবন্ধু কন্যাকে আবার প্রধানমন্ত্রী করার কোনো বিকল্প নেই।’

বুধবার সন্ধ্যায় ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার সহস্রাইল বাজারে এক আলোচনা সভায় বক্তব্য দিচ্ছিলেন দোলন। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩তম শাহাদাতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে শেখর ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ এই আলোচনাসভা ও গণভোজের আয়োজন করে।

ফরিদপুর-১ (আলফাডাঙ্গা-বোয়ালমারী-মধুখালী) আসনকে আওয়ামী লীগের ঘাঁটি উল্লেখ করে এই আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশী দোলন বলেন, ‘আমি এমপি হতে চাই না, আমি চাই বঙ্গবন্ধুর আদর্শের বাস্তবায়ন। আর বঙ্গবন্ধুর আদর্শ হচ্ছে এই দেশের মেহনতি মানুষ, খেটে খাওয়া মানুষ স্বাচ্ছন্দে থাকবে, ভালো থাকবে। তাদের সম্মান নিশ্চিত হবে। তৃণমূলের মানুষের স্বাস্থ্য, শিক্ষা ও যোগাযোগব্যবস্থার উন্নতি হবে।’

আরিফুর রহমান দোলন বলেন, ‘আমি মনে করি বঙ্গবন্ধুর আদর্শের বাস্তবায়নই হবে দেশকে এগিয়ে নেওয়ার প্রধান হাতিয়ার। এই আলফাডাঙ্গা-বোয়ালমারী ও মধুখালী অঞ্চল উন্নয়নে দেশের প্রথম কাতারে থাকুক এটাই আমার চাওয়া। আমরা সবাই মিলে যেন বঙ্গবন্ধুর আদর্শের বাস্তবায়ন করতে পারি সেটাই আমার প্রচেষ্টা।’

দোলন বলেন, ‘বড় দুঃখ-ভারাক্রান্ত হৃদয় নিয়ে আমি আপনাদের মাঝে দুটো কথা বলার জন্য উপস্থিত হয়েছি। বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক অনুষ্ঠানে যেভাবে কথা বলি, বক্তব্য রাখি সেরকম মানসিকতা আমার নেই। অনেক কথা জমা আছে, কিন্তু মুখ দিয়ে বের হচ্ছে না।’ এ সময় তিনি ১৫ আগস্টের ঘৃণ্যতম হত্যাকাণ্ডের কথা উল্লেখ করে আবেগপ্রবণ হয়ে যান। বঙ্গবন্ধুসহ এই দিনে পরিবারের আরও যারা শহীদ হয়েছেন তাদের রুহের মাগফেরাত কামনা করেন।

বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বাস্তবায়নের তাগিদ দিয়ে দোলন বলেন, “আজ সকালে টিভিতে বঙ্গবন্ধুর একটি ভাষণ শুনছিলাম। সেখানে বঙ্গবন্ধু বলছেন, ‘এই যে ডাক্তার সাহেব, এই যে ইঞ্জিনিয়ার সাহেব, এই যে অফিসার সাহেব আপনারা চলেন কার টাকায়। এই দেশের মেহনতি মানুষের টাকায় আপনারা চলেন। জনগণের ট্যাক্সের টাকায় আপনাদের বেতন হয়।’ বঙ্গবন্ধু তাদের উদ্দেশ্যে বলেছেন সাধারণ মানুষ, খেটে খাওয়া মানুষের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করা যাবে না। তাদেরকে উপযুক্ত সম্মান দিয়ে চলতে হবে।”

‘বঙ্গবন্ধুর আদর্শ এটাই। কিন্তু আমরা দেখতে পাচ্ছি কেউ কেউ জনগণের ভোট নিয়ে জনগণের ম্যান্ডেট নিয়ে ভোগ-বিলাসে ব্যস্ত আছেন। সাধারণ জনগণকে, আওয়ামী লীগের তৃণমূল নেতাকর্মীকে অসম্মান করছে। এটি বঙ্গবন্ধুর আদর্শ না।’

কাঞ্চন মুন্সী ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান দোলন বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর শোনার বাংলা গড়ার জন্য তার বড় মেয়ে শেখ হাসিনা এবং পর্দার আড়ালে তার ছোট মেয়ে শেখ রেহানা অক্লান্ত পরিশ্রম করছেন। আমরা যারা বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক আমাদের আরও বেশি করে তাদেরকে সমর্থন যোগাতে হবে। সেটি যদি করতে হয় জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এমন প্রার্থীকে নৌকা মার্কায় প্রার্থী করতে হবে যারা সাধারণ মানুষের সম্মান করতে পারে। আওয়ামী লীগের তৃণমূল নেতাকর্মী ভোটারদের সম্মান করতে পারে।’  

আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে আমাদের ধারণ করতে হবে। এর জন্য আগামী নির্বাচনে জামায়াত-বিএনপি কুচক্রী মহলকে যেকোনো মূল্যে ক্ষমতার বাইরে রাখতে হবে। তারা কিন্তু এক হচ্ছে, ভেতরে ভেতরে ষড়যন্ত্র করছে। কারণ যেভাবে সারাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে, বঙ্গবন্ধুর আদর্শে যেভাবে উন্নয়ন হচ্ছে, তাদের কিন্তু ঘুম হারাম হয়ে গেছে।’ এ সময় তিনি দলীয় নেতাকর্মীকে সবধরনের ষড়যন্ত্র সম্পর্কে সজাগ থাকতে বলেন।

আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য দেন- আলফাডাঙ্গা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এম এম জালাল উদ্দিন আহমেদ, ফরিদপুর জেলা পরিষদ সদস্য ও জেলা কৃষকলীগের সদস্য সচিব শেখ শহীদুল ইসলাম শহীদ, আলফাডাঙ্গা সদর ইউপি চেয়ারম্যান এ কে এম আহাদুল হাসান আহাদ, শেখর ইউপি চেয়ারম্যান ইসরাফিল মোল্লা, গোপালপুর ইউপি চেয়ারম্যান ও ফরিদপুর জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ইনামুল হাসান, সাবেক বুড়াইচ ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল ওহাব পান্নু, সহস্রাইল বাজার বণিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক চুন্নু বিশ্বাস, শেখর ২নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু জাফর খান, শেখর ইউপি আওয়ামী লীগ নেতা আনিসুর রহমান মিলন প্রমুখ।

(ঢাকাটাইমস/১৫আগস্ট/জেআর/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজপাট বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত