প্রথম বক্তৃতায় বাজিমাত বেনজিরপুত্র বিলওয়ালের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৮ আগস্ট ২০১৮, ১৬:০৩ | প্রকাশিত : ১৮ আগস্ট ২০১৮, ১৫:৫৬

পাকিস্তান পার্লামেন্টের প্রথম অধিবেশনে বক্তৃতা দিয়ে সাংবাদিক, রাজনীতিবিদ ও সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারকারীদের মন কেড়ে নিয়েছেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেনজির ভুট্টোর ছেলে বিলওয়াল ভুট্টো জারদারি।

শুক্রবার জাতীয় পরিষদে  ২৯ বছর বয়সী বেনজিরপুত্র বিলওয়ালের পরিপক্ক ও সুসংগঠিত বক্তৃতা শুনে দেশটির সবচেয়ে যোগ্য পার্লামেন্টেরিয়ানও ভাবতে শুরু করেছেন। তিনি তার বক্তব্যে গুরুত্বপূর্ণ সব বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা করেছেন।

পাকিস্তানের জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক জাহিদ হুসাইন বিলওয়ালের প্রশংসা করে বলেছেন, ‘তিনি পরিমিত ও পরিপক্ক বক্তৃতা দিয়েছেন’

টেলিভিশন উপস্থাপক কাসিফ আব্বাসি। যিনি ইতোমধ্যে তরুণ এই নেতার নির্বাচনী প্রচারণা দেখে মুগ্ধ।

এক টুইট বার্তায় বলেন, ‘আমি যতই তার বক্তব্য শুনেছি, ততই মুগ্ধ হয়েছি। তিনি পাকিস্তানের সমস্যা, চ্যালেঞ্জগুলো নিয়ে কথা বলেছেন। তিনি বিরোধী দলে তাই কিছু রাজনীতিও করবেন।’

জনপ্রিয় কলামিস্ট খুররাম হুসাইন বিলওয়ালের প্রশংসায় পঞ্চমুখ। তিনি বলেছেন, ‘ওয়াও! এই মুহূর্তে পার্লামেন্টের সবচেয়ে অভিজ্ঞ সাংসদ বিলওয়াল ভুট্টো।’

বিশিষ্ট কলামিস্ট নাদিম ফারুক পারাচা বিলওয়ালের প্রশংসা করে বলেছেন, প্রথমবার সাংসদ হিসেবে তিনি চমৎকার বিষয়বস্তু নিয়ে আলোচনা করেছেন।

এক টুইট বার্তায় তিনি বলেন, ‘ভালো বলেছেন বিলওয়াল ভুট্টো জারদারি। চমৎকার বক্তৃতা। কোনো জোশ নয়, কোনো প্রতিক্রিয়াশীল আড়ম্বরপূর্ণ ভাষা নয়। যা ঘটেছে শাহবাজ খানকে মেনে নেয়া উচিত। ইমরান খান প্রধানমন্ত্রী। তাকেও খোলস থেকে বের হওয়া উচিত।’

জাতীয় পরিষদের শুক্রবারের অধিবেশনেই পাকিস্তানের ২২তম প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন তারকা ক্রিকেটার ও পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ দলের প্রধান ইমরান খান। শনিবার তিনি শপথও নিয়েছেন।

পার্লামেন্টে প্রধানমন্ত্রী নির্বাচনের পর ভাষণ দিতে দাঁড়ান এই প্রথম পার্লামেন্টে নির্বাচিত হয়ে আসা বিলাওয়াল। নানা ও মায়ের মতো পাশ্চাত্যে শিক্ষিত বিলাওয়াল ভাষণটি দেন ইংরেজিতে।

বক্তৃতায় যা বলেছেন বিলওয়াল

ইমরান খানকে উদ্দেশ্যে করে বিলাওয়াল শুরুতেই বলেন, ‘খান সাহেব, আপনি এখন আর কোনো দলের চেয়ারম্যান নন, আপনি দেশের প্রধানমন্ত্রী। আপনি তাদেরও প্রধানমন্ত্রী যারা আপনাকে ভেড়া বলে, যারা আপনাকে ছাগল বলে, যারা আপনাকে গাধা বলে এমনকি যারা আপনাকে জিন্দা লাশ বলে।’

ভোট কারচুপির অভিযোগ তুলে আসা পিপিপির চেয়ারম্যান বিলওয়াল পাকিস্তানের অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক সঙ্কট এবং সেই চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করে গণতন্ত্রের ধারা অব্যাহত রাখতে তার দলের পক্ষ থেকে সহায়তার প্রতিশ্রুতিও দেন।

নতুন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে নির্বাচিতের বদলে ‘মনোনীত’ অভিহিত করে বলেন, “খান সাহেব আপনি ১০০ দিনের রোড ম্যাপ দিয়েছেন। আমরা দেখতে চাই, আপনি কী করে এক কোটি চাকরির ব্যবস্থা করেন, কীভাবে দারিদ্র্য দূর করেন। আপনি বলেছেন, আপনি আত্মহত্যা করবেন, তবুও আইএমএফের কাছে হাত পাতবেন না। আমরা দেখতে চাই, আপনি কীভাবে অর্থনৈতিক সঙ্কট মোকাবেলা করেন।’

‘আমরা সংবাদপত্রের স্বাধীনতা ও মানবাধিকার হারিয়েছি। আমরা অর্থনৈতিক চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করতে হচ্ছে, আমরা কর্জের মধ্যে ডুবছি। বৈদিশিক নীতির ক্ষেত্রেও আমরা চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হচ্ছি।’

তিনি প্রতিবেশী দেশগুলোর সঙ্গে সম্পর্কের কথা উল্লেখ করে বিশেষ করে আফগানিস্তানের প্রসঙ্গ টেনে বলেন, ‘পাকিস্তান এখন সমস্যার অংশ, সমাধানের নয়। এই সমস্যা সমাধানে আমাদের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে নজর দিতে হবে।’

সূত্র: ডন নিউজ ও দ্য এক্সপ্রেস ট্রিবিউন

(ঢাকাটাইমস/১৮আগস্ট/এসআই)

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত