ফেসবুক মেসেঞ্জারে আড়ি পাততে চায় যুক্তরাষ্ট্র

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৯ আগস্ট ২০১৮, ১০:৪৫ | প্রকাশিত : ১৮ আগস্ট ২০১৮, ১৮:৩০

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের মেসেঞ্জার অ্যাপে আড়ি পাততে প্রতিষ্ঠানটির ওপর চাপ প্রয়োগের চেষ্টা করছে ট্রাম্প প্রশাসন। যাতে করে সন্দেহভাজনদের কথোপথন শুনে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী অপরাধ প্রমাণ করতে পারে। খবর বার্তা সংস্থা রয়টার্সের।

এই বিষয়ে মামলার বিষয়ে তিন ব্যক্তি জানায়, নজরদারি বাড়াতে ফেসবুক কোম্পানিকে তাদের পণ্যের পরিবর্তন করতে বাধ্য করা যেতে পারে কিনা- এই কারণে বিষয়টি পুনরায় উঠানো হচ্ছে।

এর আগে ক্যালিফোর্নিয়ার ফেডারেল কোর্টে এমন একটি অরিপোর্টকৃত মামলা বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। এই কারণে এই বিষয়ে প্রকাশ্যে কোনো তথ্য নেই।

তবে ওই তিনজন ব্যক্তি রয়টার্সকে বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের বিচার বিভাগের এমন দাবিতে আপত্তি জানিয়েছে ফেসবুক।  

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন জানায়, মঙ্গলবার মেসেঞ্জার সংক্রান্ত মামলার শুনানি অনুষ্ঠিত হয়। ফেসবুকে নজরদারির অনুরোধকে প্রত্যাখান করাকে আদালত অবমাননা বলা হচ্ছে।  

ফেসবুক এবং বিচার বিভাগ এই ব্যাপারে মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে।

একজন জানিয়েছেন, ক্যালিফোর্নিয়ার ফ্রেসনোতে এমএস-১৩ গ্যাং-এর তদন্ত করতে গিয়ে মেসেঞ্জারের বিষয়টি উঠে আসে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রায়ই এই গ্যাং-কে ব্যবহার করে থাকেন। এই গ্রুপটি যুক্তরাষ্ট্র, মধ্য আমেরিকা সক্রিয়।

যুক্তরাষ্ট্রের অভিবাসন নীতির শিথিল করার প্রতীক হিসেবে এবং ইমিগ্রেশন আইন প্রবর্তনের জন্য তথাকথিত ‘আশ্রয়স্থল’ আইনকে আক্রমণ করার একটি কারণ হিসেবে পুলিশ অভিবাসীদের সম্পূর্ণরূপে আটক রাখতে বাধা দেয়।

(ঢাকাটাইমস/১৮আগস্ট/এসআই)

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত