কেরালার বন্যার্তদের জন্য গুগলের অফলাইন পরিষেবা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৯ আগস্ট ২০১৮, ১২:৫০

ভারতের কেরালা রাজ্যে স্মরণকালের সবচেয়ে ভয়াবহ বন্যা দেখা দিয়েছে। ইতোমধ্যে গত দশ দিনে প্রায় চার শ মানুষের মৃত্যু হয়েছে। এখনও বন্যা পরিস্থিতি উন্নতির কোনো লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না। এমতাবস্থায় বন্যায় আটকা পড়া মানুষদের সাহায্য এগিয়ে এসেছে গুগল, ফেসবুক ও টুইটারের মত সংস্থাগুলো।

কেরালায় গুগল ম্যাপের অফলাইন পরিষেবা ‘প্লাস কোড’ চালু করেছে গুগল। এর ফলে অফলাইনে থাকলেও বন্যা দুর্গতরা তাদের অবস্থান শেয়ার করতে পারবেন। এতে বন্যায় আটকে পড়া মানুষকে খুঁজে পাওয়া সহজ হবে। ত্রাণকর্মীরা সহজেই এই কোড ব্যবহার করে তাদের খুঁজে বের করতে পারবেন বলে জানিয়েছে গুগল।

‘প্লাস কোড’ আসলে ছয় থেকে সাতটি বর্ণ এবং সংখ্যা দিয়ে গঠিত একটি সংকেত। এই সংকেত তৈরি করতে গেলে অ্যান্ড্রয়েড ফোন ব্যবহারকারীকে ‘গুগল ম্যাপস’ অ্যাপ অন করতে হবে। ম্যাপের কোনও একটি জায়গা স্পর্শ করে থাকলে পিন আসবে। সেই পিনকে ম্যাপের একটি জায়গায় ড্রপ করতে হবে। এরপরে একটি বক্সে বন্যাদুর্গতরা কেমন রয়েছেন তা লিখে জানাতে পারবেন। তারপর স্ক্রল ডাউন করলেই পাওয়া যাবে প্লাস কোড। এসএমএস বা ভয়েস কলের মাধ্যমে বন্যায় আটকে পড়া মানুষজন সেই প্লাস কোড শেয়ার করতে পারবেন।

ত্রাণকর্মীরা বা আটকে পড়া মানুষদের আত্মীয়রা এই প্লাস কোড গুগল ম্যাপে টাইপ করলেই বন্যাদুর্গতদের সম্পর্কে সব তথ্য পেয়ে যাবেন।

গুগলের আগেই কেরালার বন্যার্তদের পাশে দাঁড়িয়েছে ফেসবুক, টুইটার। ফেসবুক চালু করেছে ‘সেফটি চেক’ ব্যবস্থা। ‘সেফটি চেক’ এর মাধ্যমে ফেসবুক ব্যবহারকারীরা নিরাপদ রয়েছেন কি না, তা জানাতে পারেন।

অপরদিকে টুইটার লাইট ভার্সন চালু করা হয়েছে। টুইটারে ‘কেরলফ্লাডস-২০১৮’ বা ‘কেরলফ্লাডস’ লিখে হ্যাশট্যাগ করে নিজেদের অবস্থা ত্রাণকর্মীদের কাছে পৌঁছে দিতে পারবেন বন্যায় আটকে পড়া মানুষরা।

ঢাকাটাইমস/১৯আগস্ট/একে/এমআর

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত