রাজশাহীতে কোথায় কখন ঈদের জামাত

ব্যুরো প্রধান, রাজশাহী
| আপডেট : ২১ আগস্ট ২০১৮, ১৬:৩০ | প্রকাশিত : ২১ আগস্ট ২০১৮, ১৫:৫৮

 

পবিত্র ঈদুল আযহা উদযাপনে রাজশাহীতে সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। প্রস্তুত হয়েছে ঈদগাহগুলো। সরকারি-বেসরকারি নানা প্রতিষ্ঠানে আলোকসজ্জারও আয়োজন করা হয়েছে। নেয়া হয়েছে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

ইসলামিক ফাউন্ডেশনের রাজশাহী বিভাগের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক একেএম মনিরুল ইসলাম বলেন, নগরীর শাহ মুখদুম (র.) কেন্দ্রীয় ঈদগায় বরাবরের মতো ইমামতি করবেন হযরত মুখদুম (র.) জামিয়া ইসলামীয়া মাদরাসার অধ্যক্ষ মুফতি শাহাদাৎ আলী। ঈদের প্রধান এই জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল ৮টায়। তবে বৈরী আবহাওয়া হলে একই সময় প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হবে হযরত শাহমখদুম (রহ.) দরগা মসজিদে।

এদিকে, রাজশাহী সিটি করপোরেশন, ইসলামিক ফাউন্ডেশন ও রাজশাহী শাহমখদুম (রহ.) দরগা ট্রাস্ট এবং স্থানীয় সূত্রে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, মহানগরীতে প্রথম দুটি ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল ৭টায়। মহানগরীর আম চত্বর আহলে হাদিস মাঠ এবং রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় মাঠে অনুষ্ঠিত হবে এ দুটি ঈদ জামাত।

এছাড়া সকাল সাড়ে ৭টায় মহানগরীর উপশহর কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ, বড়বনগ্রাম আল ফারুক জামে মসজিদ, শালবাগান গণপূর্ত মাঠ, বিনোদপুর আহলে হাদিস জামে মসজিদ এবং মেহেরচন্ডি নতুনপাড়া ঈদগাহে জামাত অনুষ্ঠিত হবে।

হড়গ্রাম নতুনপাড়া ঈদগাহে ঈদের প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত হবে সাড়ে ৭টায়। এখানে সাড়ে ৮টায় অনুষ্ঠিত হবে দ্বিতীয় জামাত।

নগরীর বালিয়াপুকুর জামে মসজিদে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল পৌনে ৮টায়। সকাল ৮টায় ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে নগরীর সাহেববাজার বড় রাস্তা, টিকাপাড়া ঈদগাহ মহানগর ঈদগাহ, হাজী লাল মুহাম্মদ ঈদগাহ, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ঈদগাহ, লোকনাথ স্কুল মাঠ, পাঁচানীমাঠ ঈদগাহ, ডাঁশমারি পূর্বপাড়া ঈদগাহ, ডাঁশমারি বাইতুল মারেফত মাঠ, সাতবাড়িয়া ঈদগাহ, মেহেরচন্ডি ঈদগাহ, মির্জাপুর ঈদগাহ, মির্জাপুর পশ্চিমপাড়া জামে মসজিদ, বুলনপুর ঈদগা, মসজিদ-ই-নূর ঈদগাহ, কয়েরদাড়া ঈদগাহ, মদিনাতুল উলুম কামিল মাদ্রাসা মাঠ, ডিঙ্গাডোবা ঈদগাহ মাঠ, কাশিয়াডাঙ্গা সিটি গেট ঈদগাহ, কাশিয়াডাঙ্গা ঈদগাহ, মির্জাপুর পূর্বপাড়া ঈদগাহ, ফিরোজাবাদ ঈদগাহ, নওহাটা স্কুল মাঠ ও টিকরিপাড়া ঈদগাহে।

সকাল সোয়া ৮টায় রাজশাহী বিভাগীয় স্টেডিয়াম (তেরখাদিয়া) ঈদগাহ, শিরোইল সরকারি হাই স্কুল ঈদগাহ, মালদা কলোনি ঈদগাহ এবং রামচন্দ্রপুর মহলদারপাড়া ঈদগাহে ঈদুল আযহার নামাজ অনুষ্ঠিত হবে।

সকাল সাড়ে ৮টায় রাজশাহী জজ কোর্ট ঈদগাহ ময়দান, লক্ষ্মীপুর ভাটাপাড়া ঈদগাহ, রায়পাড়া বসরী ঈদগাহ, কাঠালবাড়ীয়া ঈদগাহ, রায়পাড়া ঈদগাহ, রাজশাহী কোর্ট স্টেশন ঈদগাহ, মোল্লাপাড়া ঈদগাহ, লক্ষ্মীপুর ভাটাপাড়া ঈদগাহ মাঠ, কোর্ট বুলনপুর ঈদগাহ মাঠ, খোজাপুর গোরস্থান ঈদগাহ মাঠ, জাহাজঘাট মোড় ঈদগাহ মাঠ, খোজাপুর ১ নম্বর ঈদগাহ, নওহাটা আকবরী মসজিদ, শহীদবাগ জামে মসজিদ এবং ধরমপুর মধ্যপাড়া ঈদগাহ মাঠে জামাত অনুষ্ঠিত হবে।

নগরীর উপশহর কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ ঈদগাহ, চৌদ্দপাই মোড় ঈদগাহ, বুধপাড়া ঈদগাহ ময়দান, খাদেমুল ইসলাম স্কুল অ্যান্ড কলেজ এবং তালাইমারী বাজার ঈদগাহ ময়দানে একই সময়ে ঈদের নামাজ অনুষ্ঠিত হবে।

এদিকে ঈদের নামাজ আদায় শেষে সিটি করপোরেশন নির্ধারিত নগরীর ২১০টি স্থানে পশু কোরবানি দেবেন মুসল্লিরা। ওই রাতের মধ্যে বিশেষ ব্যবস্থায় কুরবানি পশুর বর্জ্য সরিয়ে নেবে সিটি করপোরেশন।

ঈদের ছুটিতে নগরীতে বাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে রাজশাহী মহানগর পুলিশ (আরএমপি)। নগরীর প্রধান ঈদ জামাত ছাড়াও বড় ঈদ জামাতগুলো ঘিরে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেবে পুলিশ।

আরএমপির মুখপাত্র ইফতেখায়ের আলম জানান, পর্যাপ্ত নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে কাজ করবে থানা, টহল ও গোয়েন্দা পুলিশ। প্রতিটি জোনের সহকারী কমিশনাররা এ নিরাপত্তা ব্যবস্থা সমন্বয় করবেন। ছুটিতে নগরীর প্রত্যেক এলাকায় সংশ্লিষ্ট বিট পুলিশের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তার নেতৃত্বে পুলিশ পালা করে টহল দেবেন। তাদের সহযোগিতা করবে টহল ও সাদা পোশাকের পুলিশ।

বাসা-বড়ির পাশাপাশি বিভিন্ন বিপণীবিতানেও এবার থাকবে পুলিশের কড়া নজর। এক্ষেত্রে বিপণী বিতানগুলোর নিজস্ব নিরাপত্তারক্ষীদের সঙ্গে সমন্বয় করে সেসব জায়গায় নিরাপত্তা নিশ্চত করা হবে। ছিনতাই, চুরিসহ বিভিন্ন অপরাধ ঠেকাতে রাতের বেলায় বাড়ানো হবে পুলিশের টহল। ছুটি শেষে যাত্রীদের মানুষের নিরাপত্তায় বিভিন্ন বাস ও রেল স্টেশনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা থাকবে। বিনোদন কেন্দ্র ঘিরেও থাকবে বিশেষ নিরাপত্তা।

সিনিয়র সহকারী কমিশনার ইফতেখায়ের আলম বলেন, ঈদ উপলক্ষে বরাবরের মতো এবারও নগরীতে বিস্ফোরক ও আতশবাজি বহন এবং ফাটানোর ওপরে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। নগরীর আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় মঙ্গলবার থেকে ঈদের পরদিন পর্যন্ত এ নিষেধাজ্ঞা বলবৎ থাকবে।

(ঢাকাটাইমস/২১আগস্ট/আরআর/ওআর)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
Close