আ.লীগের জন্ম ‘রক্তের পিপাসা নিয়ে’: রিজভী

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২১ আগস্ট ২০১৮, ১৭:২৭ | প্রকাশিত : ২১ আগস্ট ২০১৮, ১৭:১২

স্বাধীনতা সংগ্রামে নেতৃত্ব দেয়া আওয়ামী লীগের জন্ম রক্তের পিপাসা থেকে হয়েছে বলে মনে করেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। বলেছেন, এই দলের মধ্যে কোনো নান্দনিকতা নেই।

২১ আগস্ট আওয়ামী লীগের জনসভায় গ্রেনেড হামলার দিন দলীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন বিএনপির মুখপাত্র।

২০০৪ সালে বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের আমলে শেখ হাসিনাকে হত্যার উদ্দেশ্য চালানো এই গ্রেনেড হামলায় নিহত হয়েছে ২২ জন, আহত হয় শত শত মানুষ।

হামলার ১৪ তম বার্ষিকীতে নিহতদের স্মরণে এক আয়োজনে অংশ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী হামলার আগে ও পরের নানা ঘটনা তুলে ধরে বলেন, এর পেছনে বিএনপি, খালেদা জিয়া ও তারেক রহমান সরাসরি জড়িত।

হামলার বার্ষিকীতে বক্তব্য রাখতে গিয়ে গ্রেনেড হামলা নিয়ে সরাসরি কোনো কথা বলেননি রিজভী। তবে তিনি আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে অপপ্রচারের অভিযোগ তুলে ধরেন।

বিএনপি নেতা বলেন, ‘চোরাবালিতে ডুবতে থাকা সরকার খরকুটো ধরে বাঁচার জন্য বিএনপির বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করছে। কিন্তু বিএনপির বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করে অপপ্রচার করে পার পাওয়া যাবে না।’

আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে জন্ম থেকেই সন্ত্রাসের অভিযোগ এনে রিজভী নেতা বলেন, ‘রক্ত পিপাসা নিয়েই আওয়ামী লীগের জন্ম। আর এই রক্তের তৃষ্ণা আওয়ামী লীগের কখনই মিটবে না।’

‘তাদের মধ্যে কোনো নান্দনিকতা নেই। মারো ধরো, কাটো, এই হত্যা কর, গুম করো এটাই তাদের ভূষণ।’

 

বিএনপি ক্ষমতায় এলে প্রথম দিনেই এক লাখ মানুষ হত্যা করবে বলে বাণিজ্য মন্ত্রী তোফায়েল আহমেদের বক্তব্যকে ‘উদ্ভট’ আখ্যা দিয়ে বিএনপি নেতা বলেন, সরকারের মন্ত্রীরা  বিএনপির বিরুদ্ধে গুজব ছড়াচ্ছে।

‘এমন বিভ্রান্তিকর মন্তব্যের মাধ্যমে সামাজিক অস্থিরতা সৃষ্টিতে উস্কানি দেয়া হচ্ছে।’

 

ঈদযাত্রায় দুর্ভোগ আর দুর্ঘটনায় প্রাণহানির জন্য সরকারকে দায়ী করেন বিএনপি নেতা। বলেন, ‘সড়কে লাশের সংখ্যা বেড়ে যাচ্ছে। গতকালও সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন ২৮ জন। গুরুতর আহত হয়েছেন শতাধিক। …ঈদের আনন্দের পরিবর্তে শোকের মাতম চলছে অনেক বাড়িতে।’

 

‘ঈদে সাধারণ জনগণ যাত্রাপথে প্রচুর দুর্ভোগে পড়েছেন। সড়ক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের শুধুমাত্র বিরোধী দলের কুৎসা রটানোতে ব্যস্ত হয়ে পড়েছে। কিন্তু উনি যদি এই কুৎসা না রটিয়ে নিজের দায়িত্ব পালন করতেন, তাহলে সড়কের এই বিপর্যয় কিছুটা কম হত। কিন্তু তিনি সকাল-সন্ধ্যা ব্যস্ত বিএনপির কুৎসা রটনা নিয়ে।’

 

খালেদার সঙ্গে দেখা করতে চান নেতারা

কারাবন্দী চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে ঈদের দিন দেখা করতে দলের নেতৃবৃন্দের পক্ষ থেকে চিঠি দেয়া হয়েছে বলেও জানানো হয় সংবাদ সম্মেলনে।

‘অনুমতি পেলে নেতৃবৃন্দ চেয়ারপারসনের সঙ্গে দেখা করতে যাবেন। আমরা আশা করছি, নেতৃবৃন্দ অনুমতি পাবেন।’

জিয়া এতিমখানা ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় পাঁচ বছরের দণ্ড নিয়ে গত ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে পুরনো ঢাকার পুরাতন কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দী খালেদা জিয়া।

গত জুনে ঈদুল ফিতরের দিন বিএনপি মহাসচিবসহ স্থায়ী কমিটির নেতৃবৃন্দ সাক্ষাতের জন্য কারা কর্তৃপক্ষের কাছে চিঠি দিয়েছিলেন। কিন্তু কারা কর্তৃপক্ষ ঈদের দিন খালেদা জিয়ার স্বজন ছাড়া কাউকে অনুমতি দেয়নি।

এবার যাদের জন্য আবেদন করা হয়েছে, তাদের মধ্যে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ স্থায়ী কমিটির কয়েকজন সদস্য রয়েছেন।

ঢাকাটাইমস/২১আগস্ট/ডব্লিউবি

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত