সুপারহিট যে ছবিগুলো করেননি দীপিকা

বিনোদন ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১:২২

বলিউডের বর্তমান নারী তারকাদের অন্যতম দীপিকা পাড়ুকোন। ১২ বছরের ক্যারিয়ারে অভিষিক্ত ‘ওম শান্তি ওম’ থেকে শুরু করে বেশ কিছু সুপারহিট ছবি উপহার দিয়েছেন তিনি। আবার অনেক ছবি তিনি ছেড়েও দিয়েছেন। যেগুলো পরবর্তীতে সুপারহিট হয়েছিল। এমনকী, হলিউডের ছবি পর্যন্ত ফিরিয়েছেন নায়িকা। দেখে আসি কোন কোন ছবি করতে রাজি হননি দীপিকা।

জব তক হ্যায় জান: ২০১২ সালে এই ছবিটি মুক্তি পাওয়ার আগেই মারা যান পরিচালক যশ চোপড়া। বলিউড বাদশাহ শাহরুখ খান অভিনীত এ ছবিতে মীরা থাপরের চরিত্রে যশের প্রথম পছন্দ ছিলেন দীপিকা পাড়ুকোন। অথচ যে শাহরুখের হাত ধরে বলিউডে প্রতিষ্ঠিত দীপিকা, সেই শাহরুখের বিপরীতেই অভিনয়ে অস্বীকৃতি জানান তিনি। দীপিকা ‘না’ বলায় মীরা থাপরের চরিত্রটি করেন ক্যাটরিনা কাইফ। ‘থ্রি ইডিয়টস, মাই নেম ইজ় খান-এর পর বিদেশে সবচেয়ে বেশি আয় করেছিল শাহরুখের এ ছবিটি।

ধুম ৩: শাহরুখ খানের পর বলিউডের ‘মিস্টার পারফেকশনিস্ট খ্যাত’ অভিনেতা আমির খানকেও ‘না’বলে দিয়েছিলেন দীপিকা পাড়ুকোন। যার সঙ্গে অভিনয়কে অনেকটা স্বপ্নের মতো মনে করেন উঠতি তারকারা। ২০১৩ সালে সেই আমির খানের অপরাধ থ্রিলার ‘ধুম ৩’ছবির জন্য পরিচালক বিজয় কৃষ্ণ আচার্য প্রস্তাব দিয়েছিলেন দীপিকাকে। কিন্তু সাফ ‘না’ বলে দেন নায়িকা। দীপিকা রাজি না হওয়ায় আবার ক্যাটরিনাকেই ছবির স্ক্রিপ্ট পাঠানো হয়। রাজি হয়ে যান ক্যাট। ১৭৫ কোটি বাজেটের ‘ধুম ৩’ ৫০০ কোটি টাকার ব্যবসা করেছিল।

কিক: বলিউডের বাতাসে কান পাতলে শোনা যায়, কোনও এক অজানা কারণে এক যুগের ক্যারিয়ারে এখনও বলিউড ভাইজান সালমান খানের বিপরীতে অভিনয় করেননি দীপিকা পাড়ুকোন। অথচ এই সালমানের হাত ধরেই বলিউডে প্রতিষ্ঠা পেয়েছেন বহু নায়িকা। সেই সালমানের বিপরীতেই ২০১৪ সালে ‘কিক’ ছবিটিতে অভিনয়ের প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছিলেন দীপিকা। দেরি করেননি ছবির পরিচালক সাজিদ নাদিয়াডওয়ালা। সোজা জ্যাকলিন ফার্নান্ডেজ়কে নিয়ে নেন সালমানের নায়িকা হিসেবে। ৪০০ কোটি টাকা ব্যবসা করেছিল ‘কিক’।

প্রেম রতন ধন পায়ো: আরও একবার সালমান খানের সঙ্গে কাজ করতে আপত্তি জানিয়েছিলেন দীপিকা পাড়ুকোন। ২০১৫ সালে ভাইজানের ‘প্রেম রতম ধন পায়ো’র জন্য পরিচালক সুরজ বরজাতিয়া প্রথমে দীপিকার শরনাপন্ন হয়েছিলেন। কিন্তু অন্য ছবির কাজে ব্যস্ত রয়েছেন- এমন কারণ দেখিয়ে প্রস্তাব ফিরিয়ে দেন দীপিকা। পরে ছবিতে সালমানের নায়িকা হওয়ার সুযোগ পান অনিল কাপুর কন্যা সোনম কাপুর। বক্স অফিসে ‘প্রেম রতন ধন পায়ো’ও ৪০০ কোটি টাকার ব্যবসা করেছিল।

ফাস্ট অ্যান্ড ফিউরিয়াস ৭: শুধু কি বলিউডের সিনেমা, হলিউডের মতো বিশাল ব্যানারকেও নাকচ করেছিলেন দীপিকা পাড়ুকোন। ২০১৫ সালে ভিন ডিজ়েলের সঙ্গে ‘ফাস্ট অ্যান্ড ফিউরিয়াস ৭’-এ কাজ করার সুযোগ আসলেও তাতে টলেননি নায়িকা। একেবারে শেষ মুহূর্তে এই ছবি থেকে সরে আসেন তিনি। যেখানে ডব্লিউডব্লিউই চ্যাম্পিয়ন রক অর্থাৎ ডুয়াইন জনসনের মতো অভিনেতাও ছিলেন। দীপিকার ছেড়ে দেয়া সেই ‘ফাস্ট অ্যান্ড ফিউরিয়াস ৭’ পরে ১০০ কোটি ডলারের ব্যবসা করেছিল।

তবে শুধু দীপিকাই নন, ছবি ছেড়ে দেয়ার মতো সিদ্ধান্ত কম-বেশি ইন্ডাস্ট্রির অন্য তারকারাও নেন। পরে হয়তো ভুল সিদ্ধান্তের জন্য আফসোসও করেন। এদিকে, দীপিকা বর্তমানে ব্যস্ত তার বিয়ে নিয়ে। চলতি বছরেই হালের আরেক সুপারস্টার রণবীর সিংয়ের সঙ্গে তার বিয়ের পিঁড়িতে বসার কথা রয়েছে। যার কারণে আপাতত কোনও ছবির কাজই হাতে রাখেননি নায়িকা।

ঢাকাটাইমস/১০ সেপ্টেম্বর/এএইচ 

সংবাদটি শেয়ার করুন

বিনোদন বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত