না.গঞ্জে সেলিম ওসমানের আসনে ভাবির লড়াইয়ের ঘোষণা

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৫:৩০ | প্রকাশিত : ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০৮:১৪

গত ৩০ এপ্রিল থেকে রাজনৈতিক মাঠে নির্বাচনী আলোচনায় আসছিল পারভীন ওসমানের নাম। এবার জাতীয় পার্টি থেকে নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনে নির্বাচনের ঘোষণা দিলেন তিনি। গতকাল শুক্রবার (১৪ সেপ্টেম্বর) তিনি স্বামী প্রয়াত নাসিম ওসমানের কবর জিয়ারত করে নির্বাচনী প্রচারণায় নামছেন।

নারায়ণগঞ্জের এই আসনে বর্তমান সাংসদ এ কে এম সেলিম ওসমান সম্পর্কে পারভীন ওসমানের দেবর। তিনি আগামী সংসদ নির্বাচনে জাতীয় পার্টির মনোনয়ন-প্রত্যাশী।

পারভীন ওসমানের দাবি, জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ তাকে এখানে কাজ করার নির্দেশ দিয়েছেন। ফলে আগামী নির্বাচনে লাঙ্গল প্রতীকে মনোনয়ন নিয়ে দেবর-ভাবির লড়াই প্রকাশ্যে এল।

জাপা সূত্রে জানা যায়, গত ১২ সেপ্টেম্বর এরশাদের বারিধারার বাসায় গিয়ে তার সঙ্গে দেখা করেন পারভীন ওসমান। নারায়ণগঞ্জে ফিরে তিনি দাবি করেন এরশাদ তাকে নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনে দলের পক্ষে কাজ করার নির্দেশনা দিয়েছেন। এরই পরিপ্রেক্ষিতে শুক্রবার নাসিম ওসমানের কবর জিয়ারত করে নেতাকর্মীদের নিয়ে নির্বাচনী প্রচারণায় নামেন এবং নিজের মনোনয়ন-প্রত্যাশা ঘোষণা করেন পারভীন ওসমান।

সাংবাদিকদের পারভীন ওসমান বলেন, ‘জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান আমাকে দলের পক্ষে কাজ করার নির্দেশ দিয়েছেন। কারও বিরোধিতা নয় আমি দলের পক্ষে কাজ করতে নেমেছি।’

শহর ও বন্দর নিয়ে গঠিত নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনে ২০১৪ সালের ২৬ জুন উপনির্বাচনে লাঙ্গল প্রতীকে নির্বাচিত হন এ কে এম সেলিম ওসমান। এর আগে ৫ জানুয়ারির নির্বাচনে তার বড় ভাই প্রয়াত নাসিম ওসমান জাতীয় পার্টি থেকে মহাজোটের প্রার্থী হিসেবে এমপি নির্বাচিত হন। দুবারের নির্বাচনেই আওয়ামী লীগ এ আসনটি জাতীয় পার্টিকে ছেড়ে দেয়।

৫ জানুয়ারির নির্বাচনে এখানে নৌকা প্রতীক পেয়েছিলেন কেন্দ্রীয় শ্রমিক লীগের সভাপতি শুক্কুর মাহামুদ।

তবে এবার আর জাতীয় পার্টিকে আসনটি ছেড়ে দিতে রাজি নন আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতারা। আওয়ামী লীগ থেকে প্রার্থী করার দাবি নিয়ে মাঠে নেমেছেন দলের জাতীয় পরিষদ সদস্য আনিসুর রহমান দিপু, জেলা আওয়ামী লীগের সেক্রেটারি আবু হাসনাত মোহাম্মদ শহীদ বাদল, সহ-সভাপতি আবদুল কাদির, আরজু রহমান ভুইয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক এ কে এম আবু সুফিয়ান, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক খোকন সাহা ও সাংগঠনিক সম্পাদক জি এম আরাফাত।

তাদের সঙ্গে একই দাবি তুলছেন মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেনও।

ক্ষমতাসীন দল থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশা করছেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হাইও। দলের বেশ কজন নেতা নিয়মিত বিভিন্ন এলাকায় নির্বাচনী গণসংযোগ করছেন।

এরই মধ্যে নাসিম ওসমানের স্ত্রী পারভীন ওসমানকে নিয়ে গত ৩০ এপ্রিল থেকে কানাঘুষা শুরু হয়। এখানকার জাতীয় পার্টির অনেক নেতাকর্মী তাকে মনোনয়ন চাইতে অনুপ্রাণিত করে আসছেন। সম্প্রতি ঢাকায় এরশাদের জনসভায় মিছিল নিয়ে যোগ দেন পারভীন ওসমান। এরশাদ বেশ কয়েকবার পারভীনকে ঢাকায় ডেকে নিয়ে যান। সর্বশেষ গত ১২ সেপ্টেম্বর ঢাকার বাসায় এরশাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন পারভীন ওসমান।

ভাবির নির্বাচনের ঘোষণার পর গতকাল শনিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) রাতে নারায়ণগঞ্জ রাইফেলস ক্লাবে জাতীয় পার্টির তৃণমূল নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন সেলিম ওসমান।

স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও জাপা সূত্রে জানা যায়, এই আসনের আওয়ামী লীগের নেতাদের একটা অংশ সেলিম ওসমানকে নির্বাচনে চাইছেন।

গতকাল রাতের সভায় পাওয়া মতামত থেকে সেলিম ওসমান নিজের প্রার্থিতার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবেন বলে জানা গেছে।

(ঢাকাটাইমস/১৬সেপ্টেম্বর/মোআ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় নির্বাচন বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত