সিরিয়ায় সামরিক বিমান ধ্বংসের জন্য ইসরায়েল দায়ী: রাশিয়া

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৮:৪১ | প্রকাশিত : ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৭:৫৯

ইসরায়েলি বিমান হামলা ঠেকাতে সিরিয়ায় রাশিয়ার একটি সামরিক বিমান ভুলে গুলি করে ভূপাতিত করা হয়েছে। রুশ এই বিমানটিতে থাকা ১৫ আরোহীর সবাই নিহত হয়েছে। এর জন্য ইসরায়েলকে দোষারোপ করছে রাশিয়া। খবর বিবিসির।

মঙ্গলবার রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলছে, সোমবার রাশিয়ার আইএল-২০ সামরিক বিমানকে সিরিয়ার আকাশ প্রতিরক্ষার ব্যবস্থার টার্গেটে আসতে বাধ্য করে ইসরায়েলি জেট বিমান। ইসরায়েল সিরিয়ায় হামলা চালাতে পারে এমন কোনো সতর্কতা সংকেত আগে থেকে রাশিয়াকে দেয়া হয়নি।

রাশিয়া বলেছে, ইসরায়েল ইচ্ছাকৃতভাবে এ পরিস্থিতির সৃষ্টি করেছে এবং রাশিয়া এর জবাব দেয়ার অধিকার রাখে।

প্রথমে সিরিয়ার আকাশসীমা থেকে একটি আইএল-২০ সামরিক বিমান নিখোঁজ হওয়ার খবর দেয় রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়।

রুশ বিবৃতিতে বলা হয়েছিল, সোমবার রাতে ইসরায়েলের চারটি বিমান যখন সিরিয়ার লাতাকিয়ায় অবস্থিত রাষ্ট্রীয় কয়েকটি স্থাপনার ওপর হামলা চালাচ্ছিল তখন রুশ বিমানটি রাডার থেকে অদৃশ্য হয়ে যায়। এরপর অনুসন্ধানের মাধ্যমে রাশিয়া নিশ্চিত হয়েছে, বিমানটি বিধ্বস্ত হয়েছে।

এ বিষয়ে রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলেছে, ইহুদিবাদী ইসরায়েল ইচ্ছাকৃতভাবে এ ঘটনা ঘটিয়েছে। রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, সোমবার রাতে চারটি ইসরাইলি এফ-১৬ জঙ্গিবিমান ভূমধ্যসাগর থেকে সিরিয়ার লাতাকিয়ায় হামলা চালায়। বিমানগুলো খুব নিচে নেমে এসে ওই অঞ্চলের বিমান ও জাহাজগুলোর জন্য বিপদজনক পরিস্থিতি সৃষ্টি করে। ইসরায়েলি হামলার সময় ওই অঞ্চলে ফ্রান্সের একটি ফ্রিগেটও ছিল বলে বিবৃতিতে জানানো হয়েছে।

রাশিয়া বলেছে, রুশ বিমান ধ্বংস এবং রুশ সেনাদের মৃত্যুর জন্য ইসরাইল দায়ী। কারণ ইচ্ছাকৃতভাবে রাশিয়ার বড় আকারের এই বিমানটিকে কভার হিসেবে ব্যবহার করেছে ইসরায়েলি যুদ্ধবিমান। এছাড়া ওই এলাকায় বিমান হামলা চালানোর কথা আগেভাগে রাশিয়াকে জানায়নি দখলদার ইসরায়েল।

(ঢাকাটাইমস/১৮সেপ্টেম্বর/এসআই)

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত