এভাবে দেশে ফিরে হতাশ তামিম

ক্রীড়া ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:৩৩

এশিয়া কাপে গ্রুপ পর্বে বাংলাদেশের এখনো একটি ম্যাচ বাকি। তা সত্ত্বেও গতকাল (সোমবার) সুপার ফোর নিশ্চিত করেছে টাইগাররা। দলের জন্য বিষয়টি আনন্দের। টাইগার ভক্তদের জন্যও এটি বড় সুখবর। কিন্তু দলের এমন সুখবরের মধ্যেও খেলা ছেড়ে দেশে ফিরতে হয়েছে টাইগার ওপেনার তামিম ইকবালকে। মঙ্গলবার তিনি দেশে ফিরেছেন। গত ১৫ সেপ্টেম্বর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচে ব্যাট করার সময় হাতে ব্যথা পেয়েছিলেন তামিম ইকবাল। এ কারণে এশিয়া কাপ থেকে ছিটকে যান তিনি।

টুর্নামেন্টের মাঝপথে এভাবে দেশে ফিরে হতাশ তামিম ইকবাল। দেশে ফেরার পর হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে সাংবাদিকদের তামিম ইকবাল বলেছেন, ‘যখন আপনি ভালো ফর্মে থাকবেন তখন আপনি যতো বেশি সম্ভব ম্যাচ খেলতে চাইবেন। এশিয়া কাপ নিয়ে আমার অনেক আশা ছিল। কিন্তু এটা নিয়ে এখন আমার ভেবে কোনো লাভ হবে না। সামনের দিকে তাকাতে হবে। চিকিৎসকের পরামর্শ মেনে চলে যতো দ্রুত সম্ভব মাঠে ফিরতে হবে।’

তিনি আরো বলেন, ‘সত্যি বলতে এশিয়া কাপ নিয়ে ব্যক্তিগতভাবে আমার অনেক আশা ছিল। কিন্তু টুর্নামেন্টে মাত্র একটি ম্যাচ খেলে এভাবে দেশে ফিরে আসাটা ভালো দেখায় না। আমি খুবই হতাশ। কিন্তু ইনজুরি তো আর আমি নিয়ন্ত্রণ করতে পারি না। এখন আমার কাজ হবে যাতে দ্রুত মাঠে ফেরা যায় সেই চেষ্টা করা।’

তামিম ইকবাল বলেন, ‘ইংল্যান্ড থেকে সর্বশেষ খবর হচ্ছে চিকিৎসকরা বলেছেন, ‘এই মুহূর্তে আমার কোনো অপারেশনের প্রয়োজন নেই। কিন্তু প্রথম এক সপ্তাহ খুবই ক্রিটিকাল। আগামী সপ্তাহে এক্স-রে করাতে হবে। এক্স-রে রিপোর্টে যদি দেখা যায়, চিকিৎসা ঠিকঠাকভাবে কাজ করছে তাহলে আর অপারেশেনের প্রয়োজন হবে না। আর যদি সবকিছু ঠিকঠাক না থাকে তাহলে অপারেশন করাতে হবে। কিন্তু আপাতত তেমন কোনো সমস্যা মনে হচ্ছে না।’

তামিমের যদি অপারেশনের প্রয়োজন হয় তাহলে তিনি অক্টোবরে অনুষ্ঠেয় জিম্বাবুয়ে সিরিজ মিস করতে পারেন। বিসিবির চিকিৎসক বলেছেন, সাধারণত এ ধরনের অপারেশন থেকে সেরে উঠতে চার-ছয় সপ্তাহ সময় লাগে।

(ঢাকাটাইমস/১৯ সেপ্টেম্বর/এসইউএল)

 

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত