হাইটেক পার্ক হচ্ছে নাটোরের সিংড়ায়

বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৭:২৭

নাটোরের সিংড়ায় হাই-টেক পার্কের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করলেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। আজ বুধবার এই ইনকিউবেশন সেন্টারের ভিত্তি-প্রস্তর স্থাপন করা হয়।

এসময় প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে বর্তমান সরকার সারা দেশে হাই-টেক পার্ক, সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক স্থাপন করছে। বর্তমান সরকার দেশকে হার্ডওয়্যার ও সফটওয়্যার মেনুফ্যাকচারিংয়ের হাব হিসেবে প্রতিষ্ঠা করতে চায়।’

তিনি আরো বলেন, ২০২১ সালের মধ্যে দেশের আইসিটি সেক্টরে এক মিলিয়ন কর্মসংস্থান নিশ্চিত করতে এবং এই খাত থেকে বছরে পাঁচ বিলিয়ন মার্কিন ডলার অর্জন করতে চায়। আইসিটি ইন্ডাস্ট্রিতে বৈশ্বিক বিনিয়োগকারীদের জন্য হাই-টেক পার্ক বিনিয়োগের কেন্দ্রে পরিণত হতে পারে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, এই প্রকল্প বাস্তবায়নের মাধ্যমে একদিকে যেমন বেকারত্ব দূর হবে, একইসাথে তথ্যপ্রযুক্তিতে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনে একরকম উল্লম্ফন সৃষ্টি হবে। এই প্রশিক্ষিত জনবলের মাধ্যমেই ২০২১ সালের মধ্যে পাঁচ বিলিয়ন ডলার অর্জিত হবে। আর এক্ষেত্রে চলনবিল অধ্যুষিত সিংড়া উপজেলা হবে তথ্য-প্রযুক্তির মিনি সিঙ্গাপুর।

বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (সচিব) হোসনে আরা বেগম বলেন, আইটি খাতে দক্ষ মানবসম্পদ তৈরির জন্য দেশের সাতটি স্থানে শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং অ্যান্ড ইনকিউবেশন সেন্টার স্থাপন প্রকল্প গ্রহণ করেছে বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ। নাটর সদরেও একটি আইটি ট্রেনিং অ্যান্ড ইনকিউবেশন সেন্টার স্থাপন শেষ হয়েছে। এখান থেকে যে দক্ষ জনসম্পদ তৈরী হবে তারা যেন তাদের মেধাকে কাজে লাগাতে পারে তাই গড়ে তোলা হচ্ছে এই হাই-টেক পার্ক।

বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ দেশের ২৮টি স্থানে হাই-টেক/সফটওয়্যার পার্ক স্থাপন করছে, এরমধ্যে ঢাকায় জনতা টাওয়ার সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক এবং যশোরে শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্কে ইতোমধ্যে কাজ শুরু হয়েছে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

(ঢাকাটাইমস/১৯সেপ্টেম্বর/এজেড)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত