দুদিন আগে বাথরুমে পড়েছেন খালেদা, দাবি আইনজীবীর

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৮:৩৮

কারাবন্দী বেগম খালেদা জিয়া দুই দিন আগে বাথরুমে পড়ে গেছেন বলে দাবি করেছেন তার এক আইনজীবী। বলেছেন, কারাগারের অস্থায়ী আদালতে আসার মতো অবস্থাতেও নেই তিনি। আর যখন সুস্থ হবেন, তখন ঠিকই আদালতে আসবেন।

বুধবার বিকালে পুরান ঢাকার কেন্দ্রীয় কারাগারে খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে সাংবাদিকদের একথা বলেন তার আইনজীবী মাসুদ আহমেদ তালুকদার।

মঙ্গলবার মাসুদ আহমেদ তালুকদার এবং সানাউল্লাহ মিয়া খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে কারাগারে গেলেও কর্তৃপক্ষ অনুমতি পাননি। পরে আজ  বিকালে আবার তারা সাক্ষাৎ করতে আসেন বিএনপি চেয়ারপারসনের সঙ্গে।

গত ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে এই কারাগারে বন্দী খালেদা জিয়ার অন্য একটি মামলার বিচারে ৫ সেপ্টেম্বর আদালত বসে কারাগারেই। সেদিন শুনানিতে এসে খালেদা জিয়া বলেন, তার শরীর বেশ খারাপ এবং তিনি আর আসতে পারবেন না। পরে ১২ সেপ্টেম্বর পরের শুনানিতে তিনি আর  আদালতে আসেননি। আর পরেরদিন তার অনুপস্থিতিতেই বিচারের আবেদন করে রাষ্ট্রপক্ষ।

অসুস্থতার কথা বলে আদালতে না আসলেও আইনজীবীদের সঙ্গে দেখা করেন বিএনপি নেত্রী। বিকাল সোয়া চারটার দিকে আইনজীবীরা কারাগারে ঢুকেন আর বের হন বিকাল পাঁচটার দিকে।

সাক্ষাৎ শেষে বের হয়ে সাংবাদিকদের মাসুদ আহমেদ বলেন, ‘আদালতে থেকে বিচার কাজ শ্রবণ করার মতো সুস্থ নন বেগম খালেদা জিয়া। আদালতের উপর তার আস্থা আছে। কিন্তু আদালতে হাজির হবার মতো শারীরিক সুস্থতা তার নেই।’

‘খালেদা জিয়া দুদিন আগেও কারাকক্ষের বাথরুমে পড়ে গিয়েছেন। সুস্থ না হয়ে আদালতে কী করে যাবেন বলে তিনি প্রশ্ন রেখেছেন।’

আগামীকাল বৃহস্পতিবার এই মামলার শুনানির তারিখ আছে। এই শুনানিতে বিএনপি নেত্রী আসবেন কি না, এমন প্রশ্নে তার আইনজীবী মাসুদ জানান, খালেদা জিয়া বলেছেন, তিনি সুস্থ হলে আদালতে আসবেন।

৫ সেপ্টেম্বর কারাগারে আদালত বসানোর পর বিএনপি খালেদা জিয়াকে গুরুতর অসুস্থ দাবি করে বেসরকারি হাসপাতালে তার চিকিৎসার ব্যবস্থা করার দাবি তোলে। তবে তার চিকিৎসায় গঠিত সরকারি মেডিকেল বোর্ডের চিকিৎসকরা স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে এসে বলেছেন, তার শারীরিক অবস্থা ঝুঁকিপূর্ণ নয়। তবে তাকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে ভর্তির সুপারিশ করেন তারা।

খালেদা জিয়া অবশ্য দেশের অন্যতম সেরা এই হাসপাতালে আসতে রাজি নন। এমনকি সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে যাওয়ার প্রস্তাব দিলেও তিনি তা ফিরিয়ে দেন। শুরু থেকেই বিএনপি ইউনাইটেড হাসপাতালে নেয়ার দাবি করে আসলেও সম্প্রতি এর পাশাপাশি ইউনাইটেডে সম্ভব না হলে অ্যাপোলো হাসপাতালে যাওয়ার সুযোগ দেয়ার অনুরোধও করা হয়েছে।

(ঢাকাটাইমস/১৯সেপ্টেম্বর/বিইউ/ডব্লিউবি)   

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত