‘সরকারি দল ছাড়া জাতীয় ঐক্য হবে না’

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২২:৫৯ | প্রকাশিত : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২২:৫৩

গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেনের সঙ্গে একান্ত বৈঠক করেছেন গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকী।

বুধবার বিকালে রাজধানীর বেইলি রোডে ড. কামাল হোসেনের বাসভবনে এ বৈঠক হয়।

বৈঠক শেষে বাম গণতান্ত্রিক জোটের অন্যতম শরিক গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকী সাংবাদিকদের বলেন, আমাদের একটা গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা গড়ে তুলতে হবে। এজন্য আমরা বলেছি, একটা জাতীয় সনদ তৈরি করতে হবে। যার ভিত্তিতে রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে জাতীয় ঐকমত্য তৈরি হতে পারে।

তিনি বলেন, একটা জাতীয় কনশাসনেস দরকার সরকারি দলের সঙ্গেও। সরকারি দল ছাড়া জাতীয় ঐকমত্য হবে না। এই ন্যাশনাল কনশাসনেস তৈরি করতে আমাদের পক্ষ থেকেও উদ্যোগ আছে, জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার তরফেও আছে।

সংঘাত এড়িয়ে একটি নতুন রাজনৈতিক ব্যবস্থায় যেতে হবে। যেখানে রাজনৈতিক দলগুলোর শান্তিপূর্ণ সহাবস্থান সম্ভব। তিনি বলেন, আমাদের মধ্যে অনেক দিন ধরেই আলোচনা চলছে। গণসংহতি আন্দোলনের পক্ষ থেকেও একটি সনদ তৈরি করেছি। বিদ্যমান যে রাজনৈতিক ব্যবস্থার মধ্যে আমরা আছি, সেই ব্যবস্থা ফেল করে যাচ্ছে।

সাকী আরো বলেন, জাতীয় ঐক্যপ্রক্রিয়ার সঙ্গে আলোচনা চলবে। কীভাবে আমরা ঐক্যবদ্ধভাবে দেশের নিরাপত্তা, মানুষের নিরাপত্তা এবং গণতান্ত্রিক সংগ্রাম গড়ে তুলতে পারি, সে বিষয়ে কাজ করতে হবে।

ড. কামাল হোসেন গণসংহতি আন্দোলনের প্রস্তাব ইতিবাচকভাবে মূল্যায়ন করেছেন বলে সাংবাদিকদের জানান জোনায়েদ সাকী।

এসময় জোনায়েদ সাকীর সঙ্গে ছিলেন গণসংহতি আন্দোলনের নেতা ফিরোজ আহমেদ, আবুল হাসান রুবেল,  দেওয়ান আবদুর রশিদ নিলুসহ সংগঠনের নেতারা।

আর আগে বিকাল সাড়ে ৫টা নাগাদ ড. কামাল হোসেনের বাসায় পৌঁছান গণসংহতি নেতা জোনায়েদ সাকি। জোনায়েদ সাকি এবং ড. কামাল হোসেনের মধ্যে একান্তে এ বৈঠক হয়। এসময় তাদের মধ্যে ২০ মিনিটের মত আলোচনা হয়েছে বলে জানানো হয়।

সংলাপ পরবর্তী একান্ত আলোচনায় জোনায়েদ সাকি ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘সংঘাতময় রাজনৈতিক পরিবেশ আওয়ামী লীগ, বিএনপিসহ সকল রাজনৈতিক দলকে বেড়িয়ে এসে একটা ঐক্যমতে পৌঁছানোর আহ্বান জানাচ্ছি। এটাই আমাদের চেষ্টা।’

‘সংঘাত যদি চলতে থাকে তাহলে জনগণ ক্ষতিগ্রস্ত হবে। তখন জনগণই আন্দোলনে যাবে। জনগণ আন্দোলনে গেলে সেটা সরকারের জন্যও শুভকর হবে না। এবিষয়টি নিয়ে আমরা আলোচনায় বসেছিলাম। তারাও (গণফোরাম) তাদের সাত দফায় এ বিষয়টি তুলেছিল। আজ আমরা প্রাথমিক আলোচনাইয় বসেছিল। আমরা এ বিষয়ে আবারো বসব, কীভাবে একটা জাতীয় ঐক্যমতে পৌঁছানো যায়।’

(ঢাকাটাইমস/১৯ সেপ্টেম্বর/কারই/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত