যে দুই কারণে ফরম্যাটে হঠাৎ অন্যায্য পরিবর্তন

দেলোয়ার হোসেন, দুবাই থেকে
 | প্রকাশিত : ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০৭:৫৩

 

পাড়ার ক্রিকেট টুর্নামেন্টকে হার মানালো এসিসি। নির্দিষ্ট একটি দলকে সুবিধা দিতে টুর্নামেন্টের মাঝপথে হুট করে ফরম্যাটে পরির্তন করে নতুন সুচি করার ঘটনা পাড়া মহল্লার ক্রিকেটেও খুব কম দেখা যায়। এমন কান্ড ঘটলে সেখানে হাঙ্গামা অনীবার্য। মাঝে মধ্যে খবরের শিরোনাম হয়, ক্রিকেট বা ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে একজন নিহত ও ২০ জন আহত। এশিয়ান ক্রিকেটে কাউন্সিল এশিযা কাপের মাঝপথে যে ছেলেমানুষি সিদ্ধান্ত দিল, তাতে পাড়ার টুর্নামেন্টকেও পেছনে ফেলে দিল।

আ্ন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউসিল বা আইসিসির উপর ভারতের প্রভাব কতটা, সেটা নতুন করে বলার নেই। জাতীসংঘের উপর যুক্তরাষ্ট্রের প্রভাব যতটুকু, আইসিসির উপর ভারতের প্রভাব চার চেয়ে ২৫ শতাংশ বেশি। ভারতের কথামত ক্রিকেটের আন্তর্জাতিক সংস্থা ওঠে আর বসে। এসিসি সেখানে তো অতি ছোট ও দুর্বল সংস্থা।

ভারতের কারণে এসিসি মূলত বাধ্য হয়েছে ফরম্যাটে পরির্তন এনে আজগবি, অগ্রহণযোগ্য সুপার ফোরের লাইনআপ তৈরী করতে। একটি দলের স্বার্থ রক্ষা করতে গিয়ে এশিয়ান ক্রি্কেট কাউন্সিল হাস্যকর মেরুদণ্ডহীন ও অগ্রহনযোগ্য একটি সংস্থায় পরিণিত হয়েছে। ভারত আবুধাবিতে গিয়ে খেলতে চায়নি। ভারতের এ ইচ্ছার কাছে হার মানতে হয়েছে এসিসিকে। এতে করে ভারত ও এসিসি উভয়েই তাদের নৈতিকতা এবং আত্মসম্মান হারিয়েছে। গায়ের জোরে ভারত যা করল, তা সভ্য দুনিয়ার সঙ্গে বেমানান।

এমন সিদ্ধান্তের পেছনে আর্থিক ব্যাপার স্যাপারও জড়িত। ভারত যাতে ফাইনালে খেলা- ফরম্যাট পরিবর্তন তারই প্রয়াশ। ভারত ফাইনালে না খেললে অনেক প্রতিষ্ঠান আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়বে অথবা লাভের পরিমাণ কমে যাবে। এই সব প্রতিষ্ঠানের মধ্যে আছে, এসিসি, ভারতীয় বোর্ড, টিভি রাইটস হোল্ডার, ভারতীয় কিছু টিভি চ্যানেল যারা এশিয়া কাপের সম্প্রচার করছে। ভারত ফাইনালে না খেললে স্পন্সর প্রতিষ্ঠানগুলোরও মুখ অন্ধকার। কারণ ১৩০ কোটি মানুষের বাজার বলে কথা।

অত্যন্ত টাইট সিডিউলের মধ্যে সুপার ফোরের তিন দল একবার দুবাই আরেকবার আবুধাবি, এই করে ক্লান্ত পরিশ্রান্ত হয়ে যাবে। অথচ শুধু দুবাইয়ে অবস্থান করে নিজেদের সতেজ ও ফুরফুরে রাখবে ভারত। আবুধাবি দুবাই করে করে অন্যদলগুলোর পক্ষে প্রচন্ড গরমের মধ্যে স্বাভাবিক খেলা সম্ভব নয়, সেখান ভারত খেলবে তরতাজা মুডে।

কিন্তু ভারত ও এসিসি যে অন্যায় ও অন্যায্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করল, সেটা বিশ্ব ক্রিকেটের জন্য খুবই দ:সংবাদ। বাজে উদাহরণ। অন্য তিন দল যদি এ অন্যায্য সিদ্ধান্ত মেনে না নিত, তাহলে এসিসি কি করত?

(ঢাকাটাইমস/২০সেপ্টেম্বর/ডিএইচ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত