বাম জোটের ইসি ঘেরাও কর্মসূচিতে সংঘর্ষ

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২০:৪৩ | প্রকাশিত : ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৫:২৮

রাজধানীতে বাম সংগঠনের নির্বাচন কমিশন ঘেরাও কর্মসূচিতে পুলিশের বাধার পর সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি আহত হয়েছেন বলে তার সংগঠন জানাচ্ছে। আর পুলিশ জানিয়েছে, তাদের সাত সদস্য আঘাত পেয়েছে।

বৃহস্পতিবার ‘জনগণের ভোটাধিকার রক্ষা ও সুষ্ঠু নির্বাচন’ নিশ্চিত করতে নির্বাচন ব্যবস্থার সংস্কার দাবিতে নির্বাচন কমিশন অফিস ঘেরাও’ করতে যায় আট বাম দলের মোর্চা বাম গণতান্ত্রিক জোট। জাতীয় প্রেসক্লাবে সমাবেশ মিছিল নিয়ে নেতা-কর্মীরা আগারগাঁওয়ে নির্বাচন কমিশনে যাচ্ছিল।

পথে কারওয়ানবাজার এলাকায় ঘটে হাঙ্গামা। পুলিশ এবং বাম জোট-দুই পক্ষই তাদের ওপর হামলার জন্য একে অপরকে দায়ী করেছে।

ঢাকা মহানগর পুলিশের তেজগাঁও জোনের সিনিয়র সহকারী কমিশনার (এসি) আবু তৈয়ব মোহাম্মদ আরিফ ঢাকাটাইমসকে জানান, বাম গণতান্ত্রিক জোটের একটি মিছিল দুপুর দেড়টার দিকে কারওয়ান বাজার হয়ে আগারগাঁও নির্বাচন কমিশন অফিস ঘেরাও করতে যাচ্ছিল। এসময় পুলিশ তাদের বুঝিয়ে সুশৃঙ্খলভাবে রাস্তা দিয়ে যাবার জন্য কথা বলা হচ্ছিল। হঠাৎ ৪০ জনের যুবক পুলিশের উপর অতর্কিত হামলা চালায়। এতে পুলিশের বেশ কয়েকজন সদস্য আহত হয়। তাদেরকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নেওয়া হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, শাহবাগ থেকে একটি মিছিলটি কারওয়ান বাজার মোড়ে এসে পৌছালে পুলিশ রাস্তায় বেরিকেড দেয়। এ সময় সড়কে যানচলাচল বন্ধ হয়ে যায়। পুলিশ তাদের তাদের সাথে কথা বলতে গেলে মিছিলকারীরা ব্যারিকেড ভেঙে এগিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এক পর্যায় দুই পক্ষে ধস্তাধস্তির ঘটনা ঘটে। হঠাৎ কয়েকজন যুবক পুলিশকে ইট ছুড়তে থাকে। পুলিশও পাল্টা আক্রমণে যায়। এতে উভয়পক্ষের বেশ কয়েকজন আহত হয়।

বাম গণতান্ত্রিক জোটের অন্যতম শরিক দল গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকির সহকারী সাদিক রেজা ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘জনগণের ভোটাধিকার রক্ষা ও সুষ্ঠু নির্বাচনের দাবিতে নির্বাচন ব্যবস্থার সংস্কার দাবিতে আজ নির্বাচন কমিশন ঘেরাওয়ের পূর্বনির্ধারিত কর্মসূচি ছিল।

প্রেসক্লাবে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে শেষে আমরা মিছিল নিয়ে নির্বাচন কমিশন অফিস ঘেরাও করতে যাই। প্রথমে ইঞ্জিনিয়ারিং ইনস্টিটিউশনের সামনে পুলিশি বাধায় পড়তে হয়। পরে সেটা উপেক্ষা করে কারওয়ানবাজার হয়ে আমরা যাচ্ছিলাম। এসময় পুলিশ মিছিলে নারী-পুরুষ সকলের ওপর লাঠিপেটা করে। বাম জোটের অর্ধশতাধিক নেতা-কর্মী আহত হয়েছে। এমনকি জোনায়েদ সাকি নিজেও আহত হয়েছেন।’

পুলিশ বলছে আপনার অতর্কিত পুলিশের উপর হামলা চালিয়েছেন এমন প্রশ্নে সাদিক রেজা বলেন, ‘পুলিশ এটা সব সময় বলে থাকে। আমাদের উপর পুলিশ উল্টো মারমুখী অবস্থানে গিয়ে পিটিয়েছে।’

ঢাকাটাইমস/২০সেপ্টেম্বর/এসএস/কারই/ডব্লিউবি

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত