স্লগ ওভারে বাঁধন আলগা, আফগানদের সংগ্রহ ২৫৫

ক্রীড়া ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২৩:০১ | প্রকাশিত : ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১:১১

বোলিংয়ে সাকিব-রনিরা শুরুটা করেছিলেন দারুণ। কিন্তু শেষ পর্যন্ত সেটি ধরে রাখতে পারল না বাংলাদেশ। শুরুর বোলিংটা ধরে রাখতে পারলে আফগানিস্তানকে হয়তো কম রানে আটকে দেয়া যেতো। যেই আফগানিস্তানের দলীয় ১৬০ রানে সাত উইকেট পড়ে গিয়েছিল সেই আফগানিস্তানের ৫০ ওভার শেষে সংগ্রহ সাত উইকেটে ২৫৫ রান। অর্থাৎ, জিততে হলে বাংলাদেশকে করতে হবে ২৫৬ রান।

অষ্টম উইকেট জুটিতে ৯৫ রানের পার্টনারশিপ গড়েন গুলবদিন নাইব ও রশীদ খান। ৩৮ বলে ৪২ রান করে অপরাজিত থাকেন গুলবদিন নাইব। ৩২ বলে ৫৭ রানে অপরাজিত থাকেন রশীদ খান। ওয়ানডেতে এটি তার তৃতীয় অর্ধশত। এর আগে হাফ সেঞ্চুরি করেন হাশমতউল্লাহ শহীদি। ৫৮ রান করে আউট হন তিনি। বাংলাদেশের বোলারদের মধ্যে সাকিব আল হাসান ১০ ওভার বল করে ৪২ রান দিয়ে চারটি উইকেট শিকার করেন। অভিষেক ম্যাচে ৯ ওভার বল করে ৫০ রান দিয়ে ২টি উইকেট শিকার করেন আবু হায়দার রনি। এছাড়া একটি উইকেট শিকার করেন রুবেল হোসেন।

বৃহস্পতিবার এশিয়া কাপের গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে বাংলাদেশের বিপক্ষে টস জিতে ব্যাট করতে নামে আফগানিস্তান। আফগানিস্তান ইনিংসের শুরুতেই জোড়া আঘাত হানেন আবু হায়দার রনি। ইহসানুল্লাহ ও রহমত শাহকে সাজঘরে ফিরিয়ে দেন তিনি। ওয়ানডে ক্যারিয়ারে প্রথম ওভার বল করতে এসেই উইকেটের দেখা পান রনি। ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারে মোহাম্মদ মিথুনের হাতে ক্যাচ বানিয়ে আফগান ওপেনার ইহসানুল্লাহকে সাজঘরে ফেরান রনি। চার বলে আট রান করেন ইহসানুল্লাহ। ওয়ানডে ক্রিকেটে রনির এটি প্রথম উইকেট। এরপর ইনিংসের ষষ্ঠ ওভারে রহমত শাহকে বোল্ড করেন তিনি। রহমত শাহ করেন দশ রান।

ইনিংসের ২০তম ওভারে প্রথমবারের মতো সাকিব আল হাসানকে বোলিংয়ে আমন্ত্রণ জানান অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। আর বোলিংয়ে এসেই উইকেট শিকার করেন টাইগার অলরাউন্ডার। ওভারের তৃতীয় বলে আবু হায়দার রনির হাতে ক্যাচ হন মোহাম্মদ শাহজাদ। তিনি করেন ৩৭ রান।

ইনিংসের ২৬তম ওভারে আবার আঘাত হানেন সাকিব আল হাসান। আফগান অধিনায়ক আসঘার আফগানকে সাজঘরে ফেরান তিনি। ১৬ বল খেলে আট রান করেন আসঘার আফগান। এরপর ৩৪তম ওভারে সামিউল্লাহ শেনওয়ারিকে বোল্ড করেন সাকিব।

ইনিংসের ৩৮তম ওভারে উইকেটরক্ষকের হাতে ক্যাচ বানিয়ে হাশমতউল্লাহ শহীদিকে ফেরান রুবেল হোসেন। হাশমতউল্লাহ শহীদি হাফ সেঞ্চুরি করেন। ৫৮ রান করে আউট হন তিনি। ওয়ানডেতে এটি তার তৃতীয় অর্ধশত। এরপর ৪১তম ওভারে মোহাম্মদ নবীকে এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে ফেলেন সাকিব আল হাসান। মোহাম্মদ নবী করেন দশ রান।

আবুধাবির শেখ জায়েদ স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত এই ম্যাচে একাদশে তিনটি পরিবর্তন এনেছে বাংলাদেশ। ইনজুরির কারণে তামিম ইকবাল প্রথম ম্যাচের পরই এশিয়া কাপ থেকে ছিটকে গেছেন। আর আজ বিশ্রামে রাখা হয়েছে মুশফিকুর রহিম ও মোস্তাফিজুর রহমানকে। একাদশে ঢুকেছেন মুমিনুল হক, নাজমুল হোসেন শান্ত ও আবু হায়দার রনি।

এই ম্যাচের মাধ্যমে ওয়ানডে ক্রিকেটে অভিষেক হচ্ছে নাজমুল হোসেন শান্ত এবং আবু হায়দার রনির। নাজমুল হোসেন শান্ত এর আগে জাতীয় দলের হয়ে একটি টেস্ট ম্যাচ খেলেছেন। আর আবু হায়দার রনি জাতীয় দলের হয়ে এখন পর্যন্ত দশটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন।

‘বি’ গ্রুপ থেকে বাংলাদেশ ও আফগানিস্তান দুই দলেরই ইতোমধ্যে সুপার ফোর নিশ্চিত হয়ে গিয়েছে। আজকের ম্যাচের ফলাফল সুপার ফোরের সূচি নির্ধারণেও কোনো প্রভাব ফেলবে না। তাই দুই দলের জন্যই এই ম্যাচটি শুধু নিয়মরক্ষার। সুপার ফোরের ম্যাচে আগামীকাল ভারতের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। আর পাকিস্তানের মুখোমুখি হবে আফগানিস্তান।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

আফগানিস্তান ইনিংস: ২৫৫/৭ (৫০ ওভার)

(মোহাম্মদ শাহজাদ ৩৭, ইহসানুল্লাহ ৮, রহমত শাহ ১০, হাশমতউল্লাহ শহীদি ৫৮, আসঘার আফগান ৮, সামিউল্লাহ শেনওয়ারি ১৮, মোহাম্মদ নবী ১০, গুলবদিন নাইব ৪২*, রশীদ খান ৫৭*; রুবেল হোসেন ১/৩২, আবু হায়দার রনি ২/৫০, মেহেদী হাসান মিরাজ ০/২১, মাশরাফি বিন মুর্তজা ০/৬৭, সাকিব আল হাসান ৪/৪২, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত ০/১৮, মুমিনুল হক ০/১৫, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ০/৫)।

(ঢাকাটাইমস/২০ সেপ্টেম্বর/এসইউএল)

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত