টিম ম্যানেজমেন্টকে বেকায়দায় ফেলে দিলেন লিটন-শান্ত

দেলোয়ার হোসেন, দুবাই থেকে
| আপডেট : ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২২:১১ | প্রকাশিত : ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৯:০২

দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম দুপুরের দিকে ছিল প্রায় ফাঁকা। সময় গড়ানোর সঙ্গে ভরে গেল গ্যালারি। গ্যালারির বাংলাদেশ-ভারত দর্শক অনুপাত প্রায় সমান সামান। কিন্তু দুই ওপেনারের বাজে ব্যাটিংয়ে মহা বিরক্ত বাংলাদেশি সমর্থকরা।

তামিমের ইনজুরিটাই মহা বিপদে ফেলে দিয়েছে দলকে। এক তামিম নেই, পুরো দলের ব্যাটিং নড়বড়ে। সবচয়ে বাজে অবস্থা ওপেটিং জুটির। গত ২০ বছরে এর চেয়ে বাজে ওপেনিং জুটি য়ে মাঠে নামতে হয়নি বাংলাদেশকে। নাজমুল হাসান শান্ত- লিটন কুমার দাস। দুর্ভাবনার ওপর নাম হয়ে ওঠেছিন তারা। টিম ম্যাজেমেন্ট এবং নির্বাচকদের একরকম বেকায়দাই ফেলে দিয়েছেন এই দুই তরুণ ওপেনার।

সুপার ফোরে আরও দুটি ম্যাচ বাকি। ওই দুই ম্যাচে কি ব্যর্থ লিটন-শান্তর উপরই ভরসা করবে টিম ম্যানেজমেন্ট? নাকি জরুরি ভিত্তিতে সৌম্য বা ইমরুলদের উড়িয়ে আনা হবে? মাঠে বসে এই চিন্তায় মাথা নিশ্চয়ই ঘুরপাক খাচ্ছে টিম ম্যানেজমেন্টের লোকজনদের।

টি-টোয়ে্ন্টি ফরম্যাটে দুই একটা ভালো ইনিংস খেলেছেন বটে, কিন্তু ৫০ ওভার ম্যাচে লিটন দাসের ক্যারিয়ার বড়ই বিবর্ণ। ১৫ ম্যাচে একটিও হাফ সেঞ্চুরি নেই। গড় ১১-১২ এর মধ্য। এই লিটনের উপর ভরসা করা ঠিক হয়নি, বুঝতে পারছেন কোচ, অধিনায়ক ও নির্বাচকরা।

এশিয়া কাপের প্রথম ম্যাচে কোনো রানই করতে পারেননি।পরের দুই ম্যাচে যথাক্রমে ৬ ও ৭। আর তরুণ ব্যাটসম্যান নাজমুল হাসান শান্ত?

আফগান্তিানের বিপক্ষে ১৭ বলে করেছিলেন ৭।আজও সেই ৭ এর বেশি করতে পারলেন না। প্রতিভাবানরা অভিষেকের প্রথমেই বিশ্বকে জানিয়ে দেন, আর শান্ত বুঝিয়ে দিলেন এই পরিসরে খেলার মতো প্রতিভা বা সাহসটা আপাতত হয়ে ওঠেনি।

ওপেনিং জুটিতে সীমিহীন বেকায়দায় পড়ে গেছে টিম ম্যানেজমেন্ট। সামনে দুটি ডু অর ডাই ম্যাচ। কিন্তু এই লিটন-শান্ত জুটির কীভাবে ভরসা করে থাকবে দল?

(ঢাকাটাইমস/২১সেপ্টেম্বর/ডিএইচ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত