‘ভারতের প্রশাসন ছোট মানসিকতার লোকদের দখলে’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৯:০৯ | প্রকাশিত : ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৯:০৪

পাকিস্তানের সঙ্গে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠক বাতিল করার একদিন পর মুখ খুলেছেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। তিনি বলেছেন, ভারতের প্রশাসনে দূরদর্শিতাহীন ‘ছোট মানসিকতার’ লোকজন কাজ করেন।

কাশ্মিরের সোপিয়ানে তিন পুলিশের অপহরণ ও খুনের ঘটনায় শুক্রবার এই বৈঠক বাতিল করে ভারত।

আগামী সপ্তাহে নিউইয়র্কে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের বৈঠকের ফাঁকে পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশির সঙ্গে আলোচনায় বসার কথা ছিল ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজের।

শনিবার ইমরান খান এক টুইট বার্তায় বলেন, ‘শান্তি আলোচনা পুনরায় শুরু করতে আমার আহ্বান প্রত্যাখ্যান করায় ভারতের উদ্ধত ও নেতিবাচক আচরণ দেখে আমি হতাশ। আমি সারা জীবন দেখেছি, ছোট মন-মানসিকতার মানুষেরা বিশাল অফিস দখল করে রাখে। যাদের বড় কোনো স্বপ্ন নেই।’

আশা করা হয়েছিল, এই বৈঠকের মাধ্যমে দুই দেশের মধ্যে চলমান বৈরী সম্পর্কের বরফ গলবে।

কাশ্মিরের সোপিয়ানে বৃহস্পতিবার রাতে চার পুলিশকর্মীকে অপহরণ করে জঙ্গিরা। তাদের মধ্যে তিনজনের দেহ শুক্রবার সকালে উদ্ধার করা হয়। এর কয়েক ঘন্টা পর ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তরফ থেকে বলা হয়, ‘আলোচনা আর সন্ত্রাস একই সঙ্গে চলতে পারে না।’

ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র রাবিশ কুমার বলেছেন, ‘ক্ষমতায় আসার কয়েক মাসের মধ্যেই ইমরান খানের মুখোশটা সরে গিয়ে মুখটা বেরিয়ে এল।’

কাশ্মিরের বিচ্ছিন্নতাবাদী সংগঠন হিজবুল মুজাহিদিনের নেতা বুরহান ওয়ানির ২০টি বিশেষ স্মারক টিকিট প্রকাশ করায় ইসলামাবাদের প্রতি অসন্তুষ প্রকাশ করেছে ভারত।

রাবিশ কুমার বলেছেন, ‘এই অবস্থায় আলোচনা করা অর্থহীন।’

পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি বলেছেন, ‘অভ্যন্তরীণ চাপের মুখে পড়ে ভারত এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। যা খুবই দুঃখজনক।’

(ঢাকাটাইমস/২২সেপ্টেম্বর/এসআই)

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত