মা-বাবার পা ধোয়ালো দুই লাখ শিশু

নিজস্ব প্রতিবেদক, গোপালগঞ্জ
 | প্রকাশিত : ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১২:০৯

‘গুরুজনে কর নতি’ এই শ্লোগানকে সামনে রেখে গোপালগঞ্জের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মা-বাবাদের পা-ধোয়ানো কর্মসূচি পালিত হায়েছে। এই কর্মসূচিতে জেলার এক হাজার ১০০টি প্রাথমিক বিদ্যালয়, উচ্চ বিদ্যালয় ও মাদ্রাসার প্রায় দুই লাখ শিক্ষার্থী অংশ নেয়।

রবিবার সকাল ১০টায় জেলার সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে একযোগে এই কর্মসূচি পালন করা হয়।

এর আগে স্ব-স্ব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এসব আলোচনা সভায় শহরের যুগশিখা স্কুলে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মোখলেসুর রহমান সরকার, বিণাপাণি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান নিরুনাহার ইউসুফ, বিণাপাণি সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক শিক্ষা ও আইসিটি মোসাম্মদ শাম্মী আক্তার, এসএম মডেল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় ও প্রথামিক বিদ্যালয়ে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক শান্তিমণি চাকমা উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়া জেলা শহরের গোপালগঞ্জ আইডিয়াল একাডেমি, সোনালী স্বপ্ন একাডেমিসহ জেলা ও উপজেলা ও গ্রামের বিদ্যালয়গুলোতে এই কর্মসূচি পালিত হয় বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট দপ্তরের প্রধানরা।

এ কর্মসূচিটি জেলাব্যাপী ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার সৃষ্টি করেছে দাবি করে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মোখলেসুর রহমান সরকার বলেন, জেলার প্রায় দুই লাখ শিক্ষার্থী বাবা-মায়ের পা ধোয়ানো অনুষ্ঠানে যোগ দেয়।  শিশুদের মৌখিক উপদেশে প্রত্যাশিত ফল পাওয়া যায় না। এজন্য মাতা-পিতা, শিক্ষক ও গুরুজনের প্রতি সম্মান প্রদর্শনের এটি ব্যবহারিক কার্যক্রমের আয়োজন করা। এতে প্রতিটি কোমলমতি ছাত্র-ছাত্রীর মনে পিতা-মাতা, শিক্ষক ও গুরুজনদের প্রতি শ্রদ্ধা-ভক্তি ও সম্মান প্রদর্শনের মানসিকতা গড়ে উঠবে।

প্রসঙ্গত, গত বছর থেকে জেলার সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এ ধরনের অনুষ্ঠান শুরু করা হয়।

(ঢাকাটাইমস/২৩সেপ্টেম্বর/প্রতিনিধি/জেবি)

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত