বিএনপি ১০ বছরে পারেনি, পারবেও না: কাদের

ব্যুরো প্রধান, চট্টগ্রাম
| আপডেট : ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৩:৪২ | প্রকাশিত : ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১২:৫১

বিএনপি গত ১০ বছরে বিভিন্ন সময় আন্দোলনের ঘোষণা দিয়েও কিছু করতে পারেনি, আগামী দিনেও পারবে না বলে মন্তব্য করেছেন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। জনগণ এখন নির্বাচনী মুডে আছে, তাই কোনো আন্দোলনের ডাকে সাড়া দেবে না বলেও মনে করেন তিনি।

রবিবার সকালে চট্টগ্রামের কর্ণফুলীতে এক সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন। সড়কপথে নির্বাচনী সফরের দ্বিতীয় দিনে ওবায়দুল কাদেরের নেতৃত্ব একটি প্রতিনিধি দল চট্টগ্রাম থেকে কক্সবাজারের উদ্দেশে রওয়ানা দিয়েছে। গতকাল প্রতিনিধি দলটি ঢাকা থেকে রওয়ানা করে এবং বেশ কয়েকটি জনসভায় নেতারা ভাষণ দেন।

বেলা ১১টার দিকে চট্টগ্রামের কর্ণফুলীতে পৌঁছায় প্রতিনিধি দলটি। এরপর লোহাগাড়ায় মেহেরুন্নেসা স্কুল মাঠে সুধী সমাবেশে যোগ দেয়ার কথা রয়েছে তাদের। বিকাল তিনটায় কক্সবাজারের চকরিয়া বাসস্ট্যান্ড ও চারটায় ঈদগাঁ মাঠে পথসভা হবে। কর্মসূচি শেষে কক্সবাজারে রাত্রিযাপন করবে আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি দল।

প্রায় ২৮ মিনিটের বক্তব্যে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সরকার মুক্তিযোদ্ধা ভাতা, বয়স্ক ভাতা, বিধবা ভাতা, পঙ্গু ভাতা দিচ্ছে। আওয়ামী লীগ গরিবের দল। বিএনপি কখনো গরিবের দল নয়, বিএনপি মানুষের দল নয়, ক্ষমতার দল, বিএনপি ক্ষমতার লোভে অন্ধ হয়ে গেছে।’

চট্টগ্রামের বিএনপি নেতাদের উদ্দেশ্যে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘কর্ণফুলীতে বিএনপির কী অবস্থা আজ দেখে যান। কর্ণফুলী এখন নৌকার দুর্গ। কর্ণফুলী এখন তরুণ নেতা জাবেদের দুর্গ। শেখ হাসিনার নৌকার দুর্গে পরিণত। চট্টগ্রামের মানুষ বিএনপিকে আর চায় না। যারা পাকিস্তানের দালালি করে তাদেরকে চায় না।’

‘ফখরুল সাহেব জাতিসংঘে তৃতীয় শ্রেণির কর্মচারীর সঙ্গে বৈঠক করেন। অথচ জাতিসংঘের মহাসচিবের সঙ্গে দেখা করেছেন বলে প্রচার করল বিএনপি। যদিও জাতিসংঘের মহাসচিব তখন যুক্তরাজ্যেও ছিলেন না। জনগণকে বোকা বানিয়ে মিথ্যাচারের আশ্রয় নিলেন, বিএনপি ভুয়া দল। এ রকম প্রতারক দল কি ক্ষমতায় এলে দেশের উন্নয়ন হবে।’

পরে মাদককে ‘না’ বলুন, মাদককে ‘না’ বলুন বলে কয়েকবার উচ্চারণ করেন দলের সাধারণ সম্পাদক।

কাদের বলেন, আওয়ামী লীগ ঐক্যবদ্ধ থাকলে, আগামী নির্বাচনেও বিজয় নিশ্চিত। আমাদের প্রধানমন্ত্রী নারীদের জন্য অনেক কিছু সুযোগ সৃষ্টি করেছে। নারী জাতি সবাই কি শেখ হাসিনাকে আগামীতে সম্মান দেবেন? এ সময় উচ্চস্বরে সবাই হ্যাঁ বলে আওয়াজ দেন।

বিশ্বে আজ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রভাবশালী নেত্রী। আপনাদের আস্থা আছে কি আমাদের নেত্রীর ওপর? পুনরায় সবাই উচ্চস্বরে হ্যাঁ বলে আওয়াজ দেন।

এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ, সাংগঠনিক সম্পাদক মুহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, একেএম এনামুল হক শামীম, উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন, বিজ্ঞান ও প্রযুক্ত বিষয়ক সম্পাদক আবদুস সবুর, উপ-দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া। এছাড়া বক্তব্য দেন চট্টগ্রাম-১৩ আসনের সংসদ সদস্য ভূমি প্রতিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ।

দক্ষিণ জেলা আওযামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমানের সঞ্চালনায় সভাপতিত্ব করেন কর্ণফুলী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সৈয়দ জামাল আহমেদ।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মোসলেম উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ফারুক চৌধুরী, কর্ণফুলী উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি সৈয়দ জামাল আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক হায়দার আলী রনি প্রমুখ।

(ঢাকাটাইমস/২৩সেপ্টেম্বর/জেজে/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত