‘অবৈধ আবাসন’ প্রকল্পের মালিকসহ দুইজন কারাগারে

গাজীপুর প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৯ অক্টোবর ২০১৮, ২০:১২

গাজীপুরের টঙ্গীর গুশুলিয়া এলাকার ছায়াকুঞ্জ হাউজিংয়ের মালিক ও ব্যবস্থাপনা পরিচালককে জেলহাজতে পাঠিয়েছে আদালত। সরকারি খাস জমি দখল ও জলাশয় ভরাটের অভিযোগে পরিবেশ অধিদপ্তরের করা মামলায় মঙ্গলবার আদালতে হাজির হলে বিচারক তাদের জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

গাজীপুর পরিবেশ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক আবদুস সালাম জানান, টঙ্গীর সাতাইল এলাকায় এমএ ওয়াহাব রিয়েল এস্টেট লিমিটেডের ছায়াকুঞ্জ ৫ ও ৬ প্রকল্পের অধীনে শত শত বিঘা সরকারি খাস জমি দখল এবং জলাশয় ভরাটের অভিযোগে প্রতিষ্ঠানের মালিক কামরুল ইসলাম কামু ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক শহিদ রেজার বিরুদ্ধে গাজীপুর আদালতে মামলা করে পরিবেশ অধিদপ্তর। আদালত সমন জারি করলে জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত-১ এ হাজির হয়ে জামিন চান অভিযুক্তরা। পরিবেশ অধিদপ্তরের আইনজীবী জামিনের বিরোধিতা করেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে ওই আদালতের বিচারক ইলিয়াস রহমান জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে তাদের জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

অভিযোগ রয়েছে, আসামিরা ইতোমধ্যে ছায়াকুঞ্জ আবাসিক প্রকল্পের নামে পাঁচ’শ বিঘারও বেশি সরকারি খাস জমি ও জলাশয় ভরাট করেছে। জলাশয় ভরাটের আগে পরিবেশ অধিদপ্তর, সিটি কর্পোরেশন বা রাজউক থেকে কোনো অনুমোদন নেয়নি। প্রভাব খাটিয়ে তারা এসব কাজ করে আসছিল। এছাড়া দখল করা এসব জমির জাল-কাগজপত্র তৈরি করে বিক্রি করে ওই দুইজন শত শত কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়।

(ঢাকাটাইমস/৯অক্টোবর/প্রতিনিধি/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত